• Home
  • »
  • News
  • »
  • crime
  • »
  • BANK MANAGER IN DURGAPUR KILLS WIFE USING BELT OF DOG DMG

Durgapur Murder: কুকুরের বকলেস পেঁচিয়ে স্ত্রীকে খুন! থানায় গিয়েই নিজেই জানালেন ব্যাঙ্ক কর্তা

বিপ্লব পরিয়াদ ও তাঁর স্ত্রী ঈপসা৷

বিপ্লব পরিয়াদ পুলিশকে জানান, ২০১৯ সালে সম্বন্ধ করেই ওড়িশার কটকের বাসিন্দা ঈপসার সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয় (Durgapur Murder)৷

  • Share this:

    #দুর্গাপুর: একই রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের শাখার দুই ম্যানেজার৷ মাঝে ছ' বছরের ফারাক৷ প্রথম জন খুন করেছিলেন নিজের প্রেমিকা এবং তাঁর শিশু সন্তানকে৷ আর ছ' বছর পর দ্বিতীয়জন নিজের স্ত্রীর গলায় বকলেস পেঁচিয়ে খুন করে ছ' বছর আগের সেই নৃশংস ঘটনার কথা মনে করিয়ে দিলেন৷

    পশ্চিম বর্ধমান জেলার কাঁকসা ব্লকের বামুনারা এলাকায় একটি বহুতলে থাকতেন একটি রাস্ট্রায়াত্ত ব্যাঙ্কের সহকারী ম্যানেজার বিপ্লব পরিয়াদ ও তাঁর স্ত্রী ঈপসা প্রিয়দর্শনী। রবিবার রাতে হঠাৎই মোটরবাইক চালিয়ে কাঁকসা থানায় হাজির হন বিপ্লব পরিয়াদ নামে ওই ব্যাঙ্ক কর্তা৷ কাঁকসা থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিককে বিপ্লব জানান, ফ্ল্যাটেই তিনি তাঁর স্ত্রীকে খুন করে এসেছেন। ‌সঙ্গে সঙ্গে বিপ্লবকে নিয়ে তাঁর ফ্ল্যাটে পৌঁছয় পুলিশ৷ দরজা খুলে দেখা যায়, মেঝেতে পড়ে রয়েছে তাঁর স্ত্রী ঈপসার দেহ৷

    বিপ্লব পরিয়াদ পুলিশকে জানান, ২০১৯ সালে সম্বন্ধ করেই ওড়িশার কটকের বাসিন্দা ঈপসার সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয়৷ কিন্তু বিয়ের পর থেকেই দু' জনের মধ্যে অশান্তি লেগেই থাকত৷ পুলিশের সামনে বিপ্লব দাবি করেন, স্ত্রীর চাহিদা এবং অত্যাচারে তিনি সহ্য করতে পারছিলেন না৷ রবিবার রাতে অশান্তি চরমে পৌঁছলে পোষ্য সারমেয়র বেল্ট স্ত্রীর গলায় পেঁচিয়ে তাঁকে শ্বাসরোধ করে খুন করেন বিপ্লব৷ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে এ দিন দুর্গাপুর মহকুমা আদালতে তোলা হলে তাঁকে পাঁচ দিনের পুলিশি হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেন বিচারক৷

    খবর পেয়ে এ দিন দুর্গাপুর পৌঁছয় ঈপসার পরিবার৷ নিহতের তরুণীর বাবা উদয় আনন্দ বেহরার অভিযোগ, ওড়িশাতে ফ্ল্যাট কেনার জন্য ৩৫ লক্ষ টাকা দাবি করেছিলেন বিপ্লব৷ সেই দাবি না মেটানোর কারণেই ঈপসাকে খুন করেছেন বিপ্লব৷

    বিপ্লবকে দেখে অনেকেরই সমরেশ সরকারের কথা মনে পড়ছে৷ কারণ বিপ্লব কাঁকসা এলাকার যে ব্যাঙ্কের সহকারী ম্যানেজার, ব্যাঙ্কের ওই শাখাতেই ম্যানেজার পদে কর্মরত ছিলেন সমরেশ৷ ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বর মাসে নিজের প্রেমিকা এবং তাঁর শিশুকন্যাকে খুন করে দেহ স্যুটকেসে ভরে গঙ্গায় ফেলে দিতে গিয়ে ধরা পড়েছিলেন সমরেশ৷ ঘটনার নৃশংসতায় আঁতকে উঠেছিল গোটা রাজ্য৷ ছ' বছর পর সেই একই ব্যাঙ্কের সহকারী ম্যানেজার বিপ্লব পরিয়াদ তাঁর স্ত্রীকে খুন করলেন৷ দুই ঘটনার সাদৃশ্যে অবাক দুর্গাপুরবাসী৷

    Arpan Chakraborty

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: