ক্রাইম

corona virus btn
corona virus btn
Loading

লজেন্স-বিস্কুটের লোভ দেখিয়ে মাসের পর মাস মেটাত যৌন লালসা, শিকার চার নাবালিকা, বারাসতে গ্রেফতার প্রৌঢ়

লজেন্স-বিস্কুটের লোভ দেখিয়ে মাসের পর মাস মেটাত যৌন লালসা, শিকার চার নাবালিকা, বারাসতে গ্রেফতার প্রৌঢ়
Photo- News 18 Creative

ধৃতের ছেলের বিরুদ্ধে নির্যাতিত পরিবারকে প্রাননাশের হুমকি দেওয়ার অভি়যোগ৷

  • Share this:

#বারাসত:  বারাসত পুরসভার ৩৫ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা নিখিল বিশ্বাস।প্রতিবেশীর শিশুদের নিয়ে মেতে থাকতে দেখতেন এলাকার মানুষ।তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে নাবালিকাদের যৌন নির্যাতনের।বারাসত থানায় লিখিত অভিযোগে জানানো হয়ে সেই কথা।অভিযোগ, খাবার, লজেন্স আর খেলনার লোভ  দেখিয়ে এলাকার চার নাবালিকাকে নিজের শিকার বানায় সে।সেই শিকার হল বিকৃত যৌন লালসার অভিযোগ নাবালিকার পরিবারের।

গত ৬ই জানুয়ারি বারাসাত থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়। অভিযোগকারী পরিবারের দাবি নানান টালবাহানার পর পুলিশ অভিযুক্ত  নিখিল বিশ্বাসকে  গ্রেফতার করেছে । ইতিমধ্যে বারাসাত আদালতে পসকো আইনের ধারা দিয়ে নিখিল বিশ্বাসকে পুলিশ হাজিরও করিয়েছে।অভিযোগ বাবাকে জেলে পাঠানোর জন্য মামলাকারীর উপর গিয়ে পড়েছে ধৃতের ছেলের আক্রোশ।ধৃত নিখিল বিশ্বাসের জামিনের কোন বিরোধিতা না করা হয় এই দাবি নিয়ে ধৃতের ছেলে হুমকি দিচ্ছে৷ এমনটাই দাবি করেন মামলার আইনজীবী রনি কর। নির্যাতিতার আইনজীবীর অভিযোগ ধৃত নিখিল বিশ্বাসের ছেলে মামলা শুরুর আগে থেকেই হুমকি দিয়ে আসছে।তাঁর অভিযোগ মামলা প্রত্যাহরের জন্য নির্যাতিতাদের পরিবারের সদস্যদের প্রাণনাশের হুমকিও দিচ্ছে ধৃতের ছেলে। এই ঘটনাকে কেন্দ্রকরে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যও ছড়িয়েছে।

নির্যতিতাদের পরিবারের অভিযোগ ৭ থেকে ৯ বছর বয়সের চার শিশুকে খাবারের লোভ দেখিয়ে প্রতিবেশী নিখিল বিশ্বাস যৌন নির্যাতন করছিল। আর প্রায় সাত মাস ধরে তিনি এই ঘটনা ঘটিয়ে আসছেন। তার এই অপকর্মের কথা নাবালিকারা  বাড়িতে না বলে তার জন্য তাদের ভয়ও দেখাত সেই প্রৌঢ় দাবি নির্যাতিতার পরিবারের। গত ৫ জানুয়ারি এক নাবালিকা  অসুস্থ হয়ে পড়ে।আর সেই অসুস্থতার কারন খুঁজতে গিয়ে নিখিল বিশ্বাসের কুকর্ম সামনে আসে। এরপরেই পরিবারের পক্ষ থেকে বারাসাত মহিলা থানায় অভিযোগ দায়ের করে।পুলিশ পকসো আইনে মামলা শুরু করে অভিযুক্ত নিখিল বিশ্বাসকে গ্রেফতার করে।তদন্ত শুরু করে পুলিশ চার নাবালিকাকে আদালতে নিয়ে আসে গোপন জবানবন্দীর জন্য। ইতিমধ্যেই চার শিশুর গোপন জবানবন্দী নিয়েছে আদালত।

RAJARSHI Roy

Published by: Debalina Datta
First published: January 11, 2021, 8:40 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर