দলিত ছেলেকে পালিয়ে বিয়ে, মেয়েকে খুন করল বাবা!

দলিত ছেলেকে পালিয়ে বিয়ে, মেয়েকে খুন করল বাবা!

প্রতীকী ছবি

গত সপ্তাহেই রাজস্থান হাইকোর্টে বাবার আপত্তির কথা জানিয়ে সাহয্য চেয়ে মামলা করেছিলেন ওই তরুণী। ঘটনাটি ঘটেছে রাজস্থানের দৌসা জেলায়।

  • Share this:

    #রাজস্থান: দলিত ছেলের সঙ্গে পালিয়ে বিয়ে করেছিলেন ১৮ বছরের তরুণী। তার পর থেকে পুলিশের কড়া নজরদারি রাখা হয়েছিল তরুণীর উপর। সেই মেয়েকেই শ্বাসরোধ করে খুন করল তাঁর বাবা। গত সপ্তাহেই রাজস্থান হাইকোর্টে বাবার আপত্তির কথা জানিয়ে সাহয্য চেয়ে মামলা করেছিলেন ওই তরুণী। ঘটনাটি ঘটেছে রাজস্থানের দৌসা জেলায়।

    পিঙ্কি সাইনি নামের ওই তরণী অভিযোগ করেছিলেন যে, গত ১৬ ফেব্রুয়ারি জোর করে বাবা শঙ্কর লাল সাইনির নির্দেশে বিয়ে করেন। বিয়ের তিনদিনের মধ্যেই বাড়ি ফিরে এসেছিলেন তিনি। ২১ ফেব্রুয়ারি নিজের পছন্দের দলিত এক পাত্রের সঙ্গে পালিয়ে গিয়েছিলেন তিনি। তাঁর নাম রোশন মহাওয়ার। এর পরদিনই পুলিশ সুপার অনিল বেনিওয়ালের কাছে মেয়েটির বাবা অপহরণের অভিযোগ দায়ের করেছিলেন।

    ২৬ ফেব্রুয়ারি পিঙ্কি ও রোশন হাইকোর্টে গিয়ে মামলা করেছিলেন সাহায্য চেয়ে। আদালতের নির্দেশে রাজ্য পুলিশকে দম্পতিকে পাহারা দিতে বলা হয়েছিল। আদালতের পর্যবেক্ষণ ছিল, 'তাঁদের জীবন ও স্বাধীনতা সংকটের মধ্যে রয়েছে'। পুলিশকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল যে, ওই দম্পতি যেখানে থাকতে চান সেখানে তাঁদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে।

    পয়লা মার্চ দৌসার গ্রামে ফিরেছিলেন ওই দম্পতি। ওই দিনই পিঙ্কিকে বাড়ি থেকে অপহরণ করা হয় বলে পুলিশ সূত্রে খবর। দু'দিন ধরে তাঁর খোঁজ চালানো হয়। এর পর ফের পিঙ্কির বাবা এসপির কাছে গিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন। যদিও পরে জানা যায়, বাবা নিজেই নিজের মেয়েকে গলায় ফাঁস দিয়ে খুন করেছে। বাড়ির অন্য সদস্যরা সেই দেহ উদ্ধার করেন। বুধবার রাত তিনটে নাগাদ নিজের অপরাধ স্বীকার করে পিঙ্কির বাবা।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published:
    0

    লেটেস্ট খবর