• Home
  • »
  • News
  • »
  • coronavirus-latest-news
  • »
  • মোদির ডাকে সাড়া, করোনা মুক্তির প্রার্থনায় অন্ধকার হল দেশ

মোদির ডাকে সাড়া, করোনা মুক্তির প্রার্থনায় অন্ধকার হল দেশ

অতি উৎসাহে গ্রেফতার বহু৷ PHOTO- FILE

অতি উৎসাহে গ্রেফতার বহু৷ PHOTO- FILE

শনিবার সকাল নটায় ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, গোটা দেশের আলো নিভিয়ে মহাশক্তি জাগ্রত করতে গবেষ দেশের মানুষের সদিচ্ছাতেই দূর হবে করোনা। বিরোধীরা তাঁর এই মত নিয়ে কটাক্ষ করতে ছাড়েনি।

  • Share this:

    ঐতিহাসিক মুহূর্ত। নরেন্দ্র মোদির ডাকে সারা দিয়ে অন্ধকার হয়ে গেল গোটা দেশ। রাত ন'টায় এক যোগে নিভে গেল গোটা দেশের আলো। বিভিন্ন শহরে,গ্রামে , জেলায় জেলায় মোমবাতি, প্রদীপ, জ্বালিয়ে 'মহাশক্তি' জাগ্রত করার আহ্বানে সাড়া দিল দেশ। সকলের প্রার্থনা একটাই, এবার ১৩৩ কোটি মানুষকে মুক্তি দিক করোনা ভাইরাস। ফাটতে থাকে আতসবাজি, শব্দবাজিও। ঠিক যেমনটা হয় দীপাবলির দিনে।

    এই মুহূর্তে গোটা দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩৪৯৭। শেষ ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৫০৫ জন। সংক্রমণ রুখতে গত ২৩ মার্চ লকডাউন ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী। ২২ মার্চ জনতা কার্ফু ঘোষণা করার সময়ে প্রথম ভিডিওবার্তায় দেশবাসীকে করোনা আক্রান্তদের সেবায় নিয়োজিতদের উৎসাহ দিতে করতালি বাজাতে অনুরোধ করেন।

    এ দিন নরেন্দ্র মোদির ডাকে সাড়া দিয়ে নিজের বাসভবনকে প্রদীপে সাজান যোগী আদিত্যনাথ। প্রদীপের আলোয় লেখা হয় 'ওম'।

    শনিবার সকাল নটায় ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, রবিবার রাত ন'টায় ন'মিনিটের জন্যে গোটা দেশের আলো নিভিয়ে ফেলতে হবে। দেশের মহাশক্তি জাগ্রত করতে হবে। দেশের মানুষের সদিচ্ছাতেই দূর হবে করোনা। বিরোধীরা তাঁর এই মত নিয়ে কটাক্ষ করতে ছাড়েনি। তাঁরা বলতে শুরু করে, প্রধানমন্ত্রী মূল সমস্যা এড়িয়ে যাচ্ছেন। অন্য দিকে সার্কভুক্ত দেশ গুলি-সহ মোট ১২টি দেশ জানায় নরেন্দ্র মোদির কথা মেনে ভারতীয় সময় রাত নটায় আলো বন্ধ রাখবেন তারা।

    অনেকেই আশঙ্কা করেছিলেন , সর্বত্র আলো নিভিয়ে ফেললে পাওয়ার গ্রিড বসে বিদ্যুৎ পরিষেবা ব্যহত হবে। গোটা দেশে অকাল দীপাবলি পালন শুরু হলেও এখনও পর্যন্ত তেমন কোনও অপ্রীতিকর খবর পাওয়া যায়নি।

    Published by:Arka Deb
    First published: