লকডাউনে পাইকারি বাজার খোলাই থাকবে, সিদ্ধান্ত বদল বর্ধমানের ব্যবসায়ীদের

পূর্ব বর্ধমান চেম্বার অফ ট্রেডার্সের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বৃহস্পতিবারে থেকে বর্ধমানের রানিগঞ্জ বাজার ও তেঁতুল তলা বাজারের সব পাইকারি ফল, সবজি ও মাছ বাজার খোলা থাকবে।

পূর্ব বর্ধমান চেম্বার অফ ট্রেডার্সের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বৃহস্পতিবারে থেকে বর্ধমানের রানিগঞ্জ বাজার ও তেঁতুল তলা বাজারের সব পাইকারি ফল, সবজি ও মাছ বাজার খোলা থাকবে।

  • Share this:

#বর্ধমান: এক দিন বন্ধ থাকার পর আগামিকাল, বৃহস্পতিবার থেকেই চালু হয়ে যাচ্ছে বর্ধমানের মাছ ও সবজির পাইকারি বাজার। করোনা পরিস্থিতি ও লক ডাউনের জেরে বুধবার থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য মাছ ও সবজির পাইকারি বাজার বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। এর ফলে শহরে মাছ ও সবজিতে টান পড়বে বলে মনে করছিলেন বাসিন্দারা। প্রশাসনিক হস্তক্ষেপে সেই সমস্যা আপাতত মিটে গিয়েছে। আগামিকাল, বৃহস্পতিবার থেকে প্রতিদিনই বাজার খোলা থাকবে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

এমনিতেই খন্ডঘোষে করোনা আক্রান্তের হদিশ মেলার পর রায়না, খন্ডঘোষ থেকে বর্ধমান শহরে মাছ ও সবজির জোগান কমে গিয়েছে। এরপর পাইকারি বাজারও বন্ধ হয়ে গেলে মাছের দেখা মিলবে না বলেই আশঙ্কা করছিলেন বাসিন্দারা। পাইকারি ব্যবসায়ীদের এই সিদ্ধান্তের জেরে মঙ্গলবার থেকেই শহরে মাছ ও সবজির দাম চড়তে শুরু করেছিল। বুধবার পাইকারি বাজার বন্ধ থাকায় সবজি বিক্রি হয়েছে অনেক চড়া দামে।

পূর্ব বর্ধমান চেম্বার অফ ট্রেডার্সের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বৃহস্পতিবারে থেকে বর্ধমানের রানিগঞ্জ বাজার ও তেঁতুল তলা বাজারের সব পাইকারি ফল, সবজি ও মাছ বাজার খোলা থাকবে। বাসিন্দাদের এই সব খাদ্য সামগ্রী পেতে কোনও রকম সমস্যা হবে না। পূর্ব বর্ধমান চেম্বার অফ ট্রেডার্সের সাধারণ সম্পাদক চন্দ্র বিজয় যাদব বলেন, নদিয়া, মুর্শিদাবাদ, মেদিনীপুর থেকে প্রচুর সবজি আসছে। অথচ ক্রেতা না থাকায় তার দাম নেই। অনেক সামগ্রী অবিক্রিত থেকে যাচ্ছে। অনেকেই দাম মেটাতে পারছেন না। তার ওপর পুলিশ বিভিন্ন গাড়ি আটকে দিচ্ছে। এইসব সমস্যার জন্যই আমরা অনির্দিষ্টকালের জন্য পাইকারি বাজার বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসনের সঙ্গে বৈঠক হয়েছে। সেখানে জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, সবজির মাছ ফলের গাড়ি আসার ক্ষেত্রে কোনও সমস্যা হবে না। তাঁদের সেই আশ্বাসের পরিপ্রেক্ষিতে আমরা বাজার চালু রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। বুধবার মাইকিং করে বাজার চালু থাকবে বলে ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে ঘোষণাও করা হয়।

লক ডাউনের জেরে অনেকেই বাড়ির দরজায় সবজি বা মাছ বিক্রেতাদের কাছ থেকে সেসব সামগ্রী কিনছিলেন। বুধবার পাইকারি বাজার বন্ধ থাকায় সেসব মেলেনি। কিছু কেমন সবজি মাছ মিললেও তার দাম ছিল আকাশ ছোঁয়া।

শরদিন্দু ঘোষ

Published by:Siddhartha Sarkar
First published: