কীভাবে এসেছিল করোনা ভাইরাস? WHO-এর তদন্তে সামনে এল নতুন তথ্য

কীভাবে এসেছিল করোনা ভাইরাস? WHO-এর তদন্তে সামনে এল নতুন তথ্য
১৪ জনে সদস্যের এই দল বর্তমানে চিনের ইউহান শহরে রয়েছে ৷ নভেম্বর ২০১৯ সালে ইউহান শহরে প্রথম এই ভাইরাসের সন্ধান পাওয়া যায় ৷

১৪ জনে সদস্যের এই দল বর্তমানে চিনের ইউহান শহরে রয়েছে ৷ নভেম্বর ২০১৯ সালে ইউহান শহরে প্রথম এই ভাইরাসের সন্ধান পাওয়া যায় ৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: করোনা ভাইরাসের জেরে গোটা বিশ্বে লক্ষ লক্ষ মানুষের মৃত্যু হয়েছে ৷ অস্বাভাবিক এক পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যেতে হয়েছে সকল দেশকে ৷ এর জেরে প্রভাব পড়েছে বিশ্বের অর্থনীতির উপরে ৷ একদিকে মূল্যবৃদ্ধি তো অন্যদিকে চাকরি হারিয়েছেন বহু মানুষ ৷ এখনও স্বাভাবিক হয়নি পরিস্থিতি ৷ যে ভাইরাসের জেরে গোটা পৃথিবীর স্বাভাবিক জীবন ব্যাহত হয়ে পড়ে, মৃত্যু হয় লক্ষ লক্ষ মানুষের সেই ভাইরাসের উৎপত্তি কোথায় ? এই বিষয়ে জানতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ১৪ জনের একটি দল গঠন করে ৷ ১৪  সদস্যের এই দল বর্তমানে চিনের ইউহান শহরে রয়েছে ৷ নভেম্বর ২০১৯ সালে ইউহান শহরে প্রথম এই ভাইরাসের সন্ধান পাওয়া যায় ৷ শীঘ্রই এই দল তাদের রিপোর্ট জমা দিতে চলেছে ৷ জানা গিয়েছে, ইউহান শহরের সি ফুড মার্কেটের একটি বড় ভূমিকা রয়েছে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার পিছনে৷

    এই তদন্তের মূল কারণ হচ্ছে এটা জানা যে কীভাবে এই ভয়ঙ্কর মহামারি ছড়িয়ে পড়ে এবং আগামী দিনে যাতে এরকম পরিস্থিতি না হয় তার জন্য পদক্ষেপ নেওয়া এবং সতর্ক থাকা ৷ গোটা বিশ্বে ১০ কোটির বেশি মানুষ করোনায় প্রভাবিত হয়েছেন ৷ ২৩ লক্ষের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে ৷ মে ২০২০-তে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তরফে ভাইরাসের উৎপত্তি এবং তার কারণ কী জানার দাবি জানানো হয়েছিল ৷

    একাধিক রিসার্চে অবশ্য দাবি করা হয়েছে যে এর পিছনে মার্কেটের কোনও ভূমিকা নেই ৷ WHO এই দাবি খারিজ করে তদন্ত শুরু করে এবং মার্কেটের ভূমিকা নিয়ে তারা বড়সড় প্রমাণ পেয়েছে ৷ তবে এই বিষয়ে এখনও বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি ৷ জানানো হয়েছে, সমস্ত প্রমাণ এবং তথ্য এক জায়গায় করা হচ্ছে ৷


    তবে এটা জানা গিয়েছে, সংক্রমিত ব্যক্তি ছাড়াও এমন অনকেজন ছিলেন যাদের মধ্যে কোনও উপসর্গ ছিল না ৷ আবার কয়েকজনের সামান্য সর্দি কাশি ছিল ৷ তাই ইউহান শহরের হাসপাতালে ভর্তি হওয়া প্রথম সংক্রমিত ব্যক্তি ছাড়াও শহরে অন্যান্য ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত ছিলেন ৷ কিন্তু তাঁদের সংখ্যা কত ছিল এবং কবে শুরু হয়েছিল এই সমস্ত বিষয়ে এখনও তথ্য জোগাড় করা হচ্ছে ৷

    Published by:Dolon Chattopadhyay
    First published:

    লেটেস্ট খবর