corona virus btn
corona virus btn
Loading

লকডাউনে গৃহবন্দি সকলেই? নিশ্চিত হতে চলছে ড্রোনে নজরদারি চালাচ্ছে পুলিশ

লকডাউনে গৃহবন্দি সকলেই? নিশ্চিত হতে চলছে ড্রোনে নজরদারি চালাচ্ছে পুলিশ

গ্রামের বাসিন্দাদের গ্রামের বাইরে যাওয়া নিষিদ্ধ করে দেওয়া হয়েছে। বাইরে থেকেও কাউকে ওই গ্রামে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। কারও কোন কিছুর প্রয়োজন হলে তা পুলিশ এনে দেবে বলে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

  • Share this:

#বর্ধমান: লক ডাউন পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে ড্রোনে নজরদারি শুরু করল পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশ। বর্ধমানের খন্ডঘোষের বাদুলিয়া, সেহারাবাজার এলাকায় ড্রোন উড়িয়ে এলাকার ওপর নজর রাখা হচ্ছে। বাদুলিয়ায় দু জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ মেলায় সেখানে বাসিন্দাদের ঘরে থাকতে বলা হয়েছে। সেখানে লক ডাউন নিশ্চিত করতেই ড্রোনে নজরদারি চালাচ্ছে পুলিশ। ড্রোন উড়িয়ে দেখা হচ্ছে সেখানের বাসিন্দারা যথাযথভাবে লক ডাউন পালন করছে কিনা।

৯ দিন আগে পূর্ব বর্ধমানের খণ্ডঘোষের  বাদুলিয়া গ্রামে জেলায় প্রথম করোনা ভাইরাস সংক্রমণের হদিস মেলে। 43 বছর বয়সী এক ব্যক্তি মেটিয়াবুরুজ থেকে মোটর সাইকেলে বাদুলিয়ায় গ্রামে ফিরেছিলেন। 16 এপ্রিল তিনি অসুস্থ হয়ে বর্ধমানের কোভিড হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানে তাঁর নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য কলকাতায় পাঠানো হয়।  18 এপ্রিল  তাঁর শরীরে করোনা সংক্রমণের প্রমাণ মেলে। এরপর তাকে দুর্গাপুরের কোভিড থ্রি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়  তাঁর সংস্পর্শে আসা পরিবারের সদস্য ও  পরিচিতদের কোয়ারান্টিন সেন্টারে নিয়ে আসা হয়। সেখান থেকে তাদের নমুনা সংগ্রহ করে দফায় দফায় পরীক্ষার জন্য পাঠানো হচ্ছে। সেখানেই তাঁর ন বছরের বালিকা ভাইঝির দেহেও করোনা সংক্রমণ মেলে।এরপর ওই এলাকায় লকডাউন পরিস্থিতি আরও জোরদার করা হয়েছে। ওই এলাকা ব্যারিকেড দিয়ে ঘিরে ফেলেছে পুলিশ। গ্রামের বাসিন্দাদের গ্রামের বাইরে যাওয়া নিষিদ্ধ করে দেওয়া হয়েছে। বাইরে থেকেও কাউকে ওই গ্রামে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। কারও কোন কিছুর প্রয়োজন হলে তা পুলিশ এনে দেবে বলে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

লকডাউন নিশ্চিত করতে এলাকায় সর্বক্ষণের পুলিশি নজরদারি চলছে। এরপর গ্রামের ভিতরে কেউ ঘর থেকে বের হচ্ছে কিনা তা জানতে ড্রোনে নজরদারি চালাচ্ছে পুলিশ।  সেহারা বাজারে বহু মানুষের সমাগম হয়। কিন্তু করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ার পর সেই বাজার এখন বেশিরভাগ সময় ফাঁকা থাকছে। সেই বাজারের জনসমাগম কেমন হচ্ছে তাও ড্রোনের মাধ্যমে দেখা হচ্ছে।

Saradindu Ghosh

First published: April 27, 2020, 12:07 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर