• Home
  • »
  • News
  • »
  • coronavirus-latest-news
  • »
  • নবম-দশম ও একাদশ-দ্বাদশের শিক্ষক নিয়োগ কবে হবে? অগাস্টের মধ্যেই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের দাবি নিয়ে আন্দোলনের প্রস্তুতি

নবম-দশম ও একাদশ-দ্বাদশের শিক্ষক নিয়োগ কবে হবে? অগাস্টের মধ্যেই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের দাবি নিয়ে আন্দোলনের প্রস্তুতি

‘অনেকেই বিএড পাস করে বসে রয়েছেন দীর্ঘদিন ধরে। তাদের নিয়োগ না এখনই না হলে এর পরবর্তী ক্ষেত্রে তাদের বয়স পেরিয়ে যাবে।’ দাবি নিয়োগপ্রার্থীদের

‘অনেকেই বিএড পাস করে বসে রয়েছেন দীর্ঘদিন ধরে। তাদের নিয়োগ না এখনই না হলে এর পরবর্তী ক্ষেত্রে তাদের বয়স পেরিয়ে যাবে।’ দাবি নিয়োগপ্রার্থীদের

‘অনেকেই বিএড পাস করে বসে রয়েছেন দীর্ঘদিন ধরে। তাদের নিয়োগ না এখনই না হলে এর পরবর্তী ক্ষেত্রে তাদের বয়স পেরিয়ে যাবে।’ দাবি নিয়োগপ্রার্থীদের

  • Share this:

#কলকাতা: স্কুল সার্ভিস কমিশন মারফত শিক্ষক নিয়োগের দাবি নিয়ে আবারও আন্দোলনে নামতে চলেছেন কয়েক হাজার প্রার্থী। নবম থেকে দ্বাদশ পর্যন্ত কয়েক হাজার শূন্য পদ পড়ে রয়েছে বলে দাবি ওয়েস্টবেঙ্গল টিচার্স ক্যান্ডিডেট  অ্যাসোসিয়েশনের প্রার্থীদের।

অগাস্ট মাস থেকেই নিয়োগ শুরু করার দাবির সঙ্গে সঙ্গে ডিসেম্বর মাসের মধ্যেই যাতে নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয় সেই দাবিতে এবার আন্দোলনে নামতে চলেছেন কয়েক হাজার বিএড পাশ করা প্রার্থীরা। তাদের অভিযোগ কয়েক বছর আগেই বিজ্ঞাপন দিয়ে নবম থেকে দ্বাদশ পর্যন্ত শিক্ষক নিয়োগের প্রক্রিয়া হয়েছে। উচ্চ প্রাথমিকে নিয়োগ প্রক্রিয়া কবে শেষ হবে তা কার্যত অনিশ্চিত।

আদালতের জটিলতায় রয়েছে উচ্চ প্রাথমিকের নিয়োগ প্রক্রিয়া। তাই নবম-দশম এবং একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণি শিক্ষক নিয়োগের প্রক্রিয়া অবিলম্বে চালু করুক রাজ্য সরকার। ইতিমধ্যেই নিয়োগের দাবিতে বিভিন্ন জেলাতে স্কুল জেলা বিদ্যালয় পরিদর্শকের কাছে ডেপুটেশন জমা দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করেছে প্রার্থীরা।

উচ্চ প্রাথমিকে নিয়োগ প্রক্রিয়ার  জন্য স্কুল সার্ভিস কমিশনের তরফে হাইকোর্টের কাছে দ্রুত শুনানির আবেদন করা হয়েছে বলে কমিশন সূত্রে খবর। চলতি বছরের শুরুতেই একাদশ-দ্বাদশ এবং নবম-দশম স্তরের শিক্ষক নিয়োগের প্রক্রিয়া শেষ করেছে স্কুল সার্ভিস কমিশন । কিন্তু সেই নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ হলেও বিজ্ঞাপন প্রকাশ করা হয়েছিল ২০১৬ সালে। ফলতঃ b.ed পাস করে প্রচুর প্রার্থী বসে রয়েছেন বলে অভিযোগ ওয়েস্ট বেঙ্গল টিচার্স অ্যাসোসিয়েশনের আহ্বায়ক রাকেশ দত্তের। তিনি বলেন, " সরকারকে অবিলম্বে নবম-দশম এবং একাদশ-দ্বাদশের নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করতে হবে। আমরা নিয়োগের দাবিতে বিভিন্ন জেলার স্কুল বিদ্যালয় পরিদর্শকদের কাছে ডেপুটেশন দিচ্ছি । খুব শীঘ্রই আমরা কলকাতা থেকে গিয়ে নিয়োগের দাবিতে আন্দোলন শুরু করব। অনেকেই বিএড পাস করে বসে রয়েছেন দীর্ঘদিন ধরে। তাদের নিয়োগ না এখনই না হলে এর পরবর্তী ক্ষেত্রে তাদের বয়স পেরিয়ে যাবে।"

কয়েক দফা দাবিও এই অ্যাসোসিয়েশনের তরফে রাখা হচ্ছে বিভিন্ন জেলা স্কুল বিদ্যালয় পরিদর্শকদের কাছে।

১) চলতি বছরের অগাস্ট এর মধ্যেই নবম-দশম এবং একাদশ-দ্বাদশের শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করতে হবে।

২) গেজেট পরিবর্তন করে শুধুমাত্র বিষয়ের ওপর ভিত্তি করে পরীক্ষা নিতে হবে এবং অবশ্যই MCQ টাইপের প্রশ্ন করতে হবে।

৩) সমস্ত আপডেট শূন্য পদে নিয়োগ করতে হবে।

৪) নিয়োগ প্রক্রিয়া চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যেই শেষ করতে হবে।

৫) পুরো প্যানেল প্রকাশ করতে হবে।

৬) সম্পূর্ণ দূর্নীতিমুক্ত করতে OMR এর কার্বন কপি প্রার্থীদের দিতে হবে।

৭) প্রতিবছর স্কুল সার্ভিস কমিশনের মাধ্যমে শিক্ষক নিয়োগের প্রক্রিয়া করতে হবে।

উচ্চ প্রাথমিকে নিয়োগ প্রক্রিয়া দ্রুত শেষ করার দাবিতে গত কয়েক মাস ধরেই ভার্চুয়ালি আন্দোলন করছেন আবেদনকারী প্রার্থীরা। আইনি জটিলতায় কার্যত উচ্চ প্রাথমিকে নিয়োগ প্রক্রিয়া এখনও পর্যন্ত থমকে রয়েছে।১৪ হাজারেরও বেশি শূন্য পদে নিয়োগ প্রক্রিয়া কবে হবে সে বিষয়ে এখনও পর্যন্ত নিশ্চিত নয় স্কুল সার্ভিস কমিশন ও স্কুল শিক্ষা দফতর। যদিও কমিশন উচ্চ প্রাথমিকে নিয়োগ প্রক্রিয়ার শুনানি দ্রুত আর্জির আবেদন রেখেছে কলকাতা হাইকোর্টের কাছে। সেই প্রক্রিয়ার মধ্যেই এবার নবম দশম একাদশ দ্বাদশের নিয়োগ প্রক্রিয়াকে ঘিরে নতুন করে আন্দোলন শুরু করতে চলেছেন কয়েক হাজার বিএড পাশ করা প্রার্থীরা।

Somraj Bandopadhyay

Published by:Elina Datta
First published: