করোনা ভাইরাস

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

উচ্চমাধ্যমিকের বাকি ৩ দিনের পরীক্ষা বাতিল, ৩১ শে জুলাইয়ের মধ্যে ফলাফল প্রকাশ, ঘোষণা শিক্ষামন্ত্রীর

উচ্চমাধ্যমিকের বাকি ৩ দিনের পরীক্ষা বাতিল, ৩১ শে জুলাইয়ের মধ্যে ফলাফল প্রকাশ, ঘোষণা শিক্ষামন্ত্রীর

যদিও রাজ্য সরকার শেষ পর্যন্ত সুপ্রিম কোর্টের রায়ের দিকেই তাকিয়ে ছিল। শুক্রবার সুপ্রিম কোর্টের তরফে সিবিএসই, আইসিএসই,বোর্ডের প্রস্তাব মেনে নেওয়ার পরেই রাজ্যের তরফে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা বাতিলের কথা জানিয়ে দেওয়া হয়।

  • Share this:

#কলকাতা: উচ্চমাধ্যমিকের বাকি পরীক্ষাগুলো বাতিল করা হল। শুক্রবার সাংবাদিক সম্মেলন করে এমনই জানালেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তবে বাতিল পরীক্ষা গুলির কিভাবে নম্বর দেওয়া হবে তার রূপরেখা ইতিমধ্যেই চূড়ান্ত হয়ে গেছে। তা খুব শীঘ্রই প্রকাশ করা হবে বলে এদিন জানান শিক্ষামন্ত্রী। মূলত উচ্চমাধ্যমিকের বাকি পরীক্ষাগুলো নিয়ে কি সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে তা নিয়ে বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন করা হয়েছিল। সেই বিশেষজ্ঞ কমিটির রিপোর্ট এবং ছাত্র-ছাত্রীদের স্বাস্থ্যের কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত বলেই জানান শিক্ষা মন্ত্রী। এ প্রসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন " আমরা সব রকম চেষ্টা করেছিলাম পরীক্ষা নেওয়ার। কিন্তু সুপ্রিম কোর্ট যে রায় দিয়েছে তার সঙ্গে সংগতি রেখে এবং বিশেষজ্ঞ কমিটির সুপারিশ সবকিছুর পরেই আমরা এই সিদ্ধান্ত নিলাম। তবে ছাত্রছাত্রীরা পরবর্তী ক্ষেত্রে পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ পাবেন।"

গত ২১ শে মার্চ পর্যন্তই রাজ্য সরকার উচ্চমাধ্যমিকের পরীক্ষা নিতে পেরেছিল। তারপর একদিকে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ অন্যদিকে লকডাউন সবমিলিয়ে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা রাজ্যকে স্থগিত করতে হয়। যদিও চলতি মাসেই রাজ্য উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা নিতে চায় বলে জানিয়েছিলেন খোদ শিক্ষা মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। যার জন্য উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় রাজ্যজুড়ে কিভাবে নেওয়া হবে তার জন্য একাধিক গাইডলাইন রাজ্যের পরীক্ষাকেন্দ্র গুলিকে দিয়ে দেওয়া হয়েছিল। সেই মোতাবেক প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছিল রাজ্যের পরীক্ষা কেন্দ্র গুলো। শুধু তাই নয় তো মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের তরফেও পরীক্ষার বিস্তারিত গাইড লাইন এবং সূচিও প্রকাশ করে দেওয়া হয়। কিন্তু করোনা ভাইরাস সংক্রমণ যে হারে বাড়ছে সে ক্ষেত্রে সিবিএসই, আইসিএসই পরীক্ষা বাতিলের দাবি জানিয়ে অভিভাবকরা আদালতের দ্বারস্থ হয়। তারপরপরই রাজ্য সরকার কেন্দ্রীয় বোর্ড গুলি এবং সুপ্রিম কোর্টের ওপর নজর রাখতে শুরু করে।

যদিও রাজ্য সরকার শেষ পর্যন্ত সুপ্রিম কোর্টের রায়ের দিকেই তাকিয়ে ছিল। শুক্রবার সুপ্রিম কোর্টের তরফে সিবিএসই, আইসিএসই,বোর্ডের প্রস্তাব মেনে নেওয়ার পরেই রাজ্যের তরফে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা বাতিলের কথা জানিয়ে দেওয়া হয়। মূলত উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা বাকি ছিল তা হল এডুকেশন,ফিজিকস, নিউট্রেশন,একাউন্টান্সি,সংস্কৃত, কেমিস্ট্রি,ইকোনমিক্স,জার্নালিজম এন্ড মাস কমিউনিকেশন, পার্শিয়ান, অ্যারাবিক,ফ্রেঞ্চ, জিওগ্রাফি,স্ট্যাটিসটিকস,কস্টিং ট্যাক্সেশনএবং হোম ম্যানেজমেন্ট এন্ড ফ্যামিলি রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট। এবছর মোট ৭ লক্ষেরও বেশি পরীক্ষার্থী উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দিচ্ছে। তবে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় এদিন জানান, " যে পরীক্ষাগুলি ছাত্র-ছাত্রীদের নেওয়া গেল না সেই বিষয়গুলির নম্বর কিভাবে ছাত্র-ছাত্রীদের দেওয়া হবে তা নিয়ে উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ ও বিশেষজ্ঞ কমিটি রূপরেখা ঠিক করছে। খুব শীঘ্রই উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ বিজ্ঞপ্তি আকারে জানিয়ে দেবে।"

 সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by: Elina Datta
First published: July 16, 2020, 9:46 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर