করোনা ভাইরাস

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

"ভর্তিতে প্রবেশিকা পরীক্ষা চাই", আন্দোলনের সঙ্কেত প্রেসিডেন্সির ছাত্র সংসদের

প্রবেশিকা পরীক্ষা বাতিল হলে প্রেসিডেন্সিতে ছাত্র ভর্তিতে মেধার মান নষ্ট হতে পারে আশঙ্কা ক্ষমতাসীন ছাত্র সংসদের। তাই প্রবেশিকা পরীক্ষা প্রয়োজনে আপাতত স্থগিত করে দিতে পারে কর্তৃপক্ষ, এমনটাই দাবি এসএফআইয়ের।

  • Share this:

#কলকাতা: প্রবেশিকা পরীক্ষা নিয়ে আন্দোলনের সঙ্কেত সোমবার একপ্রকার দিয়েই দিল বিশ্ববিদ্যালয় ক্ষমতাসীন ছাত্র সংসদ এসএফআই। সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল গেটের সামনে প্রবেশিকা পরীক্ষা বাতিলের বিরোধিতা করে অবস্থান বিক্ষোভ দেখাল ছাত্র সংসদের ক্ষমতায় থাকা এসএফআইয়ের নেতৃত্ব।

এসএফআইয়ের অভিযোগ, বিশ্ববিদ্যালয় অ্যাডমিশন নেওয়ার তাড়াহুড়োতে প্রবেশিকা পরীক্ষা বাতিল করে দিতে চলেছে। প্রবেশিকা পরীক্ষা বাতিল হলে প্রেসিডেন্সিতে ছাত্র ভর্তিতে মেধার মান নষ্ট হতে পারে আশঙ্কা ক্ষমতাসীন ছাত্র সংসদের। তাই প্রবেশিকা পরীক্ষা প্রয়োজনে আপাতত স্থগিত করে দিতে পারে কর্তৃপক্ষ, এমনটাই দাবি এসএফআইয়ের।

এসএফআইয়ের অন্যতম সদস্য দেবনীল পালের অভিযোগ " যেখানে সর্বভারতীয় মেডিক্যাল প্রবেশিকা পরীক্ষা সহ অন্যান্য প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষা আপাতত স্থগিত করে দেওয়া হচ্ছে, সেখানে প্রেসিডেন্সি প্রবেশিকা কেন আপাতত স্থগিত করা হবে না? সব জায়গায় সমানভাবে অনলাইনে ছাত্র-ছাত্রীদের ক্লাস করার পরিকাঠামো নেই। তাই প্রবেশিকা পরীক্ষা বাতিল করার বিরোধিতার দাবি নিয়ে আগামী দিনের আন্দোলন আরও তীব্রতর হবে।"

ছাত্রভর্তি নিয়ে ইতিমধ্যেই বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে রাজ্যের উচ্চশিক্ষা দফতর।১০ই জুলাই থেকে স্নাতক স্তরের প্রথম বর্ষের ছাত্র ভর্তির প্রক্রিয়া শুরু করতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে এমনই অ্যাডভাইজারি দিয়েছে রাজ্যের উচ্চ শিক্ষা দপ্তর। উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা সহ আইএসসি সিবিএসই এর পরীক্ষার ফল প্রকাশ ইতিমধ্যেই হয়ে গেছে। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্থ কলেজগুলিতে ইতিমধ্যেই আবেদনপত্র তোলার প্রক্রিয়া শুরু করা হয়েছে। বেশ কিছু কলেজ এই প্রক্রিয়াও শুরু করে দিয়েছে। কিন্তু প্রেসিডেন্সিতে ছাত্র ভর্তি কিভাবে হবে তা নিয়ে এখনও পর্যন্ত চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারেনি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর চলতি সপ্তাহেই প্রেসিডেন্সি ছাত্র ভর্তি নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে।

গত কয়েক বছর ধরেই প্রেসিডেন্সির ছাত্রভোটে প্রবেশিকা পরীক্ষা নেয় রাজ্য জয়েন্ট এন্ট্রান্স বোর্ড। সাধারণত এই পরীক্ষা অনেক আগেই করে ফেলে রাজ্য জয়েন্ট বোর্ড। কিন্তু এবছর করোনা ভাইরাস সংক্রমণ এবং তার জেরে চলা লকডাউনের জন্য সেই পরীক্ষা ইতিমধ্যেই স্থগিত করার নির্দেশিকা জারি করেছে রাজ্য জয়েন্ট বোর্ড। কিন্তু পরবর্তী ক্ষেত্রে প্রবেশিকা পরীক্ষা হবে নাকি সে বিষয়ে অবশ্য জয়েন বোর্ডের তরফে নির্দিষ্টভাবে কিছু বলা হয়নি। যদিও প্রেসিডেন্সির তরফে বোর্ডের ওপর এই কিছুটা সিদ্ধান্তের ভার ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। সে ক্ষেত্রে অনলাইনে প্রবেশিকা পরীক্ষা নেওয়া যায় নাকি সে বিষয়েও ভাবনা চিন্তা চলছে বলে রাজ্য জয়েন্ট বোর্ড সূত্রে খবর।

তবে বিশ্ববিদ্যালয়ে এখনও পর্যন্ত কোনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত না হলেও সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের গেটের সামনে প্রবেশিকা পরীক্ষা বাতিলের বিরোধিতা করে অবস্থান বিক্ষোভ দেখাল ছাত্র সংসদের ক্ষমতায় থাকায় এসএফআইয়ের সদস্যরা। তাদের তরফে অভিযোগ আনা হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ প্রবেশিকা পরীক্ষা বাতিল করে দিতে চলেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের একাংশের আশঙ্কা এবার প্রবেশিকা পরীক্ষা নিয়েও কার্যত আন্দোলনের সূত্রপাত হতে চলেছে ক্যাম্পাসে।

 Somraj Bandopadhyay

Published by: Elina Datta
First published: July 27, 2020, 5:50 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर