corona virus btn
corona virus btn
Loading

ভিন রাজ্য থেকে আসা পরিযায়ী শ্রমিকদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা বন্ধ করে দিল গ্রামবাসীরা !

ভিন রাজ্য থেকে আসা পরিযায়ী শ্রমিকদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা বন্ধ করে দিল গ্রামবাসীরা !

পরিযায়ী শ্রমিকরা গ্রামে আসায় গ্রামবাসীদের মধ্যে চরম আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে।

  • Share this:

#রায়গঞ্জ: নিজেদের এলাকার মানুষকে সুস্থ ও সুরক্ষিত রাখতে রায়গঞ্জ মহারাজা ব্লক স্বাস্থ্যকেন্দ্রের ভিন রাজ্যের শ্রমিকদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা গ্রামবাসীরা বন্ধ করে দিল। গ্রামবাসীরা স্বাস্থ্যকেন্দ্রের গেট বন্ধ করে এদিন বিক্ষোভ দেখান। গ্রামবাসীদের আন্দোলনে সামিল হন রামপুর পঞ্চায়েত প্রধান। গ্রামবাসীদের বিক্ষোভে স্বাস্থ্য পরীক্ষা না করেই ফিরে যেতে হয় দিল্লী থেকে  আসা ৪৫ জন পরিযায়ী শ্রমিককে।

ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক জানিয়েছেন, জেলা স্বাস্থ্য আধিকারিকের নির্দেশেই শ্রমিকদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা শুরু হয়েছিল। গ্রামবাসীদের বাধায় সেই কাজ বন্ধ রাখতে হল।বিষয়টি উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছেন। রায়গঞ্জ ব্লক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে পরিযায়ী শ্রমিকদের স্বাস্থ্য পরীক্ষাব্যবস্থা করা হয়েছিল। প্রতিদিন এই স্বাস্থ্যকেন্দ্রে পরিযায়ী শ্রমিকরা স্বাস্থ্য পরীক্ষা করাতে দলে দলে আসছেন। পরিযায়ী শ্রমিকরা গ্রামে আসায় গ্রামবাসীদের মধ্যে চরম আতঙ্কের সৃষ্টি হয়।

স্বাস্থ্যকেন্দ্রে পরিযায়ী শ্রমিকদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা বন্ধের দাবিতে  রবিবার মহারাজা এলাকার গ্রামবাসীরা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে গেটে লাগিয়ে, পোস্টার ঝুলিয়ে বিক্ষোভ দেখান। এদিন উত্তর প্রদেশের গাজিয়াবাদ  থেকে আসা ৪৫ জন শ্রমিক এই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে স্বাস্থ্যপরীক্ষা করাতে এলে তাদেরকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়। গ্রামবাসীদের অভিযোগ, এই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে স্বাস্থ্য পরীক্ষার ব্যবস্থা না থাকা সত্বেও পরিযায়ী শ্রমিকদের এখানে আনা হচ্ছে। পরিযায়ী শ্রমিকরা এখানে এলে গ্রামবাসীদের নিরাপত্তা বিঘ্নিত হবার আশঙ্কা থাকছে।

পরিযায়ী শ্রমিকদের অন্যত্র স্বাস্থ্যপরীক্ষা করার দাবিতে গ্রামবাসীরা এদিন আন্দোলনে নামেন। গ্রামবাসীদের আন্দোলনে সামিল হন রামপুর গ্রামপঞ্চায়েত প্রধান। গ্রামবাসীদের আন্দোলনে এদিন কোনও পরিযায়ী শ্রমিকের এখানে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা সম্ভব হয় নি। ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক জানিয়েছেন, গ্রামবাসীদের আন্দোলনে পরিযায়ী শ্রমিকদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা যায় নি। বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে দিয়েছেন তিনি।রামপুর গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান জানিয়েছেন, পরিযায়ী শ্রমিকরা গ্রামে আসায় গ্রামবাসীরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন। গ্রামবাসীদের দাবিকে সমর্থন জানিয়ে তিনি নিজেও এই আন্দোলনে সামিল হয়েছেন।

উত্তম পাল

Published by: Bangla Editor
First published: May 10, 2020, 6:46 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर