corona virus btn
corona virus btn
Loading

রাজধানীতে চালু মেট্রো পরিষেবা, চ্যালেঞ্জ দৈনিক ৯০ হাজার সংক্রমণ

রাজধানীতে চালু মেট্রো পরিষেবা, চ্যালেঞ্জ দৈনিক ৯০ হাজার সংক্রমণ
কোভিডের দাপটের মধ্যেই রাজধানীতে চালু মেট্রো পরিষেবা।

সোমবার থেকে আপাতত নিয়মিত ৪৯ কিলোমিটার পাড়ি দেবে দিল্লির মেট্রো। মোট ৩৭টি স্টেশনে দাঁড়াবে ট্রেন।

  • Share this:

নয়াদিল্লি: দৈনিক সংক্রমণের হার ৯০ হাজার ছাড়িয়েছে। ব্রাজিলকে ছাড়িয়ে করোনা পরিসংখ্যানে দু'নম্বরে উঠে এসেছে দেশ। সুস্থ হওয়ার পরও কোভিড আক্রান্ত হচ্ছেন কেউ কেউ। এই জটিল পরিস্থিতির মধ্যেই আজ রাজধানী দিল্লিতে শুরু হচ্ছে মেট্রো চলাচল। কন্টেইনমেন্ট জোন বলে চিহ্নিত জায়গাগুলিতে মেট্রো থামবে না। এছাড়া আবাসনমন্ত্রক সূত্রে খবর, কোনও স্টেশনে ড্রাইভার যদি লক্ষ্য করেন সামাজিক দূরত্ববিধি লঙ্ঘিত হচ্ছে, সেই স্টেশন মেট্রো দাঁড়াবে না।

দেশে লকডাউনের শুরু থেকেই বন্ধ মেট্রো পরিষেবা। এই কয়েক মাসে ক্রমেই অবনতি হয়েছে পরিস্থিতির। রবিবার অল ইন্ডিয়া ইন্সটিটিউট অব মেডিক্যাল সায়েন্সেসের ডিরেক্টর চিকিৎসক রণদীপ গুলেরিয়া জানিয়েছেন দেশের করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হয়েছে। একই সঙ্গে তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেন, ২০২১-এও থাকতে পারে করোনার ঢেউ। তিনিই বলেন, বহু মানুষকে এখনও মাস্ক, গ্লাভস ছাড়াই ঘোরাঘুরি করতে দেখা যাচ্ছে এই কারণেই করোনার এই বাড়বাড়ন্ত। এই আবহে মেট্রো চলাচল শুরু করা যে যথেষ্ট চ্যালেঞ্জের ব্যাপার মানছে সব পক্ষই।

সোমবার থেকে আপাতত নিয়মিত ৪৯ কিলোমিটার পাড়ি দেবে দিল্লির মেট্রো। মোট ৩৭টি স্টেশনে দাঁড়াবে ট্রেন। সকালে ৭টা থেকে ১১ টা পর্যন্ত এবং বিকেলে ৪টে থেকে ৮টা পর্যন্ত চলবে মেট্রো।

মেট্রো স্টেশনগুলিতে করোনার সংক্রমণ এড়াতে সামাজিক দূরত্ব মানতেই হবে। দিল্লির পরিবহণমন্ত্রী কৈলাশ গেহলত জানিয়েছেন, বারবার টোকেন ব্যবহারের ফলে সংক্রমণ ছড়ানোর আশঙ্কা থেকে যায়। তাই টোকেন পদ্ধতি পুরোপুরি বন্ধ থাকবে। যাত্রীরা স্মার্ট কার্ড ব্যবহার করবেন। অনলাইনে কার্ড রিচার্জে জোর দেওয়া হবে। মেট্রো স্টেশনে যাত্রীদের নিরাপত্তায় থাকছে একাধিক ব্যবস্থা। স্টেশনে ঢোকার মুখেই থাকছে থার্মাল স্ক্রিনিং। স্টেশনের বিভিন্ন জায়গায় থাকছে স্যানিটাইজার মেশিনও। মাস্ক বা ফেস কভার ছাড়া যাত্রীরা স্টেশনেই ঢুকতে পারবেন না বলে জানা গিয়েছে। প্রত্যেক যাত্রীকে হাতে অন্তত ১৫-২০ মিনিট অতিরিক্ত সময় রাখতে অনুরোধ করা হচ্ছে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে প্রতিটি কামরায় যাত্রী সংখ্যা নিয়ন্ত্রণ করা হবে। যদিও, বাস্তবে ভিড় সামাল দেওয়াই মেট্রো কর্তৃপক্ষের কাছে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ।

Published by: Arka Deb
First published: September 7, 2020, 8:52 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर