Corona 2nd Wave : ফোন চলল দিল্লি-ওয়াশিংটন, ৪৮ ঘণ্টায় ভারতে ঢুকছে ভ্যাকসিনের ওষুধ, কাঁচামাল!

Corona 2nd Wave : ফোন চলল দিল্লি-ওয়াশিংটন, ৪৮ ঘণ্টায় ভারতে ঢুকছে ভ্যাকসিনের ওষুধ, কাঁচামাল!

সাহায্যের আশ্বাস আমেরিকার

কয়েকদিনের টালবাহানার পর ভারতে টিকা তৈরির কাঁচামাল পাঠানোর বিষয়ে রবিবার মত দেয় আমেরিকা।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: আর মাত্র ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই আমেরিকা (United States of America) থেকে ভ্যাকসিন (Covid-19 vaccine) উৎপাদনের কাঁচামাল, অক্সিজেন কনসেনট্রেটর, ভেন্টিলেটর, পিপিই(PPE) কিট এসে পৌঁছাবে ভারতে ৷ রবিবার আমেরিকার জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা (NSA) জ্যাক সুলিভানের সঙ্গে ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভালের টানা ৪৫ মিনিট ধরে ফোনে আলোচনা হয়৷ তারপরেই সরকারিভাবে দিল্লিকে এই আশ্বাস দেয় হোয়াইট হাউস (White House)। ফোনে ডোভাল সুলিভানকে রেমডেসিভির আর সেরাম ইনস্টিটিউটের জন্য কাঁচা মাল দ্রুত ভারতে পাঠানোর উপর জোর দেন। সেইমত কাল বিলম্ব না করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করার কথা নিশ্চিত করেন ডোভালও।

    কয়েকদিনের টালবাহানার পর ভারতে টিকা তৈরির কাঁচামাল পাঠানোর বিষয়ে রবিবার মত দেয় আমেরিকা। মার্কিন প্রশাসনের তরফে জারি করা একটি বিবৃতির মাধ্যমে বলা হয়েছে, সেরাম ইনস্টিটিউটে কোভিশিল্ড টিকা প্রস্তুত করার জন্য যে সমস্ত কাঁচামালের প্রয়োজন, তা পাঠানো হবে দ্রুত। বস্তুত ভারতের করোনা পরিস্থিতিতে আমেরিকার উদাসীন অবস্থান নিয়ে গোটা বিশ্বে তীব্র সমালোচনার পরেই এই সিদ্ধান্ত বদল করে আমেরিকা।

    কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়তেই ধসে পড়েছে দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা। অক্সিজেন, টিকা, ওষুধ-পত্র করোনা সংক্রমণ রোখার জন্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের সংকট দেখা দেওয়ার পরে আমেরিকার কাছে সাহায্য চেয়েছিল ভারত। কিন্তু বাইডেন প্রশাসনের তরফে টিকা তৈরির কাঁচামাল রফতানির উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। তার পরেই দেশের জনসাধারণ ক্ষোভ প্রকাশ করেন বাইডেনের প্রতি। ঠিক দেড় বছর আগের প্রসঙ্গ তোলা হয়। গত এপ্রিলে যখন আমেরিকা হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন চেয়েছিল ভারতের কাছে, তখন ৫ কোটি ট্যাবলেট পাঠানো হয়েছিল সে দেশে। কিন্তু যখন তাদের সময় এল, সাহায্য করবে না বলে জানিয়ে দিল আমেরিকা। এই নিয়ে সমালোচনায় সোচ্চার হন ওদেশে বসবাসকারী ভারতীয়রাও।

    এরপরেই আমেরিকা বিবৃতি জারি করল ভারতকে সাহায্য করবে তারা। জানানো হয়েছে, আমেরিকা ভারতের সঙ্গে পূর্ণ সহযোগিতা করবে এই অতিমারি মোকাবিলা করতে। টিকা তৈরির কাঁচামালের পাশাপাশি পাঠানো হবে কোভিড চিকিৎসা সরঞ্জামও। জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের মুখপাত্র এমিলি হর্ন সে কথা নিশ্চিত করেছেন। ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল এবং আমেরিকার জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জেক সুলিভানের মধ্যে কী কথোপকথন হয়েছে, তা জানিয়েছেন এমিলি। তাঁর কথায়, ‘‘ভারতের কোভিড রোগীদের চিকিৎসার জন্য এবং স্বাস্থ্যকর্মীদের রক্ষা করার জন্য আমেরিকা সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেবে। আগামী আটচল্লিশ ঘণ্টার মধ্যেই তা দেশের মাটিতে পৌঁছবে।’’ পাশাপাশি এদিন সৌদি আরব ও আরব আমিরশাহির সঙ্গে ফোনে বার্তালাপ করে ডোভাল। তাঁদেরকেও করোনা পরিস্থিতিতে সমস্তরকম সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছে আমেরিকা।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published:

    লেটেস্ট খবর