corona virus btn
corona virus btn
Loading

#Coronavirus৷ আরও বিপাকে কনিকা, করোনা ছড়ানোর অভিযোগে দায়ের হলো এফআইআর

#Coronavirus৷ আরও বিপাকে কনিকা, করোনা ছড়ানোর অভিযোগে দায়ের হলো এফআইআর
কনিকার বিরুদ্ধে এফআইআর-এর নির্দেশ৷ PHOTO- FILE

ঘটনাচক্রে এ দিন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে হাজির ছিলেন রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী জয় প্রতাপ সিং৷ অথচ তিনি নিজেও কনিকার সঙ্গে একটি পার্টিতে উপস্থিত ছিলেন৷

  • Share this:

#লখনউ: তথ্য গোপন করে আম জনতাকে বিপদে ফেলার দায়ে বলিউড গায়িকা কনিকা কাপূরের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করল উত্তর প্রদেশ পুলিশ৷ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত বলিউড গায়িকা কনিকা কাপূরের বিরুদ্ধে এ দিন এমনই কড়া পদক্ষেপের নির্দেশ দিয়েছেন উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ৷

লন্ডন থেকে ফিরেই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন কনিকা৷ কিন্তু তিনি যে লন্ডন থেকে ফিরেছেন, সেই তথ্যই প্রশাসনের কাছে গোপন করে গিয়েছিলেন কনিকা৷ উল্টে লখনউতে এসে বেশ কয়েকটি পার্টিতে যান তিনি৷ ফলে গায়িকার থেকে অন্যান্যদের শরীরেও সংক্রমণ ছড়ানোর আশঙ্কা তৈরি হয়েছে৷ শুধু তাই নয়, লখনউতে তাজ হোটেলে থাকাকালীন তাঁর সঙ্গে অনেকে দেখাও করেছিলেন৷ সবমিলিয়ে চূড়ান্ত দায়িত্বজ্ঞানহীনতার পরিচয় দিয়েছেন তিনি৷

এ দিন সন্ধ্যায় নিজের বাসভবনে একটি উচ্চপর্যায়ের বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ৷ সেই বৈঠক থেকেই কনিকার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়েরের নির্দেশ দেন তিনি৷

জানা গিয়েছে, তাজ হোটেলের ৬০২ নম্বর ঘরে ছিলেন তিনি৷ সেই ঘরটি আপাতত দু' দিন বন্ধ করে রেখে জীবাণুমুক্ত করা হচ্ছে৷ হোটেলের সিসিটিভি ফুটেজও খতিয়ে দেখা হচ্ছে৷ যাঁরা যাঁরা কনিকার সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলেন, তাঁদেরকেও চিহ্নিত করার চেষ্টা করা হচ্ছে৷

উত্তর প্রদেশের এক উচ্চপদস্থ পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন, 'উনি লন্ডন থেকে ফেরার সময় করোনা ভাইরাস নিয়ে চালু হওয়া বিধি সম্পর্কে অবহিত ছিলেন৷ তা সত্ত্বেও সেই তথ্য গোপন করেন তিনি৷ বিমানবন্দরেও তিনি নিয়ম মেনে কোনও শারীরিক পরীক্ষা করাননি৷ তার পরে করোনা সংক্রমণের উপসর্গ দেখা দিলেও তিনি পার্টিতে যান এবং বহু মানুষের সঙ্গে মেশেন৷'

ঘটনাচক্রে এ দিন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে হাজির ছিলেন রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী জয় প্রতাপ সিং৷ অথচ তিনি নিজেও কনিকার সঙ্গে একটি পার্টিতে উপস্থিত ছিলেন৷ নিয়ম মতো তাঁরও আইসোলেশনেই থাকার কথা৷ করোনা সংক্রমণের জন্য শুক্রবার বিকেলেই নিজের লালা ও রক্তের নমুনা পাঠিয়েছেন তিনি৷

যাঁদের দেওয়া পার্টিতে কনিকা গিয়েছিলেন এবং সেখানে যাঁরা যাঁরা উপস্থিত ছিলেন, তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ করে গৃহবন্দি থাকার পরামর্শ দিয়েছে স্বাস্থ্য দফতরের কর্তারা৷ সেই তালিকায় উত্তর প্রদেশের লোকায়ুক্ত থেকে শুরু করে বসুন্ধরা রাজে সিন্ধিয়ার মতো তাবড় রাজনীতিবিদরা রয়েছেন৷

 
First published: March 20, 2020, 10:19 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर