corona virus btn
corona virus btn
Loading

UGC নির্দেশিকা মেনে উচ্চশিক্ষায় নিতেই হবে চূড়ান্ত টার্মের পরীক্ষা, বিশ্ববিদ্যালয়গুলিকে অনুমতি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের

UGC নির্দেশিকা মেনে উচ্চশিক্ষায় নিতেই হবে চূড়ান্ত টার্মের পরীক্ষা, বিশ্ববিদ্যালয়গুলিকে অনুমতি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের
Representative Image

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রকের লেখা এই চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে এ রাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয়গুলির পরীক্ষার ভবিষ্যত কী হবে তা নিয়ে আবারও সংশয় তৈরি হল।

  • Share this:

#কলকাতা: উচ্চশিক্ষায় বাধ্যতামূলক ফাইনাল সেমেস্টার ৷ উচ্চশিক্ষায় বার্ষিক পরীক্ষা নেওয়ার অনুমতি দিল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক ৷ কেন্দ্রীয় উচ্চশিক্ষা সচিবকে চিঠি দিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক জানিয়েছে, বার্ষিক পরীক্ষা শেষ করা বাধ্যতামূলক ৷ বিনা পরীক্ষায় পাশ করিয়ে দেওয়া চলবে না।UGC-র নির্দেশিকা মেনেই বার্ষিক পরীক্ষা হবে ৷ সেই সঙ্গে কেন্দ্রের নির্দেশিত করোনা স্বাস্থ্যবিধিও মানতে হবে ৷ পশ্চিমবঙ্গ সহ অনেক রাজ্যই বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা বাতিল করেছে ৷ সেক্ষেত্রে নতুন করে তৈরি হল ধোঁয়াশা ৷

শিক্ষাবর্ষের শেষ সেমিস্টারের পরীক্ষা বাতিল করা যাবে না, সোমবারের অধিবেশনে উচ্চশিক্ষা নিয়ন্ত্রক বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) এমনই সিদ্ধান্ত নেয় ৷ তারপরই বার্ষিক পরীক্ষা নেওয়ার অনুমতি দিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে চিঠি পাঠা নো হয় ৷

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রকের লেখা এই চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে এ রাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয়গুলির পরীক্ষার ভবিষ্যত কী হবে তা নিয়ে আবারও সংশয় তৈরি হল। ইতিমধ্যেই উচ্চশিক্ষা দফতর ফাইনাল সেমেস্টার বা ফাইনাল ইয়ারের পরীক্ষা নিয়ে নির্দেশিকা জারি করেছে। যেখানে আগের বছরগুলোতে সবথেকে বেশি পাওয়া নম্বর যোগ করার পাশাপাশি ইন্টার্নাল অ্যাসেসমেন্টের নম্বর যোগ করার কথা বলা হয়েছে। অর্থাৎ পড়ুয়ারা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে এসে পরীক্ষা দেবেন না। রাজ্যের তরফে অ্যাডভাইজারি আসার পর ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয় কীভাবে পরীক্ষা হবে তার নির্দেশিকা জারি করে দিয়েছে৷ সেক্ষেত্রে এদিনের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের চিঠির পর সবই ফের অনিশ্চিত হয়ে পড়ল৷

তবে ইউজিসির পরীক্ষা সংক্রান্ত বৈঠকে পরীক্ষা নেওয়ার ক্ষেত্রে কিছু পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে । সূত্রের খবর, সেখানে ঠিক হয় বিশ্ববিদ্যালয় ও ইনস্টিটিউশনগুলিকে ৩১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে পরীক্ষা প্রক্রিয়া শেষ করতে হবে। এই সংক্রান্ত শীঘ্রই বিজ্ঞপ্তি জারি করবে ইউজিসি। এদিনের প্রেস বিবৃতি অনুযায়ী অনলাইন বা খাতায কলমে অথবা এই দুই পদ্ধতিতেও ভাগ করে পরীক্ষা নেওয়া হতে পারে ৷যে পড়ুয়ারা কোনও কারণে চূড়ান্ত সেমিস্টারের পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবে না, তাদের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়কে সেপ্টেম্বরের পরে একটি বিশেষ পরীক্ষা আয়োজন করতে হবে।

Somraj Banopadhyay

Published by: Elina Datta
First published: July 6, 2020, 11:18 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर