corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনা আক্রান্ত সন্দেহে দুই ডাক্তারি পড়ুয়া ভর্তি এনআরএস হাসপাতালে !

করোনা আক্রান্ত সন্দেহে দুই ডাক্তারি পড়ুয়া ভর্তি এনআরএস হাসপাতালে !

শিয়ালদহ এবং আহমেদ ডেন্টাল কলেজের দুই ডাক্তারি পড়ুয়া করোনা আক্রান্ত সন্দেহে এন এর এস হাসপাতালের আইসলাশন ওয়ার্ডে ভর্তি হওয়ার পর আতঙ্ক আরও দানা বেঁধেছে।

  • Share this:

#কলকাতা: বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাস আতঙ্ক আরও বেড়ে চলেছে। দিন দিন আক্রান্ত,মৃতের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। মোট আক্রান্তের সংখ্যা ইতিমধ্যেই ২ লক্ষ ছাড়িয়ে গিয়েছে। এ দেশেও করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। পশ্চিমবঙ্গে আক্রান্ত একজন হলেও আতঙ্ক সর্বত্রই। বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত সন্দেহে ১৭ জন ভর্তি আছে। এরই মাঝে শিয়ালদহ এবং আহমেদ ডেন্টাল কলেজের দুই ডাক্তারি পড়ুয়া করোনা আক্রান্ত সন্দেহে এন এর এস হাসপাতালের আইসলাশন ওয়ার্ডে ভর্তি হওয়ার পর আতঙ্ক আরও দানা বেঁধেছে। রাজ্যে এই প্রথম ডাক্তারি পড়ুয়া ভর্তি হল করোনা সন্দেহে।

শিয়ালদহ আর আহমেদ ডেন্টাল কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ৭ ছাত্রী, পানিহাটি গুরু নানক ডেন্টাল কলেজের ৫ ছাত্রী এবং হলদিয়া ডেন্টাল কলেজের ৫ ছাত্রী গত ৮ মার্চ কেরালার কোচিতে দন্ত চিকিৎসা বিষয়ক এক সম্মেলনে যোগ দিতে যান। গত ১২ মার্চ তারা এ রাজ্যে ফেরেন। এরপরই শিয়ালদহ আর আহমেদ ডেন্টাল কলেজের এক ছাত্রী তাদের যে হোস্টেলে থাকে,সেখানে তারই এক রুমমেট বা সহছাত্রী দিন পাঁচেক বাদে ১৭ মার্চ থেকে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ে। ১০৪ ডিগ্রি জ্বর, তারসঙ্গে পাল্লা দিয়ে কাশি,শ্বাসকষ্ট। ডেন্টাল কলেজ কর্তৃপক্ষ বুধবার গভীর রাতে অবস্থা বেগতিক দেখে দুই ছাত্রীকে নিয়ে পাশের এন এর এস হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে যায়।সেখানকার চিকিৎসকরা দুই ছাত্রীর শারীরিক অবস্থা দেখে কোনো ঝুঁকি না নিয়ে আইসলাসন ওয়ার্ডে ভর্তি করেন ওই দুই ছাত্রীকে। দু’জনেরই লালারস বা স্বাব পরীক্ষার জন্য এস এস কে এম হাসপাতালে পাঠায়।

অন্যদিকে দুই ডেন্টাল ছাত্রীকে করোনা সন্দেহে ভর্তি করার পরই শিয়ালদহ আর আহমেদ ডেন্টাল কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের বাকি ৬ ছাত্রী, পানিহাটি গুরু নানক ডেন্টাল কলেজের ৫ ছাত্রী এবং হলদিয়া ডেন্টাল কলেজের ৫ ছাত্রীকে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের নির্দেশে হোম কোয়ারান্টাইন বা বাড়িতেই আলাদা থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তবে এই ঘটনার জন্য এই তিন ডেন্টাল কলেজের বাকি ছাত্র ছাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।তিন জাইগাতেই হোস্টেল খালি করে পড়ুয়ারা নিজের নিজের বাড়ি চলে যায়। যদিও আর আহমেদ ডেন্টাল কলেজ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে,আতঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই। সতর্কতামূলক সব ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। গোটা লেডিজ হোস্টেল স্যানিটাইজার দিয়ে পরিষ্কার করা হয়েছে।

Abhijit Chanda

First published: March 19, 2020, 7:11 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर