corona virus btn
corona virus btn
Loading

বর্ধমানে করোনা হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ২৩ জন

বর্ধমানে করোনা হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ২৩ জন

বর্ধমান শহর লাগোয়া গাঙপুরে দু’নম্বর জাতীয় সড়কের পাশে বেসরকারি ক্যামরি হাসপাতালকে করোনা হাসপাতাল করা হয়েছে।

  • Share this:

#বর্ধমান: বর্ধমানের করোনা হাসপাতালের ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিটে রয়েছেন ৬ জন রোগী। শ্বাসকষ্ট দেখা দেওয়ায় অক্সিজেন সাপোর্টে রয়েছেন আরও ১২ জন। গত চব্বিশ ঘণ্টায় আরও দুই রোগীর মৃত্যু হয়েছে এই হাসপাতালে। নতুন করে একজনকে ভেন্টিলেশনে পাঠানো হয়েছে। এই হাসপাতলে করোনার উপসর্গ নিয়ে এখন ২৩ জন রোগী ভর্তি রয়েছেন। নতুন করে ভর্তি হয়েছেন আরও পাঁচ জন।তাদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য তা কলকাতায় পাঠানো হচ্ছে। আট জনকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

বর্ধমান শহর লাগোয়া গাঙপুরে দু’নম্বর জাতীয় সড়কের পাশে বেসরকারি ক্যামরি হাসপাতালকে করোনা হাসপাতাল করা হয়েছে। সেখানেই নতুন করে দুই রোগীর মৃত্যু হওয়ায় জেলা জুড়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। তাদের মৃত্যুর কারণ খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে জেলা স্বাস্থ্য দফতর। এখন পর্যন্ত এই হাসপাতালে যাঁদের মৃত্যু হয়েছিল তাদের কারও নমুনা পরীক্ষায় করোনার সংক্রমণ মেলেনি বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য দফতর ও জেলা প্রশাসন। শনিবার পূর্ব বর্ধমান জেলার ফ্লু ওপিডিতে হাজির হয়েছিলেন ১৯২ জন। তাদের মধ্যে ৬ জনকে অন্যত্র রেফার করা হয়েছে।

অন্যদিকে পূর্ব বর্ধমান জেলার খন্ডঘোষের বাদুলিয়ার করোনা আক্রান্ত ব্যক্তিকে পুরোপুরি সুস্থ ঘোষণা করেছে স্বাস্থ্য দফতর। তিনিই পূর্ব বর্ধমান জেলার প্রথম করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি। তাঁকে দুর্গাপুরের লেভেল থ্রি করোনা হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। ওই ব্যক্তির সংস্পর্শে এসে করোনা আক্রান্ত হয়েছিল তাঁর ৯ বছরের ভাইঝিও। তাকেও একই সঙ্গে ছুটি দিয়েছে দুর্গাপুরের হাসপাতাল। জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, এলাকা স্যানিটাইজ করার পর দু’জনকেই বাড়ি ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাদের সংস্পর্শে আসা চুয়াত্তর জনকে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠানো হয়েছিল। তাদের কারও নমুনায় করোনার সংক্রমণ মেলেনি। তাদের সকলকেই কোয়ারান্টিন সেন্টার থেকে বাড়ি পাঠানো হয়েছে।

পূর্ব বর্ধমানের জেলা শাসক বিজয় ভারতী বলেন, জেলায় করোনা আক্রান্ত দু’জনই সুস্থ। তাদের সংস্পর্শে আসা সকলেরই রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। তাই তাদেরও বাড়ি পাঠানো হয়েছে। তবে এলাকা পুরোপুরি লক ডাউন রয়েছে। সেখানে পুলিশের টহল চলছে।

শরদিন্দু ঘোষ

First published: May 3, 2020, 1:49 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर