Home /News /coronavirus-latest-news /

করোনা মোকাবিলায় বিশেষ টাস্ক ফোর্স গড়ল পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন

করোনা মোকাবিলায় বিশেষ টাস্ক ফোর্স গড়ল পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন

বাইরের রাজ্য থেকে আসা বাসিন্দাদের জন্য কী কী প্রয়োজন সে সব খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে টাস্ক ফোর্স

  • Share this:

#পূর্ব বর্ধমান: এবার করোনা মোকাবিলায় বিশেষ টাস্কফোর্স গঠন করল পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন। এলাকায় এলাকায় পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে যাতে কোনো সমস্যা না হয় তা দেখবে এই টাস্ক ফোর্স। পূর্ব বর্ধমানের জেলাশাসক বিজয় ভারতী জানান, প্রতিটি ব্লকে জনপ্রতিনিধি, পুলিশ ও প্রশাসনের আধিকারিকদের নিয়ে এই টাস্কফোর্স  গঠন করা হয়েছে।

জেলা পর্যায়ে প্রশাসনিক আধিকারিক,জেলা পরিষদের সভাধিপতি, সহসভাধিপতি সংশ্লিষ্ট কর্মাধ্যক্ষ ও পুলিশের আধিকারিকদের নিয়ে বিশেষ জেলা টাস্ক ফোর্স গঠন করা হয়েছে বৃহস্পতিবার  বিকালে জেলাশাসকের অফিসে টাস্ক ফোর্সের বিশেষ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সেই বৈঠকে সাম্প্রতিক পরিস্থিতি মোকাবিলায় কি কি কাজ হবে তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়। জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, বাইরে থেকে আসা শ্রমিকদের সংখ্যা যতই বাড়ছে ততই জেলায় লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা।

তার ফলে জেলায় উদ্বেগ বাড়ছে। আগামী দিনে প্রায় কুড়ি হাজার বাসিন্দা দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এই জেলায় আসবেন বলে মনে করা হচ্ছে। তাদের মধ্যে ব্যাপকভাবে সংক্রমিত পাঁচ রাজ্য দিল্লি মহারাষ্ট্র  মধ্যপ্রদেশ গুজরাট তামিলনাড়ু থেকে বেশ কয়েক হাজার বাসিন্দা আসবেন বলে রেল সূত্রে খবর মিলেছে। তাদের যাতে প্রত্যেককেই কোয়ারান্টিন সেন্টারে রাখা নিশ্চিত করা যায়, তাদের যাতে নমুনা পরীক্ষার আওতায় আনা যায় এবং তাদের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে রাখা নিয়ে যাতে স্থানীয় স্তরে কোনরকম অশান্তি না হয় তা নিশ্চিত করা টাস্কফোর্সের অন্যতম প্রধান কাজ হবে বলে জানা গিয়েছে।

সেই সঙ্গে হোমকোয়ারান্টিন নিশ্চিত করার  বিষয়টিতেও নজরদারি চালাবে টাস্কফোর্সের সদস্যরা। জেলাশাসক বিজয় ভারতী জানান, ইতিমধ্যেই রাজ্যের নির্দেশে ব্লক স্তরে টাস্কফোর্স গঠন করা হয়েছে। প্রতিটি ব্লকেই কোয়ারেন্টাইন সেন্টার রয়েছে। এছাড়াও কোনও গ্রামের স্কুলে কোয়ারান্টিন সেন্টার খুলতে হবে কিনা, সেখানে বাইরের রাজ্য থেকে আসা বাসিন্দাদের জন্য কী কী প্রয়োজন সে সব খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে টাস্ক ফোর্স।

Saradindu Ghosh

Published by:Arjun Neogi
First published:

Tags: Coronavirus, COVID-19, East Burdwan

পরবর্তী খবর