• Home
  • »
  • News
  • »
  • coronavirus-latest-news
  • »
  • মালদহে করোনা আক্রান্ত তৃণমূল বিধায়ক, জেলায় বেড়েই চলেছে সংক্রমণ

মালদহে করোনা আক্রান্ত তৃণমূল বিধায়ক, জেলায় বেড়েই চলেছে সংক্রমণ

টেস্ট রিপোর্টে দেখা যায়, পাঁচজন কর্মীর মধ্যে একজন করে অর্থাৎ ১০৪ কর্মীর মধ্যে ২১জন করোনায় আক্রান্ত। এও দেখা যায় আক্রান্ত ৪ জনের মধ্যে ৩ জনই উপসর্গহীন।

টেস্ট রিপোর্টে দেখা যায়, পাঁচজন কর্মীর মধ্যে একজন করে অর্থাৎ ১০৪ কর্মীর মধ্যে ২১জন করোনায় আক্রান্ত। এও দেখা যায় আক্রান্ত ৪ জনের মধ্যে ৩ জনই উপসর্গহীন।

এর আগে মালদহের বৈষ্ণবনগরের বিজেপি বিধায়ক স্বাধীন সরকারও করোনা আক্রান্ত হন।

  • Share this:

#মালদহ: করোনা আক্রান্ত আরও এক তৃণমূল বিধায়ক। মালদহের গাজোলের তৃণমূল বিধায়ক দিপালী বিশ্বাসের করোনা পরীক্ষার ফল পজিটিভ এল। তাঁর স্বামী তৃণমূল নেতা রঞ্জিত বিশ্বাসও  করোনায় আক্রান্ত। মালদহে গত ৪৮ ঘণ্টায় রেকর্ড করোনা সংক্রমণ। ৪৮ ঘণ্টায় করোনা  আক্রান্ত ১৮৩।

মালদহ জেলায় ইতিমধ্যেই আক্রান্তের সংখ্যা আড়াই হাজার ছাড়িয়েছে।   উত্তরবঙ্গের মধ্যে সবচেয়ে বেশি করোনা  সংক্রমণ মালদহে। বিধায়ক দিপালী বিশ্বাস নিজেই জানিয়েছেন, গত কয়েকদিন ধরে সর্দি -কাশি জনিত কিছু সমস্যা  তৈরি হয়েছিল। এরপর তিনি লালারসের নমুনা পরীক্ষা করান। সেই রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে। তবে তাঁর স্বামী রঞ্জিতবাবু উপসর্গবিহীন। তবে তাঁরা দু' জনেই  চিকিৎসকদের পরামর্শ নিয়ে চলছেন।

এর আগে মালদহের বৈষ্ণবনগরের বিজেপি বিধায়ক স্বাধীন সরকারও করোনা আক্রান্ত হন। দিপালীদেবী জেলার দ্বিতীয় বিধায়ক যিনি করোনায় আক্রান্ত হলেন। এর আগে মালদহের দুই শতাধিক পুলিশকর্মী ও আধিকারিক, জেলা প্রশাসনের একাধিক আধিকারিক, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের পদস্থ বেশ কয়েকজনের নেতৃত্ব, মালদহ রেল ডিভিশনের একাধিক কর্মী ও আধিকারিক ছাড়াও বিভিন্ন স্তরের মানুষ করোনা আক্রান্ত হন। এ পর্যন্ত জেলার কালিয়াচক, রতুয়া, হরিশ্চন্দ্রপুর, ইংরেজবাজার, চাঁচল প্রভৃতি ব্লকে বেশি মাত্রায় করোনা আক্রান্ত ধরা পড়ে। মালদহ শহরে ইতিমধ্যেই উপসর্গহীন রোগীদের চিহ্নিত করতে বিভিন্ন ওয়ার্ডে র‍্যাপিড টেস্ট শুরু হয়েছে। এই পদ্ধতিতেও বেশ কয়েকজন নতুন করোনা রোগীর হদিশ মিলেছে।

এখনও পর্যন্ত জেলায় করোনা সংক্রমনের গ্রাফ নামার লক্ষণ নেই। কোনও একদিন আক্রান্তের সংখ্যা কম হলেই পরদিনই বিপুলসংখ্যক করোনা রোগীর খোঁজ মিলছে।

Sebak Deb Sharma

Published by:Debamoy Ghosh
First published: