• Home
  • »
  • News
  • »
  • coronavirus-latest-news
  • »
  • বয়স ৯৮ বছর!‌ দরিদ্র মানুষের জন্য মাস্ক বানিয়ে দিচ্ছেন পঞ্জাবের করোনা হিরো বৃদ্ধা

বয়স ৯৮ বছর!‌ দরিদ্র মানুষের জন্য মাস্ক বানিয়ে দিচ্ছেন পঞ্জাবের করোনা হিরো বৃদ্ধা

স্বাস্থ্যমন্ত্রকের ওয়েবসাইটে ঘরে তৈরি মুখ ঢাকার যে প্রটেকটিভ কভারের গাইডলাইন দেওয়া আছে, তা মেনে চলার জন্যও অনুরোধ করেছেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের ওই শীর্ষ আধিকারিক৷

স্বাস্থ্যমন্ত্রকের ওয়েবসাইটে ঘরে তৈরি মুখ ঢাকার যে প্রটেকটিভ কভারের গাইডলাইন দেওয়া আছে, তা মেনে চলার জন্যও অনুরোধ করেছেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের ওই শীর্ষ আধিকারিক৷

৯৮ বছরের গুরদেব কৌর এখন করোনা যোদ্ধাদের উদাহরণ

  • Share this:

    #‌নয়া দিল্লি:‌ পঞ্জাবের মোগা। একশো ছুঁই ছুঁই এক বৃদ্ধা বসে সেলাই করে চলেছেন। কারণ, দরিদ্র মানুষের হাতে পৌঁছে দিতে হবে মাস্ক। করোনা মোকাবিলায় দেশের গরীব মানুষের হাতে এই সামান্য লড়াইয়ের সম্বল তুলে দিচ্ছেন তিনি। ৯৮ বছরের গুরদেব কৌর এখন করোনা যোদ্ধাদের উদাহরণ।

    সকালে প্রার্থনা সেরেই তিনি রোজ বসে পড়ছেন মেশিনে। তারপর ঘণ্টার ঘণ্টা বুনে চলেছেন মাস্ক। কারণ, মাস্ক এখন অত্যাবশ্যকীয় পণ্য। দেশে করোনা সংক্রমণ রুখতে মাস্কের প্রয়োজন অত্যন্ত।

    রাজ্যে ২৪৫ জন করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর পঞ্জাবের সরকার মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করে দিয়েছে। কিন্তু তারপরেও এত মাস্ক পাওয়া যাবে কোত্থেকে?‌ তাই বৃদ্ধার এই উদ্যোগ সাধুবাদ কুড়িয়ে নিয়েছে স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিংয়ের। অমরিন্দর সিং নিজের ট্যুইটারে ওই বৃদ্ধার একটি ভিডিও শেয়ার করে লিখেছেন, ‘‌দেখুন সবচেয়ে শক্তিশালী করোনা যোদ্ধাকে। উনি রোজ নিজের পরিবারকে নিয়ে সাধারণ মানু্ষের জন্য মাস্ক তৈরি করে চলেছেন। পঞ্জাবিদের আদর্শ উদাহরণ উনি যে কোনও প্রতিকূল পরিস্থিতি এলেও পঞ্জাবিরা হার মানেন না।

    স্থানীয় একাধিক সংবাদপত্র ও টেলিভিশনেও দেখা গিয়েছে এই বৃদ্ধাকে। তিনি রোজ সকাল আটটা থেকে বিকেল চারটে পর্যন্ত বসে মাস্ক তৈরি করে চলেছেন।

    Published by:Uddalak Bhattacharya
    First published: