corona virus btn
corona virus btn
Loading

প্রতিদিন ৩০ হাজার পেটের দায়িত্ব, দান নয় ঈশ্বরের প্রসাদ বলছেন ওঁরা

প্রতিদিন ৩০ হাজার পেটের দায়িত্ব, দান নয় ঈশ্বরের প্রসাদ বলছেন ওঁরা
৩০ হাজার পেটের দায়িত্ব নিয়েছেন ওঁরা।

এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন পুরুলিয়া বাঁকুড়া জেলার প্রান্তিক মানুষরা।

  • Share this:

লকডাউনের দিনগুলোয় দরিদ্র ক্ষুধার্থ মানুষদের পাশে দাঁড়িয়েছেন বহু সংস্থাই। প্রতিদিন কয়েক হাজার মানুষের মুখে খাবার তুলে দিচ্ছেন তাঁরা। সামনে এল 'আব্দুত দেবিদাস মানবসেবা দল' নামে একটি ছোট দলের খবর। এই স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা এখনও পর্যন্ত বিভিন্ন জেলাতে ৩০ হাজারের বেশি মানুষের মুখে তুলে দিয়েছে।

জানা যাচ্ছে, এই সংস্থা মূলত একেবারে প্রান্তিক শ্রেণির পাশে থাকার সংকল্প নিয়ে কাজ করছে। অনগ্রসর শ্রেণিভুক্ত পরিবারগুলির হাতে চাল ডাল তেল সমস্ত কিছু নিয়ে, কমপক্ষে সাত থেকে দশ দিনের খাবার তুলে দিচ্ছে সংস্থার সদস্যরা।

পুরুলিয়া,  বাঁকুড়া এই জেলাগুলোতে রুক্ষ মাটিতে বাস করা মানুষগুলোর সাধারণ সচল দিনে প্রতিদিন ঠিকমতো খাবার জোটে না। তার উপর এখন লকডাউন। সেই কারণেই অপুষ্টিতে ভোগা মানুষগুলোর পাশে গিয়ে দাঁড়িয়েছেন ওঁরা  দেবী দাস নামক এক সাধুর নামকরণ হয়েছে এই দলের।

সংস্থার সভাপতি শ্রীমতী কীর্তি মীনা তাঁদের উদ্যোগকে  দান বলতে নারাজ। তাঁর কথায় ''বাবা আব্দুত দেবিদাস একজন সন্ত ছিলেন।তার আশীর্বাদে সবাই ধন্য।তাঁর নাম অনুসারে এই সংস্থা চলে।যা দেওয়া হচ্ছে, সবই বাবার প্রসাদ। দান বলে মানুষকে ছোট করতে চান না উনি।  বাবাকে অনেকেই চেনেন না।যাঁরাই তাঁর চরণ স্পর্শ করেছেন,তাঁরাই ধন্য হয়েছে।"

এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন পুরুলিয়া বাঁকুড়া  জেলার প্রান্তিক মানুষরা।

First published: April 27, 2020, 12:50 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर