করোনা ভাইরাস

corona virus btn
corona virus btn
Loading

ভ্য়াকসিন আসা মানেই চিরতরে করোনামুক্তি? আশায় জল ঢালছে হু

ভ্য়াকসিন আসা মানেই চিরতরে করোনামুক্তি? আশায় জল ঢালছে হু
করোনা ভ্যাকসিনেই সমস্যা মিটবে?

এদিন ভারতের প্রশংসাও শোনা য়ায় হু সচিবের মুখে। তিনি বলেন, ভারত করোনা প্রতিরোধের ওষুধ এবং ভ্য়াকসিন উৎপাদনের প্রশ্নে ভালো ভূমিকা পালন করছে।

  • Share this:

চিনের গ্রাউন্ডওয়ার্ক শেষ। ইউহানের কোনও ল্যাবই কি এনেছিল ভাইরাস, উত্তরে হু জাানাল,ইউহানে ‌সংক্রমণ বিষয়ক গবেষণা চালিয়ে নিয়ে যাবে হু, যাতে সংক্রমণের শুরুয়াত সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা তৈরি হয়। একই সঙ্গে ফের একবার অশনিসঙ্কেত হু শীর্ষকর্তার মুখে। মঙ্গলবার এক ভার্চুয়াল সাংবাদিক সম্মেলনে টেড্রস আধানম ঘেব্রেসুস বললেন, হয়তো কখনও করোনা যুদ্ধজয়ের 'রূপোলি বুলেট' পাওয়া যাবে না। অর্থাৎ কখনওই একটি ভ্যাকসিন শটে করোনা দূরীকরণ সম্ভব হবে না পুরোপুরি। পথ একটাই, প্রাথমিক পদক্ষেপগুলিকে মেনে করোনাকে চাপা দেওয়া। প্রাথমিক পদক্ষেপ অর্থাৎ মাস্ক পরা, সামাজিক দূরত্ববিধি মেনে চলা, নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা বাড়ানো।

টেড্রস এদিন বলেন, আমরা আশা রাখছি ভ্যাকসিন এসে বহু মানুষকে সংক্রমণ থেকে রক্ষা করবে। কিন্তু তার মানেই করোনা মুক্তি নয়। করোনা মুক্তির কোনও সিলভার বুলেট নেই, হয়তো কোনও দিন পাওয়া যাবে না।

তাই গণস্বাস্থ্যেই জোর দিচ্ছেন সচিব। তাঁর কথায়, শুধুমাত্র মাস্ক পরে থাকাই আপনার চারপাশকে একটি শক্তিশালী বার্তা দেবে। বুঝিয়ে দেবে আমরা সকলে হাতে হাত ধরে আছি।

বিশ্বজুড়ে করোনার দাপট বেড়েই চলেছে, কিন্তু তবু আশা ছাড়ছেন না হু সচিব। তিনি উদাহরণ হিসেবে তুলে আনছেন দক্ষিণ কোরিয়ার কথা। তাঁর কথায়, পরিস্থিতি যতই খারাপ হোক না কেন, ঐক্যবদ্ধ হয়ে খেলার অভিমুখ ঘুরিয়ে দেওয়া সম্ভব। তিনি দায়িত্ব নিতে বলছেন নেতাদের। তাঁর কথায় " যখন নেতারা বেরিয়ে আসেন, জনতার ভালর জন্য গভীর ভাবে কাজ করেন তখনই নিয়ন্ত্রণে থাকে করোনা।

এদিন ভারতের প্রশংসাও শোনা য়ায় হু সচিবের মুখে। তিনি বলেন, ভারত করোনা প্রতিরোধের ওষুধ এবং ভ্য়াকসিন উৎপাদনের প্রশ্নে ভালো ভূমিকা পালন করছে। একই সঙ্গে, জনসংখ্য়ার প্রবল চাপের মধ্যে করোনা নিয়ন্ত্রণেরও চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

Published by: Arka Deb
First published: August 4, 2020, 8:30 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर