Covid-19 Vaccine: ২৮ দিনের বদলে ৬-৮ সপ্তাহ পর নিতে হবে করোনাটিকার দ্বিতীয় ডোজ: কেন্দ্র

Covid-19 Vaccine: ২৮ দিনের বদলে ৬-৮ সপ্তাহ পর নিতে হবে করোনাটিকার দ্বিতীয় ডোজ: কেন্দ্র

করোনার দ্বিতীয় ডোজের সময়সীমা বদল।

করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে টিকাকরণের কাজ জোরকদমে চলছে ভারতে। কোভিশিল্ড ও কোভ্যাক্সিন দুই টিকাই দেওয়া হচ্ছে নাগরিকদের। কোভিশিল্ড নেওয়ার ক্ষেত্রে পদ্ধতিতে কিছু বদল আনল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে টিকাকরণের কাজ জোরকদমে চলছে ভারতে। কোভিশিল্ড ও কোভ্যাক্সিন দুই টিকাই দেওয়া হচ্ছে নাগরিকদের। কোভিশিল্ড নেওয়ার ক্ষেত্রে পদ্ধতিতে কিছু বদল আনল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। কোভিশিল্ডের দ্বিতীয় ডোজ এবার থেকে প্রথম ডোজের ২৮ দিন পরে নয়, নিতে হবে কমপক্ষে ৬ থেকে ৮ সপ্তাহ পর। এবং এর ফলে সেটি শরীরে অনেক বেশি কার্যকর হবে বলেই জানাল কেন্দ্র। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে সোমবার দেশের সমস্ত রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলে এই নির্দেশ পাঠানো হয়েছে।

    দেশজুড়ে দ্বিতীয় দফার টিকাকরণ শুরু হওয়ার মাঝখানেই এই নির্দেশ জারি করা হয়েছে। মার্চ থেকে ভ্যাকসিন দেওয়া হচ্ছে ৬০ বছরের উপরে এবং ৪৫ বছরের যাঁদের কোমর্বিডি রয়েছে তাঁদের। নির্দেশে জানানো হয়েছে, ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউটের তৈরি কোভিশিল্ডের ক্ষেত্রেই দ্বিতীয় ডোজের সময়সীমা বাড়ানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ভারত বায়োটেকের কোভ্যাক্সিনের ক্ষেত্রে এই নির্দেশ কার্যকরী নয়।

    নির্দেশে বলা হয়েছে, 'ন্যাশনাল টেকনিকাল অ্যাচভাইজরি গ্রুপ অফ ইমিউনিজশন (NTAGI)-এর তরফে জানানো হয়েছে কোভিজ ১৯-এর টিকা কোভিশিল্ডের ক্ষেত্রে দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে।' রাজ্যগুলিকে পাঠানো চিঠিতে জানানো হয়েছে, কোভিশিল্ডের প্রথম ডোজ নেওয়ার পর দ্বিতীয় ডোজ নিতে হবে অন্তত ৬ থেকে ৮ সপ্তাহ পর।

    গত ১৬ জানুয়ারি থেকে ভারতে শুরু হয়েছে করোনার বিরুদ্ধে টিকাকরণের কাজ। প্রথম সারির করোনা যোদ্ধাদের প্রথমে দেওয়া হয়েছে ভ্যাকসিন। এর আগে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে দুটি ডোজের মাঝে ২৮ দিনের সময় রাখতে নির্দেশ দিয়েছিল। এখন সেই সময়সীমা বাড়ানোর নির্দেশ জারি করা হয়েছে। প্রথম ধাপেই প্রায় সাড়ে ৪ কোটি মানুষকে করোনার টিকা দেওয়া হয়েছে। তবে এই মুহূর্তে ফের দেশে মাথাচারা দিয়েছে করোনাভাইরাস। সোমবার দেশে একদিনে আক্রান্তের সংখ্যা ৪৬ হাজার ৯৫১ জন।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published: