corona virus btn
corona virus btn
Loading

ফায়ার ফাইটারের আগুন নেভানো হাতে করোনা বধের প্রতিজ্ঞা ! 

ফায়ার ফাইটারের আগুন নেভানো হাতে করোনা বধের প্রতিজ্ঞা ! 

শুক্রবার থেকে শহর স্যানিটাইজ করতে নামলো রাজ্যের দমকল বিভাগ। দমকলের একটি ইউনিট দুটি দলে ভাগ হয়ে কাজ করে চলেছে সমানে।

  • Share this:

#কলকাতা:  করোনা যুদ্ধে রাজ্যের প্রস্তুতির ছবি দেখে আগেই নিজের মুগ্ধতা প্রকাশ করেছেন বিগ বি। শহর ও লোকালয়কে জীবাণু ও ভাইরাস মুক্ত করতে আরও এক কদম এগোলো রাজ্য। শুক্রবার থেকে শহর স্যানিটাইজ করতে নামলো রাজ্যের দমকল বিভাগ। দমকলের একটি ইউনিট দুটি দলে ভাগ হয়ে কাজ করে চলেছে সমানে।  উদ্দেশ্য একটাই শহরকে জীবাণু এবং ভাইরাস মুক্ত করা।

ইউনিটের একটি দল সরকারি অফিস গুলোর মেঝে, চত্বর এবং সংশ্লিষ্ট রাস্তা স্যানিটাইজ করছে।  ইউনিটের অপর দলটি সরকারি অফিসের ভিতরে গিয়ে সিঁড়ি এবং অন্যান্য জায়গা পরিষ্কার করছে। শুক্রবার বিকেল পাঁচটা নাগাদ দমকল বিভাগের গাড়ি ছুটলো প্রথমে আলিপুর ট্রেজারি বিল্ডিং-এ এবং তারপরে কিড স্ট্রিটে বিধায়কদের আবাসনে। আগুনের সঙ্গে অসম যুদ্ধের সেনানীরা শহরে করোনা যুদ্ধে অবতীর্ণ। কলকাতা, বিধান নগর, দমদম মূলত যে জায়গাগুলো থেকে রাজ্যে করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলেছে সেই সমস্ত জায়গাকে দমকলের স্যানিটাইজার প্রক্রিয়ায় অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে। এর অঙ্গ হিসেবে সরকারি হাসপাতাল,  স্বাস্থ্য কেন্দ্র,  সরকারি অফিস কাছারি সব জায়গায় পৌঁছে যাচ্ছে দমকলের ফায়ার ফাইটাররা।

রাজ্যের দমকল মন্ত্রী সুজিত বসু'র কথায়, " করোনা কোনও ভাবেই যাতে আর হুল ফোটাতে না পারে সেই কারণেই নিরলস প্রয়াস রাজ্যের। শহর, লোকালয় প্রতিদিন দমকল বিভাগ সাফসুতরো অভিযানে নামবে। " করোনা যুদ্ধে জয় ছাড়া আর অন্য কোন কিছুই ভাবছে না রাজ্য। গোষ্ঠী- সংক্রমণ আটকাতে রাজ্য সর্বশক্তি দিয়ে ঝাঁপিয়েছে। শুক্রবার সন্ধে পর্যন্ত রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা সেভাবে  বাড়েনি। লক ডাউন রাজ্যে এভাবে রোজ লোকালয় স্যানিটাইজ করা গেলে করোনা যুদ্ধে ফল আরও ভালো হওয়ার আশা দেখছেন বিশেষজ্ঞরা। দমকল আধিকারিক পার্বতী ভট্টাচার্য জানান, হাইপো ক্লোরিন ফোম আকারে স্প্রে করা হলে জীবাণু ও ভাইরাস দূর করা সম্ভব। ফায়ার ফাইটার দের কাজ এখন তাই করোনা আগুন নেভানো।

ARNAB HAZRA

First published: March 27, 2020, 11:33 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर