Home /News /coronavirus-latest-news /
অশান্ত অঞ্চলগুলিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রেশন পরিষেবা

অশান্ত অঞ্চলগুলিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রেশন পরিষেবা

অশান্ত অঞ্চলগুলির বাসিন্দাদের রেশন পাওয়া নিয়ে ধোঁয়াশা।

অশান্ত অঞ্চলগুলির বাসিন্দাদের রেশন পাওয়া নিয়ে ধোঁয়াশা।

গোটা অব্যবস্থার জন্য কেন্দ্রের দিকেই আঙুল তুলছে রাজ্য প্রশাসন।

  • Last Updated :
  • Share this:

#কলকাতা: নানা অঞ্চল থেকে অভিযোগ আসছে, যতটা রেশন প্রাপ্য তা মিলছে না। পরিমাণেও কম দেওয়া হচ্ছে। খাদ্যশস্যের গুণগত মান নিকৃষ্ট। এবার  সেইসব অভিযোগে খতিয়ে দেখেই কড়া সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য প্রশাসন। নবান্ন সূত্রে খবর,যেসব জায়গায় রেশন দেওয়া নিয়ে গন্ডগোল চলছে, সেসব জায়গায় এখন রেশন দেওয়া হবে না।

শনিবার রেশন র্নীতির অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে ১৯ রেশন ডিলারকে। পাশাপাশি ২৮৫ জন রেশন ডিলারকে শোকজ করা হয়েছে। পাশাপাশি সাসপেন্ড করা হয়েছে ৫ রেশন ডিলারকে। একজন রেশন ডিলারের লাইসেন্স বাতিল হয়েছে।

রাজ্য জুড়ে রেশন নিয়ে অনিয়মের অভিযোগ উঠছে বেশ কয়েকদিন ধরেই। ওজনে কারচুপির অভিযোগ আসছিল দফায় দফায়। অভিযোগ ক্রমে বিক্ষোভে পরিণত থাকে। ডিলারের বাড়ি ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে সালারের পুণশ্রী অঞ্চলে। একের পর এক অভিযোগ পেয়ে শনিবার ফুড কমিশনারকে তলব করেন মুখ‍্যসচিব।

নবান্নের তরফে জানানো হয়, এই অশান্তির আবহে সুষ্ঠু রেশন বণ্টন সম্ভব নয়। কাজেই সেসব জায়গায় এখন রেশন দেওয়া হবে না।

তবে গোটা অব্যবস্থার জন্য কেন্দ্রের দিকেই আঙুল তুলছে রাজ্য প্রশাসন। রাজ‍্য খাদ‍্য দফতরের অভিযোগ, তিন মাসের জন্যে (এপ্রিল,মে,জুন) ৯ লাখ মেট্রিক টন এর জায়গায় এখনও পর্যন্ত মাত্র ৩ লাখ মেট্রিক টন চাল পেয়েছে রাজ‍্য। এ দিকে ডাল প্রয়োজন প্রতি মাসে সাড়ে ১৪ হাজার মেট্রিক টন। এর মধ‍্যে এখনও পাওয়া গিয়েছে মাত্র ৪ হাজার মেট্রিক টন। রাজ‍্যে জাতীয় খাদ‍্য সুরক্ষার আওতাধীনের সংখ‍্যা ৬ কোটি ১ লক্ষ। কেন্দ্র ও রাজ‍্য মিলিয়ে মোট ১০ কেজি করে চাল পাওয়ার কথা। কিন্তু পরিমান মতো চাল ডাল না পাওয়ায় রেশন ব‍্যবস্থা বিপর্যস্ত হচ্ছে।

Published by:Arka Deb
First published:

Tags: Coronavirus, COVID-19, Mamata Banerjee, Nabanna