corona virus btn
corona virus btn
Loading

একদিন আগেই সুস্থ, পরের দিনই মারা যাচ্ছেন রোগিরা- গভীর চিন্তায় চিকিৎসকরা

একদিন আগেই সুস্থ, পরের দিনই মারা যাচ্ছেন রোগিরা- গভীর চিন্তায় চিকিৎসকরা
Photo- Representive

ভিতরে ভিতরে রক্তে অক্সিজেনের যোগান কমিয়ে দিয়ে একেবারে প্রাণ কেড়ে নিচ্ছে কোভিড ১৯

  • Share this:

#হায়দরাবাদ : আগের দিন অবধি ভালো থাকছেন রোগিরা তারপরেই হঠাৎ করে মৃত্য পরের দিন! সারা ভারতে কোভিড ১৯ আক্রান্ত রোগিদের এই মৃত্যু ধরণ ভীষণ চিন্তায় ফেলেছে চিকিৎসকদের ৷ সারা ভারতের বিভিন্ন হাসপাতালের চিকিৎসকরা এখন একমত হঠাৎ করে পরিস্থিতি ভীষণ খারাপ হয়ে যাচ্ছে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগিদের ৷

চিকিৎসকদের প্রাথমিক স্টাডি বলছে এই করোনা ভাইরাস শরীরের গুরুত্বপূর্ণ অংশ ফুসফস, হৃদয়, মস্তিষ্কে প্রভাব ফেলছে আর তার থেকেই শরীর বৈকল্য তৈরি হচ্ছে ৷ হায়দরাবাদের অ্যাপেলো হাসপাতালের পালমোনলজিস্ট ডক্টর সি বিজয় কুমার জানিয়েছেন, বাইরে থেকে দেখে রোগিদের সুস্থ মনে হচ্ছে কিন্তু ভিতরে ভিতরে রক্তে অক্সিজেনের পরিমাণ কমতে থাকে ৷ সারা পৃথিবীর কোভিড ১৯ কেসেই এই চিত্রটাই চোখে পড়েছে ৷ ভারতও তার ব্যতিক্রম নয় ৷

আক্রান্তদের ৫ শতাংশ কেসে এই ঘটনা এমন জায়গায় পৌঁছে যাচ্ছে যেখানে আক্রান্ত রোগি অত্যন্ত ক্রিটিক্যাল স্টেজে পৌঁছে যাচ্ছে ৷ প্রাথমিক ভাবে যে পরিসংখ্যান পাওয়া যাচ্ছে তাতে ভারতে এই অতিরিক্ত কঠিন কেসে যাচ্ছে যে বয়স তা হল ৪০ থেকে ৬০ ৷

এটা ভাবা ভুল যে শুধুমাত্র ৬০ বছরের বেশি বয়সীরাই এই মারণ রোগের চরম সংক্রমণের শিকার ৷ কিন্তু ভারতে যেহেতু বহু ক্ষেত্রেই তাঁরা সেলফ আইসোলেশনে গেছেন তাই তাঁরা খানিকটা হলেও সুরক্ষিত রয়েছেন ৷ তাই ়যাঁরা আক্রান্ত হচ্ছেন তাঁদের ফুসফুস যাতে সঠিকভাবে কাজ করতে পারে চিকিৎসকরা সেই বিষয়ে নজর রাখছেন ৷

ম্যাক্স হেলথ কেয়ারের পক্ষ থেকে ডক্টর সন্দীপ বুদ্ধিরাজা জানিয়েছেন ফুসফুস ছাড়াও সংক্রমণ হার্ট  ব্রেনে ছড়িয়েছে কিনাও নজর রাখতে হচ্ছে ৷ আর এটা থেকেই রোগিরা হঠাৎ করে প্রাণ হারাচ্ছেন ৷ যাঁদের আগে ব্রেন স্ট্রোক কিম্বা হার্ট অ্যাটাক হয়েছে তাদের ক্ষেত্রে আরও মারাত্মক খারাপ ভাবে প্রভাব বিস্তার করছে কোভিড ১৯ ৷

এই  ক্রিটিক্যাল কেসের মধ্যে পুরুষরা -মহিলাদের তুলনায় বেশি তাড়াতাড়ি মারা যাচ্ছেন ৷ তার মধ্যে ভারতের ৪০ -র পর প্রচুর মানু৷ ডায়বেটিক, হাইপারটেনশন  ও মোটাত্বের মতো বিষয়ে আক্রান্ত থাকেন তার ফলেই এই মারণ ভাইরাস আরও সহজে থাবা বসাচ্ছে ৷

এই কারণগুলি থাকলে মৃত্যু র দিকে তাড়াতাড়ি এগিয়ে যাচ্ছেন ভারতের কোভিড ১৯ রোগিরা ৷ ডক্টর রাজেশ চাওলা জানিয়েছেন শিশুদের ক্ষেত্রে ১০০ শতাংশ কেসে ও ভালো রোগ প্রতিরোধক্ষমতা আছে এমন রোগিদের ৮০ শতাংশ ইতিমধ্যেই কোভিড ১৯ কে জয় করে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে যাচ্ছেন ৷

কম রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা এবং সঙ্গে আরও বিভিন্ন রোগ থাকলে দ্রুত রক্তে অক্সিজেনের যোগান কমিয়ে দিয়ে রোগিকে একেবারে মৃত্যুমুখে ঠেলে দিচ্ছে কোভিড ১৯ ৷

First published: April 24, 2020, 10:10 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर