corona virus btn
corona virus btn
Loading

লকডাউনে বন্ধ রোজগার, অভুক্ত-দরিদ্র-অসহায় মানুষদের মুখে অন্ন জোগাচ্ছেন শহরের চিকিৎসকরা

লকডাউনে বন্ধ রোজগার, অভুক্ত-দরিদ্র-অসহায় মানুষদের মুখে অন্ন জোগাচ্ছেন শহরের চিকিৎসকরা

ইন্ডিয়ান ডেন্টাল অ্যাসোসিয়েশন পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য শাখার উদ্যোগে গত ৩০ এপ্রিল থেকে এই দুঃস্থ ও অসহায় মানুষের হাতে খাবার তুলে দেওয়ার কর্মসূচি শুরু হয় ।

  • Share this:

#কলকাতা: যে রাঁধে , সে চুলও বাঁধে । এই প্রবাদকে সত্যি করে চারপাশের এই স্বার্থপরতার মধ্যেও ওঁরা হাল ছাড়েননি । কেউ বর্তমানে চিকিৎসক , কেউ অবসরপ্রাপ্ত , কেউ বা চিকিৎসার পাঠ নিচ্ছেন ভবিষ্যতে চিকিৎসক রূপে নিজেকে গড়ে তোলার জন্য । তবে প্রায় ৩ মাসের দীর্ঘ লকডাউনে কেউই নিজেকে বিচ্ছিন্ন করে বাড়িতে ঘরবন্দি করে রাখতে পারেননি । শিয়ালদহ আর আহমেদ ডেন্টাল কলেজ । কলেজের দন্ত চিকিৎসক , ছাত্রছাত্রীরা করোনা আবহে নিজেদের দূরে না সরিয়ে শিয়ালদহ অঞ্চলের পথশিশু , ভবঘুরে , ফুটপাথবাসীদের পাশে দাঁড়ানোর উদ্যোগ নেন ।

ইন্ডিয়ান ডেন্টাল অ্যাসোসিয়েশন পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য শাখার উদ্যোগে গত ৩০ এপ্রিল থেকে এই দুঃস্থ ও অসহায় মানুষের হাতে খাবার তুলে দেওয়ার কর্মসূচি শুরু হয় । এছাড়াও পাশের এনআরএস হাসপাতালে দূর-দূরান্তের যে সব রোগী ভর্তি রয়েছে , যাদের আত্মীয় পরিজনরা হাসপাতালেই থাকছেন তাঁদের মুখেও খাবার তুলে দেয় । প্রতিদিনই ডিমের ঝোল-ভাত । শিশুদের খাবারের সঙ্গে দুধের প্যাকেট , প্রত্যেককে মাস্ক , সাবান দেওয়া হয় । প্রতিদিন প্রায় ৩০০ মানুষকে খাবার তুলে দেওয়া হয় । এমনকি আমফান ঘূর্ণিঝড়ের পরের দিনও কর্মসূচিতে ছেদ পড়েনি । মাঝে একবার শিশুদের হাতে নতুন জামা কাপড় দেওয়া হয় ।

রাজ্য তথা দেশজুড়ে দীর্ঘদিন ধরে চলছে করোনা-পরিস্থিতি । তাই লকডাউনের জেরে বেশিরভাগ মানুষেরই রোজগার বন্ধ । এই দুর্দিনে শহরের দুঃস্থ ও অসহায় মানুষদের জন্যই এই মানবিক উদ্যোগ নিয়েছিল ইন্ডিয়ান ডেন্টাল অ্যাসোসিয়েশন পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য শাখা । প্রতিদিন  ৩০০ জনের হাতে রান্না করা খাদ্য সামগ্রীর পাশাপাশি পঞ্চাশটি বাচ্চার হাতে দুধের প্যাকেট তুলে দেওয়া হচ্ছিল । এই কর্মসূচির মাধ্যমে এখনও পর্যন্ত প্রায় ১২০০০ জনের মুখের গ্রাস তুলে দিয়েছেন তাঁরা । এই মানবিক কর্মসূচি সম্পর্কে আইডিএ রাজ্য শাখার সম্পাদক ডাঃ রাজু বিশ্বাস জানান, "দায়িত্ববান নাগরিক হিসেবে আমরা সবাই সামান্য এই প্রচেষ্টায় অংশগ্রহণ করেছি । সমস্ত কিছু সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে এবং রাজ্য সরকারের নির্দেশ পালন করেই এই কর্মসূচি করা হচ্ছে । রাজ্য প্রশাসন , কলকাতা ট্রাফিক পুলিশকে অসংখ্য ধন্যবাদ আমাদের পাশে থাকার জন্য ।"

এ ছাড়াও কসবাতে ১৫০০ পরিবারের হাতে ও কালীঘাট যৌন পল্লী এলাকায় রেশন তুলে দেওয়া হয়েছে ইন্ডিয়ান ডেন্টাল অ্যাসোসিয়েশনের রাজ্য শাখার পক্ষ থেকে । আমফান ক্ষতিগ্রস্তদের দিকেও মানবিকতার হাত বাড়ায় ইন্ডিয়ান ডেন্টাল অ্যাসোসিয়েশন । ডায়মন্ড হারবারের মহকুমা শাসক ও  রাম গঙ্গার ব্লক উন্নয়ন অধিকর্তার হাতে সোলার লাইট , স্যানিটারি ন্যাপকিন , শিশুদের খাবার , স্যানিটাইজার , প্রয়োজনীয় ওষুধ , ওরাল কিট তুলে দেওয়া হয়েছে ।

ABHIJIT CHANDA

Published by: Shubhagata Dey
First published: June 12, 2020, 7:13 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर