corona virus btn
corona virus btn
Loading

লকডাউন শেষ করার পথ জানে না সরকার, মমতাদের সঙ্গে বৈঠকে সরব সনিয়া

লকডাউন শেষ করার পথ জানে না সরকার, মমতাদের সঙ্গে বৈঠকে সরব সনিয়া
সনিয়া গান্ধি৷

বৈঠকে সনিয়া গান্ধি অভিযোগ করেন, প্রধানমন্ত্রীর দফতরেই ক্ষমতার কেন্দ্রীকরণ হয়ে গিয়েছে৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: লকডাউন থেকে কীভাবে বেরিয়ে আসতে হবে, তার কোনও কৌশল ঠিক করতে পারেনি সরকার৷ বিরোধী দলগুলির সঙ্গে বৈঠকে এমনই অভিযোগ করলেন কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধি৷ একইসঙ্গে তিনি অভিযোগ করেন, লকডাউনের আওতায় কী কী রাখা হবে, তা নিয়েও নরেন্দ্র মোদি সরকার অনিশ্চয়তায় ভুগছে বলে অভিযোগ করেন কংগ্রেস সভানেত্রী৷ নরেন্দ্র মোদির ঘোষিত ২০ লক্ষ কোটি টাকার আর্থিক প্যাকেজকেও দেশের গরিব মানুষের প্রতি সরকারের 'নির্মম তামাশা' বলে কটাক্ষ করেন সনিয়া গান্ধি৷

করোনা সংক্রমণ রুখতে দেশে লকডাউন শুরু হওয়ার পর এই প্রথম ভিডিও কনফারেন্স-এর মাধ্যমে মিলিত হয়েছিলেন বিরোধী দলগুলির নেতারা৷

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও ব্রায়েন, জনতা দল নেতা এইচ ডি দেবেগৌড়া, সিপিএম সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি, সিপিআই সাধারণ সম্পাদক ডি রাজা, মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে, এনসিপি নেতা শরদ পাওয়ার, ডিএমকে নেতা এম কে স্ট্যালিন, ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী এবং জেএমএম প্রধান হেমন্ত সোরেন সহ বিভিন্ন বিরোধী দলের নেতারা এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন৷ যদিও সমাজবাদী পার্টি, বহুজন সমাজ পার্টি এবং আম আদমি পার্টি এই বৈঠকে অংশ নেয়নি৷

বৈঠকে সনিয়া গান্ধি অভিযোগ করেন, প্রধানমন্ত্রীর দফতরেই ক্ষমতার কেন্দ্রীকরণ হয়ে গিয়েছে৷ যুক্তরাষ্ট্রীয় পরিকাঠানোরও ধার ধারছে না এই সরকার৷ কংগ্রেস সভানেত্রী বলেন, কোনওরকম প্রস্তুতি ছাড়া এবং আগাম না জানিয়েই জারি করা সরকারের এই লকডাউনকে বিরোধীরাও সমর্থন করেছিল৷ কিন্তু প্রাথমিকভাবে ২১ দিনে করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধ শেষ হওয়ার যে প্রতিশ্রুতি

প্রধানমন্ত্রী দিয়েছিলেন তা ভুল প্রমাণিত হয়েছে৷ তিনি অভিযোগ করেন, পরিযায়ী শ্রমিক সহ দেশের জনসংখ্যার একেবারে নীচের দিকে থাকা ১৩ কোটি পরিবারকে নিষ্ঠুর ভাবে উপেক্ষা করেছে সরকার৷ একই সঙ্গে তিনি বলেন, 'প্রধানমন্ত্রী ঢাকঢোল পিটিয়ে যে ২০ লক্ষ কোটির প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন, তা আসলে দেশের মানুষের প্রতি সরকারের নিষ্ঠুর তামাশা৷' একই সঙ্গে সংসদ বা সংশ্লিষ্ট কোনওপক্ষের সঙ্গেই আলোচনা না করে সরকার রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থাগুলির 'ক্লিয়ারেন্স সেল' চালু করেছে বলেও কটাক্ষ করেন সনিয়া গান্ধি৷ শ্রম আইন শিথিল করার জন্যও সরকারকে কাঠগড়ায় তোলেন তিনি৷

Published by: Debamoy Ghosh
First published: May 22, 2020, 10:54 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर