corona virus btn
corona virus btn
Loading

আশার আলো!‌ একটি নয়, ছ’‌টি করোনা ভ্যাকসিন সাফল্যের দোরগোড়ায়

আশার আলো!‌ একটি নয়, ছ’‌টি করোনা ভ্যাকসিন সাফল্যের দোরগোড়ায়

তবে হিসাব করলে দেখা যাবে, পৃথিবীতে আপাতত ছ’‌টি ভ্যাকসিন সাফল্যের দোড়গোড়ায় দাঁড়িয়ে আছে।

  • Share this:

বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় অসংখ্য গবেষণা চলছে। বিভিন্ন দেশ সাধ্যমতো চেষ্টা করে চলেছে ভ্যাকসিন আবিস্কারের। কিন্তু চূড়ান্ত সাফল্য এখনও কেউই পায়নি। যদিও বিভিন্ন গবেষণা সংস্থাই দাবি করছে, ভ্যাকসিন আবিস্কারের দোড়গোড়ায় দাঁড়িয়ে আছেন তাঁরা। তবে হিসাব করলে দেখা যাবে, পৃথিবীতে আপাতত ছ’‌টি ভ্যাকসিন সাফল্যের দোড়গোড়ায় দাঁড়িয়ে আছে।

• মোডের্না সংস্থার mRNA-1273

মোডের্না সংস্থার mRNA-1273। একটি ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের পর্যায়ে আছে। সংস্থা সম্প্রতি একটি তথ্য প্রকাশ করে বলেছে, এই ভ্যাকসিনের প্রথম ধাপের গবেষণা সফল হয়েছে। এই ভ্যাকসিনের গবেষণা হচ্ছে আমেরিকায়।

BioNTech ও BNT162

BioNTech ও BNT162 ভ্যাকসিনের গবেষণা হচ্ছে জার্মানিতে। প্রাথমিকভাবে ১২ জনের শরীরে এটি প্রয়োগ করা হয়। আরও বেশি মানুষের শরীরে এটি প্রয়োগ করে পরীক্ষা করার অনুমতি দিয়েছে প্রশাসন। পরে এটি আমেরিকাতেও পরীক্ষা করা হবে।

• অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের AZD1222

এপ্রিল মাসের ২৩ তারিখে এটির ট্রায়াল শুরু হয়। অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের এই ভ্যাকসিন নিয়ে অনেকেই আশা রেখেছেন।

• Ad5-nCoV

এটি প্রথম করোনা ভ্যাকসিন যা দ্বিতীয় পর্যায়ের হিউম্যান ট্রায়ালে প্রবেশ করতে পেরেছে। যাঁরা এটা তৈরি করছেন তাঁরা এর পাশাপাশি ইবোলার ভ্যাকসিন নিয়েও কাজ করছেন। কোভিড ১৯–এর জন্য ক্যানসিনো বায়োলজিক্স ও কানাডার জাতীয় গবেষণা সংস্থার সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করছে।

• ফরাসি গবেষণা

ফরাসিন সংস্থা স্যানোফি একটি গবেষণা চালাচ্ছে। কিন্তু এঁদের নিয় একটি বিতর্ক তৈরি হয়েছিল, কারণ এঁরা জানিয়েছিলেন, ভ্যাকসিন তাঁরা প্রথম আমেরিকার হাতে দেবেন। যদিও পরে ফরাসি সংস্থা সেই মন্তব্য প্রত্যাহার করে নেয়।

• জনসন অ্যান্ড জনসনের ভ্যাকসিন

সংস্থা দাবি করেছে, তারা ২০২০ সালের জানুয়ারি থেকে এই ভ্যাকসিনের কাজ শুরু করেছে। যদিও তার এখনও কোনও কোনও নাম দেওয়া হয়নি। তবে সংস্থা জানিয়েছে, গবেষণা অনেক ‌দূর এগিয়েছে। বিশেষ ব্যবহারের জন্য হয়ত জানুয়ারি, ২০২১–এর শুরুতেই এটির অনুমতি মিলবে।

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: June 7, 2020, 6:51 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर