corona virus btn
corona virus btn
Loading

কেন হল প্রাক্তন ক্রিকেটার চেতন চৌহানের মৃত্যু? সিবিআই তদন্তের দাবি উঠল উত্তরপ্রদেশে

কেন হল প্রাক্তন ক্রিকেটার চেতন চৌহানের মৃত্যু? সিবিআই তদন্তের দাবি উঠল উত্তরপ্রদেশে
Photo- File

প্রাক্তন ক্রিকেটার ও রাজ্যের মন্ত্রী চেতন চৌহানের মৃত্যুর তদন্তের দাবি করল উত্তরপ্রদেশের শিবসেনা ৷

  • Share this:

#লখনউ: প্রাক্তন ক্রিকেটার ও রাজ্যের মন্ত্রী চেতন চৌহানের মৃত্যুর তদন্তের দাবি করল  উত্তরপ্রদেশের শিবসেনা ৷ দিন কয়েক আগে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছিল তাঁর৷ কোন পরিস্থিতিতে লখনউয়ের সরকারি হাসপাতাল থেকে তাঁকে গুরুগ্রামের একটি বেসরকারি হাসপাতালে তাঁকে স্থানান্তরিত করা হয়েছিল, তা খতিয়ে দেখার দাবি করেছে শিবসেনা৷

শিবসেনার একটি প্রতিনিধি দল উত্তরপ্রদেশের রাজ্যপাল আনন্দিবেন প্যাটেলকে এই বিষয়ে একটি স্মারকলিপি দেয়৷ ৭৩ বছরের চেতন চৌহান অগাস্টের ১৬ তারিখে করোনা ভাইরাসের শিকার হয়ে মারা যান৷

প্রাথমিকভাবে তাঁকে সঞ্জয় গান্ধি পোস্টগ্রাজুয়েট ইন্সটিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্সেস -লখনউতে ভর্তি করা হয়েছিল৷ তাঁর শরীরে আগে থেকেই কিডনি সংক্রান্ত সমস্যা ছিল৷ তারই জেরে শরীর অত্যধিক খারাপ হয়ে যায়৷ এরপর তাঁকে মেদান্তা হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়৷ সেখানে লাইফ সাপোর্টে ছিলেন ৩৬ ঘণ্টা৷

শিবসেনা নিজেদের স্মারকলিপিতে জানতে চেয়েছে, ‘কোন পরিস্থিতিতে লখনউয়ের SGPGI হাসপাতাল থেকে তাঁকে গুরুগ্রামের মেদান্তা হাসপাতালে তাঁকে স্থানান্তরিত করা হল৷ ’

সেখানে আরও বলা হয়েছে, ‘SGPGI চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের ব্যবহারে তিনি মনোক্ষুন্ন হয়েছিলেন৷ কিন্তু এখনও অবধি সেইসব চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি৷ এই পুরো ঘটনা ঘটে যায় আর সরকার নিজের মতো ঘুমোচ্ছে৷ এই নিয়ে কোভিড ১৯ -র শিকার হয়ে ২ জন মন্ত্রীর মৃত্যু হয়েছে৷ ’

অগাস্টের ২ তারিখ রাজ্যের প্রযুক্তি শিক্ষা মন্ত্রী কমলা রাণী বরুণ করোনা পজিটিভ হওয়ার পর মারা যান৷ তাঁর বয়স হয়েছিল ৬২ বছর৷ শিবসেনা জানিয়েছে, ‘সরকারের পক্ষ থেকে পুরো ঘটনা খতিয়ে দেখতে সিবিআই তদন্ত করা হক ৷’

এর আগে সমাজবাদী পার্টির সুনীল সিং সাজন বলেছিলেন  SGPGI তে তাঁর চিকিৎসা নিয়ে ছেলেখেলা করা হয়েছে ৷ আর এরই জেরে মারা গেছেন তিনি৷

শুক্রবার উত্তরপ্রদেশ বিধান সভার আপার হাউসে চেতন চৌহানের মৃত্যু নিয়ে আলোচনা করা হয়৷ সেখানে পরিষ্কার বলা হয় রাজ্য সরকারি হাসাপাতালে খারাপ চিকিৎসার কারণেই প্রাণ হারিয়েছেন প্রাক্তন ক্রিকেটার৷ সমাজবাদী পার্টির সুনীল সিং জানিয়েছেন, তিনিও চৌহানের সঙ্গে একই ওয়ার্ডে ভর্তি ছিলেন৷ তিনি বলেছেন, ‘একদিন রাউন্ডের সময় চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা জিজ্ঞাসা করেন কে চেতন চৌহান ? তখন চেতন হাত তোলেন যেন তিনি একজন সাধারণ মানুষ ৷ তাঁকে জিজ্ঞাসা করা হয় তিনি কখন সংক্রমিত হয়েছেন৷ তিনি তখন পুরো বিষয়টি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে বিবরণ দেন৷ ’

তাঁকে হাসপাতালে আরও একজন জিজ্ঞাসা করেন তিনি কী করেন৷ এতে তিনি জানিয়েছিলেন তিনি যোগী আদিত্যনাথ সরকারের একজন মন্ত্রী৷ হাসাপাতালের সব ব্যবহারে তিনি একেবারে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছিলেন৷

Published by: Debalina Datta
First published: August 25, 2020, 8:00 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर