corona virus btn
corona virus btn
Loading

হোম আইসোলেশনে থাকা করোনা রোগীদের জন্য টোল ফ্রি নম্বর চালু, অন্য রোগাক্রান্তদের চিকিৎসা করানোর অনুরোধ

হোম আইসোলেশনে থাকা করোনা রোগীদের জন্য টোল ফ্রি নম্বর চালু, অন্য রোগাক্রান্তদের চিকিৎসা করানোর অনুরোধ
প্রতীকী ছবি

শনিবার স্বরাষ্ট্র সচিব রাজীবা সিনহা ১৮০০৩১৩৪৪৪২২২ নম্বরটিকে টোল ফ্রি নম্বর হিসাবে ঘোষণা করেন।

  • Share this:

#কলকাতা: করোনা আবহে চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ উঠেছে বারবার। বিনা চিকিৎসায় রোগী রেফার, চিকিৎসা না করে হাসপাতালের বাইরে রোগী দীর্ঘক্ষণ পড়ে থেকে মৃত্যুর মতো একাধিক অভিযোগও উঠেছে। সামগ্রিকভাবে রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বিগ্ন রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বারবার করে চিকিৎসকদের মানবিক হওয়ার আবেদন জানিয়েছেন, কিন্তু করোনা আবহে বহু চিকিৎসকই প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করতে চাইছেন না। আর তাতেই আতান্তরে রোগী এবং তাঁদের পরিবার। এই সময়েই করোনা হলে কী করবেন, ঠিক কোন পরিস্থিতিতে করোনা রোগীকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া প্রয়োজন আর কোন করোনা রোগীকেই বা 'হোম আইসোলেশন'-এ রাখা যাবে, সেই সব বিষয়ে বার্তা দিয়েছেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা।

এ দিন রাজ্যে হোম আইসোলেশনে থাকা করোনা আক্রান্ত রোগীদের জন্য টোল ফ্রি নম্বরও ঘোষণা করেছে রাজ্য সরকার। শনিবার স্বরাষ্ট্র সচিব রাজীবা সিনহা ১৮০০৩১৩৪৪৪২২২ নম্বরটিকে টোল ফ্রি নম্বর হিসাবে ঘোষণা করেন। এছাড়া ০৩৩-২৩৪১২৬০০ নম্বরে যোগাযোগ করলে চিকিৎসা বিষয়ক সহায়তা মিলবে। স্বাস্থ্য দফতরের টেলি মিডিসিন নম্বর  ০৩৩-২৩৫৭৬০০১

এ দিকে, করোনা ব্যতীত কোনও রোগে আক্রান্ত কেউ আক্রান্ত হলে সেক্ষেত্রে কী করা উচিত, কী ভাবে সেই রোগের চিকিৎসা সম্ভব, এই বিষয়ে বিশদে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সহ একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় এনেছে স্বাস্থ্যদফতর। এসএসকেএম-এর গ্যাস্ট্রোএন্টেরোলজি বিভাগের অধ্যাপক চিকিৎসক অভিজিৎ চৌধুরী এক ট্যুইট বার্তায় জানিয়েছেন, "হাসপাতালে আপনার যদি কোনও কারণে যাওয়ার প্রয়োজন হয়, তাহলে কোনও ভাবেই আতঙ্কে বাড়িতে বসে থাকবেন না। করোনায় এই মুহূর্তে যত মানুষ পৃথিবী ছেড়ে চলে যাচ্ছেন, তার থেকে বেশী মানুষ এমন অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে আসছেন, তাঁদের বাঁচানো সম্ভব হচ্ছে না।" ফলে চিকিৎসকরা সবিনয়ে অনুরোধ জানিয়েছেন, শারীরিক অসুস্থতা থাকলে কালক্ষেপ না করে যে কোনও মানুষ যাতে চিকিৎসা করান।

Published by: Shubhagata Dey
First published: July 18, 2020, 7:12 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर