করোনা ভাইরাস

corona virus btn
corona virus btn
Loading

অনলাইনে ক্লাস করলে আন্তর্জাতিক ছাত্রদের ঠাঁই হবে না, করোনার আবহেই বিবৃতি আমেরিকার

অনলাইনে ক্লাস করলে আন্তর্জাতিক ছাত্রদের ঠাঁই হবে না, করোনার আবহেই বিবৃতি আমেরিকার
বেকায়দায় বহু আন্তর্জাতিক পড়ুয়া।

ট্রাম্প চাইছেন এই করোনার আবহেই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব স্কুল কলেজ খুলে যাক। সোমবার এই বিবৃতি সামনে আসার কিছুক্ষণের মধ্যেই ট্রাম্প ট্যুইটারে এই বিবৃতি শেয়ার করেন।

  • Share this:

#ওয়াশিংটন: আরও একবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে থিতু হওয়া প্রবাসীদের জন্য দুঃসংবাদ শোনাল মার্কিন প্রশাসন। সোমবার মার্কিন ইমিগ্রেশান অ্যান্ড কাস্টমস এনফোর্সমেন্টের তরফে বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়েছে, আগামী মরশুমে সামগ্রিক পঠনপাঠন অনলাইনে চলবে এমন প্রবাসী নাগরিকদের মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে থাকার অনুমতি দেওয়া হবে না।

করোনার আবহে এই নির্দেশিকায় একদিকে যেমন বিপদে পড়ছে হাজার হাজার ছাত্র, তেমনই স্কুল-কলেজ খোলার ব্যাপারে বাড়তি চাপ অনুভব করছে স্কুল কলেজগুলিও। হাভার্ড-সহ বহু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানই এই বিবৃতি হাতে পেয়েছে। তবে তারা চাইছে পরিস্থিতি বিবেচনা করে স্বাধীন ভাবে সিদ্ধান্ত নিতে।

ট্রাম্প চাইছেন এই করোনার আবহেই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব স্কুল কলেজ খুলে যাক। সোমবার এই বিবৃতি সামনে আসার কিছুক্ষণের মধ্যেই ট্রাম্প ট্যুইটারে এই বিবৃতি শেয়ার করেন। তিনি জোর দিয়ে বলেন, আগামী ফল সিজনে স্কুল কলেজ খুলতেই হবে। ডেমোক্র্যাটদের ঘাড়ে দোষ চাপিয়ে ট্রাম্প লেখেন, 'রাজনৈতিক ফায়দা তুলতে মরিয়া ডেমোক্র্যাটরা চান না শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি চালু হোক।'

এই বিবৃতি অনুযায়ী, আন্তর্জাতিক ছাত্রদের মোট ক্লাসের কিছু অংশ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের চার দেওয়ালের মধ্যে উপস্থিত থেকে করতে হবে। যদি গোটা পঠনপাঠনটাই অনলাইনে সারা হয় তবে ভিসা বাতিল হবে আন্তর্জাতিক ছাত্রদের। নতুন করে ভিসা ইস্যু করারও সুযোগ থাকবে না। এই বিবৃতিতে বেকায়দায় পড়েছে হাজার হাজার আন্তর্জাতিক ছাত্র। এই ছাত্ররা স্প্রিং-সিজনের পঠনপাঠনে অংশগ্রহণ করেছিল, কিন্তু প্রতিষ্ঠানের তরফেই করোনা পরিস্থিতিতে তাদের অনলাইন ক্লাস করতে বলা হয়েছিল।

এই বিবৃতিতে অখুশি দ্য আমেরিকান কাউন্সিল অন এডুকেশনও। মার্কিন বিশ্ববিদ্যালয়গুলির প্রতিনিধিত্বকারী এই সংস্থা সোমবারের এই বিবৃতিতে 'ধোঁয়াটে ও ভয়াবহ' বলে ব্যখ্যা করেছেন।

উল্লেখ্য ৪ লক্ষ ছাত্র মার্কিন যুক্তরাষ্টের ভিসা পেয়েছিল সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পঠনপাঠন চালানোর। এমনিতেই এবছর নতুন মরশুমে করোনা পরিস্থিতিতে ছাত্র ভর্তির সম্ভাবনা কম, তার মধ্যে এই নতুন বিবৃতিতে অসংখ্য ছাত্র হারানোর ভয় পাচ্ছে এই প্রতিষ্ঠানগুলি।

বিরোধীরা এই বিবৃতির জেরে ট্রাম্প প্রশাসনকে বিঁধ‌তে ছাড়েনি। সেন বার্নি স্যান্ডার্স সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, এই হোয়াইট হাউজের নিষ্ঠুরতার কোনও সীমা নেই।

Published by: Arka Deb
First published: July 7, 2020, 9:15 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर