corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনা মুক্তির ডাক দিয়েছিলেন, প্লাজমা থেরাপি নেওয়ার আগেই মৃত্যু হল পুলিশ অফিসারের

করোনা মুক্তির ডাক দিয়েছিলেন, প্লাজমা থেরাপি নেওয়ার আগেই মৃত্যু হল পুলিশ অফিসারের
প্রতীকী চিত্র ।
  • Share this:

#লুধিয়ানা: পণ করেছিলেন করোনামুক্ত করবেন লুধিয়ানাকে। গড়ে তুলেছিলেন নিজের বাহিনীও । লুধিয়ানার এসিপি অনীল কুমার কোহলি। লড়াইয়ের মাঝপথেই যুদ্ধের ময়দান ছেড়ে চলে যেতে হল তাঁকে । ৫২ বছরের অনীলবাবু সারাদিন করোনা আক্রান্তদের নিয়ে ছোটাছুটি করতেন, সেবা করতেন তাঁদের মাথার পাশে দাঁড়িয়ে । কখন, কোন অজান্তেই মারণ রোগ যে তাঁর শরীরে বাসা বেঁধেছে, টেরটিও পাননি । তাঁকে লুধিয়ানার এসপিএস হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল । ঠিক হয়েছিল, প্লাজমা থেরাপি প্রয়োগ করা হবে তাঁর উপর । আজই তা করার কথা ছিল । কিন্তু তার আগেই নিভে গেল জীবনদীপ । অনীলবাবুর স্ত্রী নিজেও করোনা পজেটিভ । তিনি একজন স্টেশন হাউস অফিসার। এমনকি তাঁদের ড্রাইভার এবং কনস্টেবলের নমুনাও পজেটিভ এসেছে । তাঁদের সকলকে আইসোলেশনে রাখা হয়েছিল।

লুধিয়ানা পুলিশ জানিয়েছে, এসিপিকে বাঁচানোর আপ্রাণ চেষ্টা করেছিলেন ডাক্তাররা। তাঁরা প্লাজমা থেরাপির জন্য মেডিক্যাল টিমও গঠন করে ফেলেছিলেন । প্লাজমা দাতারও খোঁজ মিলেছিল। কিন্তু থেরাপি শুরুর আগেই মৃত্যু হয় তাঁর। অনীলবাবুর শ্বাসের সমস্যা ক্রমেই বাড়তে থাকে । প্লাজমা থেরাপি করলে হয়তো বেঁচে যেতেন তিনি । কিন্তু তার আগেই সব শেষ । অনীল কুমারই প্রথম লুধিয়ানায় লকডাউন ঘোষণা করার কথা বলেছিলেন । ২০ জন পুলিশকর্মীকে নিয়ে গড়ে তুলেছিলেন করোনা বাহিনী । নাম দিয়েছিলেন ‘কোভিড কম্যান্ডো’ ।

First published: April 19, 2020, 9:34 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर