corona virus btn
corona virus btn
Loading

অনলাইন নয়, দেওয়ালে ছবি এঁকে ক্লাস করাচ্ছে মহারাষ্ট্রের এই স্কুল

অনলাইন নয়, দেওয়ালে ছবি এঁকে ক্লাস করাচ্ছে মহারাষ্ট্রের এই স্কুল
করোনার জেরে বন্ধ স্কুলে গিয়ে পড়াশোনা৷ প্রতীকী ছবি, PHOTO- Reuters

ওই স্কুলের শিক্ষক রাম গায়কোয়াড় জানিয়েছেন, যেহেতু স্কুলের অধিকাংশ পড়ুয়াই অত্যন্ত গরিব পরিবারের, তাই তাদের পক্ষে অনলাইন ক্লাস করা সম্ভব নয়৷

  • Share this:

#সোলাপুর: করোনা অতিমারির কারণে গোটা দেশেই সব স্কুল বন্ধ৷ বিকল্প হিসেবে শুরু হয়েছে অনলাইন ক্লাস৷ বাড়ি বসে স্মার্টফোন বা ল্যাপটপেই পড়াশোনা করছে পড়ুয়ারা৷ তবে দেশের একটা বড় অংশের মানুষ যাঁদের ল্যাপটপ বা স্মার্টফোন কেনার ক্ষমতা নেই, সেই সমস্ত পরিবারের ছাত্রছাত্রীরা পড়েছে বিপদে৷

এই সমস্যার সমাধানে অভিনব উপায় বের করল মহারাষ্ট্রের একটি স্কুল৷ মহারাষ্ট্রের সোলাপুরের ওই স্কুল কর্তৃপক্ষ বিভিন্ন ক্লাসের পড়া, স্কুল সংলগ্ন বিভিন্ন দেওয়ালে আঁকার মাধ্যমে ফুটিয়ে তুলছে৷ পারস্পরিক দূরত্ব বজার রেখে সেই দেওয়ালগুলির সামনে দাঁড়িয়েই পড়া করছে ছাত্রছাত্রীরা৷

সংবাদসংস্থা পিটিআই-এর খবর অনুযায়ী, সোলাপুরের নীলমনগরের আশা মরাঠি বিদ্যালয় প্রাইমারি স্কুল পড়ুয়াদের জন্য এই উদ্যোগ নিয়েছে৷ নীলমনগরের প্রায় তিনশোটি বাড়ির দেওয়ালে প্রথম থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত বিভিন্ন ক্লাসের পড়া সহজ ভাবে ছবি এঁকে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে৷ আশেপাশের এলাকার প্রায় ১৭০০ পড়ুয়া ওই স্কুলের প্রাথমিক এবং সেকেন্ডারি বিভাগে পড়াশোনা করে৷

ওই স্কুলের শিক্ষক রাম গায়কোয়াড় জানিয়েছেন, যেহেতু স্কুলের অধিকাংশ পড়ুয়াই অত্যন্ত গরিব পরিবারের, তাই তাদের পক্ষে অনলাইন ক্লাস করা সম্ভব নয়৷ তাঁর কথায়, 'করোনার কারণে এখন অনলাইনে পড়াশোনাই একমাত্র বিকল্প৷ কিন্তু তার জন্য স্মার্টফোন এবং ভাল ইন্টারনেট পরিষেবা প্রয়োজন৷ কিন্তু এই ছাত্রছাত্রীদের অভিভাবকদের বেশিরভাগেরই স্মার্টফোন বা অন্য কোনও গেজেট নেই৷ ফলে অনলাইন ক্লাস করাটা তাদের কাছে অবাস্তব স্বপ্নের মতোই বিষয়৷' ওই শিক্ষক জানিয়েছেন, পড়ুয়াদের অধিকাংশের বাবা- মা এলাকার বিভিন্ন বস্ত্র কারখানার শ্রমিক৷

এই কারণেই স্কুলের আশেপাশের বিভিন্ন বাড়ির দেওয়ালে ছবি এঁকে ক্লাস নেওয়ার ভাবনা আসে স্কুল কর্তৃপক্ষের মাথায়৷ সেই মতো এলাকার বাড়ির দেওয়ালগুলিতে প্রাথমিক স্তরে অক্ষর বা সংখ্যার সঙ্গে পরিচয় করানো, ছোট ছোট অঙ্ক এবং বাকিদের জন্য ব্যাকারণ, অঙ্কের ফর্মুলা, সাধারণ জ্ঞানের মতো বিভিন্ন বিষয় সহজ সরল ভাবে ছবির মাধ্যমে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে যাতে সেগুলি শিখতে পড়ুয়ারাও কৌতূহলী হয়৷ এই ব্যবস্থার ফলে নিজেদের সুবিধে এবং প্রয়োজন মতো দেওয়ালে আঁকা ছবি দেখে পড়া তৈরি করে নিতে পারছে ছাত্রছাত্রীরা৷ যার যে ক্লাস করা প্রয়োজন, সে সেই দেওয়ালের সামনে গিয়ে হাজির হচ্ছে৷

শুধু ওই স্কুলই নয়, ওই এলাকার আরও দু' -তিনটি স্কুলের পড়ুয়ারাও এর ফলে উপকৃত হচ্ছে৷ তবে দেওয়ালের ছবি দেখে পড়াশোনা করার সময়ও মাস্ক পরা এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখছে পড়ুয়ারা৷ এর পাশাপাশি অবশ্য যে পড়ুয়াদের স্মার্টফোন রয়েছে, তাদের জন্য অনলাইন ক্লাসের ব্যবস্থা রয়েছে ।

Published by: Debamoy Ghosh
First published: August 25, 2020, 3:40 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर