করোনা ভাইরাস

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনা টেস্টের সহজ উপায় ও তার ফলাফল জানুন এক নিমেষেই

করোনা টেস্টের সহজ উপায় ও তার ফলাফল জানুন এক নিমেষেই
Representational Image

পিসিআর টেস্ট আর তুলনামূলক কম ব্যবহৃত অথচ দ্রুত কার্যকরী RT-LAMP টেস্ট খতিয়ে দেখা গিয়েছে যে দুটোতেই কাজ ভাল দেয়।

  • Share this:

#টোকিও: দিন যত এগোচ্ছে, করোনা নিয়ে ততই নিত্যনতুন গবেষণা সামনে আসছে। জানা যাচ্ছে, করোনা সম্পর্কে বিভিন্ন বিষয় নিয়েও। ইতিমধ্যেই জাপানের এক সমীক্ষায় উঠে এসেছে আরও নতুন এক তথ্য। কোভিড ১৯ নির্ণয়ের ক্ষেত্রে কোনও ব্যক্তি যদি নিজের স্যালাইভা নিজেই সংগ্রহ করে টেস্ট করেন, তা হলে সেই ফলাফলও বেশিরভাগ সময় সঠিকই আসবে। জাপানের ২০০০ ব্যক্তির উপর এই সমীক্ষা চালিয়ে এই সিদ্ধান্তে আসা হয় যাঁদের করোনার কোনও লক্ষণই ছিল না।

পিসিআর টেস্ট আর তুলনামূলক কম ব্যবহৃত অথচ দ্রুত কার্যকরী  RT-LAMP টেস্ট খতিয়ে দেখা গিয়েছে যে দুটোতেই কাজ ভাল দেয়। বরং নিজের স্যালাইভা নিয়ে নিজেই টেস্ট করলে হাসপাতালে আর যেতে হয় না। ফলে করোনায় আক্রান্ত হওয়ারও ভয় থাকে না। দুটো যন্ত্রের মাধ্যমেই করা এই করোনা টেস্ট প্রায় সমান ফলাফল দিয়েছে।

ন্যাসোফ্যারাইঞ্জিল সোয়্যাব এবং স্যালাইভা স্যাম্পলস করোনায় আক্রান্ত রোগীদের ৭৭-৯৩% ক্ষেত্রে শনাক্ত করতে পারছে। যাঁদের করোনা হয়নি তাঁদের ৯৯.৯% শনাক্ত করতে পারছে এই দুই টেস্ট-ই। ন্যাসোফ্যারাইঞ্জিল সোয়্যাব এবং স্যালাইভা স্যাম্পলস- এই দুই করোনা নির্ধারণে প্রায় একই রকমের কাজ করে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

নিজের থেকে স্যালাইভা সংগ্রহ করলে যেমন যন্ত্রণার থেকে মুক্তি পাওয়া যায়, তেমনি স্যালাইভা কেউ সংগ্রহ না করায় করোনার সম্ভাবনার থেকে সেই দ্বিতীয় ব্যক্তি মুক্তি পায়। আরটি-ল্যাম্প টেস্ট করোনা নির্ণয়ে অন্যতম ভূমিকা নিতে পারে। এই টেস্ট করা যেমন সহজ তেমনই এর ফলাফলও দ্রুত পাওয়া সম্ভব। এয়ারপোর্টে এবং কোনও খেলাধুলার আয়োজনের আগে এই টেস্ট দ্রুত কাজে আসতে পারে বলে অনুমান করছেন গবেষকরা। এই আরটি-ল্যাম্প টেস্টের ফলে ভাইরাসের যেমন ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা থাকে না, তেমনই দ্রুত এর ফলাফল সম্পর্কেও নিশ্চিত হওয়া যায়।

মানুষ নিজের সুরক্ষা ও অপরের সুরক্ষা নিয়ে ওয়াকিবহাল থাকলে এই আরটি-ল্যাম্প টেস্টের উপরেই বেশি গুরুত্ব দেবে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। এর ফলে যেমন নিজেও করোনা হওয়ার হাত থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে, তেমনই অন্যদেরও মুক্তি মিলবে। নিজের থেকেই স্যালাইভা টেস্টের উপর গবেষকরা বর্তমানে বেশ জোর দিচ্ছেন। এর ফলে যেমন সময় বাঁচবে তেমনই প্রায় সঠিক ফলও পাওয়া যাবে বলে আশা বৈজ্ঞানিকদের।

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: September 29, 2020, 3:42 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर