Home /News /coronavirus-latest-news /
করোনা মোকাবিলায় বড় পদক্ষেপ, বর্ধমানে চালু হল দেড়শো বেডের সেফ হোম

করোনা মোকাবিলায় বড় পদক্ষেপ, বর্ধমানে চালু হল দেড়শো বেডের সেফ হোম

চব্বিশ ঘন্টা চিকিৎসক ও নার্স থাকছেন। এছাড়াও থাকবে যাবতীয় চিকিৎসা পরিকাঠামো। আপাতত আশিটি অক্সিমিটার যন্ত্র সেখানে দেওয়া হয়েছে।

  • Share this:

#পূর্ব বর্ধমান: সেফ হোম  তৈরি হয়ে গেল পূর্ব বর্ধমান জেলায়। বর্ধমান শহর লাগোয়া কালনা রোডের ধারে নির্মীয়মান কৃষি ভবনে করোনা মোকাবিলায় দেড়শ বেডের সেফ হোম তৈরি করল পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন। এখানে উপসর্গহীন এবং সামান্য উপসর্গ নিয়ে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন যাঁরা তাঁদের রেখে চিকিৎসা করা হবে। জেলা প্রশাসন জানিয়েছে,এই কৃষি ভবনে জেলা স্তরের কোয়ারেন্টাইন সেন্টার করা হয়েছিল। সেখানে এখন উপসর্গ নিয়ে কেউ ভর্তি নেই। সেই বিল্ডিংকেই এখন সেফ হোম হিসেবে গড়ে তোলা হয়েছে।

কেন্দ্র ও রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, উপসর্গহীন বা সামান্য উপসর্গ রয়েছে এমন করোনা আক্রান্তরা বাড়িতে থেকেই চিকিৎসা করাতে পারবেন। তবে শারীরিক অবস্থা জটিল আকার নিলে তখন তাঁকে করোনা হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হবে। তবে এক্ষেত্রে তাঁদের বাড়িতে আলাদা থাকতে হবে। অন্যদের থেকে দূরত্ব বজায় রেখে চলতে হবে। অনেকেরই বাড়িতে আলাদা থাকার মতো পরিকাঠামো নেই। তাঁদের থেকে যাতে অন্যদের দেহে করোনা সংক্রমিত না হতে পারে তা নিশ্চিত করতেই এই সেফ হোমে ব্যবস্থা।

পূর্ব বর্ধমানের অতিরিক্ত জেলা শাসক রজত নন্দা বলেন, এখনও কাউকে সেফ হোমে ভর্তি করা হয়নি। তবে সেখানে চব্বিশ ঘন্টা চিকিৎসক ও নার্স থাকছেন। এছাড়াও থাকবে যাবতীয় চিকিৎসা পরিকাঠামো। আপাতত আশিটি অক্সিমিটার যন্ত্র সেখানে দেওয়া হয়েছে। রোগীর শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা মারাত্মক রকমের নিচে নেমে গেলে তখন তাঁকে করোনা হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হবে। নচেৎ তাঁদের সেফ হোমে রেখেই চিকিৎসা করানো হবে।

জেলা স্বাস্থ্য দফতর জানিয়েছে, সেফ হোমে ব্রেকফাস্ট থেকে শুরু করে দুপুরের খাবার, রাতের খাবার, চিকিৎসা সবই মিলবে বিনামূল্যে।একঘেয়েমি কাটাতে সেখানে থাকছে টেলিভিশন, সেট টপ বক্স,ইন্টারনেট পরিষেবা। সব মিলিয়ে উপসর্গহীন এবং সামান্য উপসর্গ নিয়ে করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য তৈরি জেলা পর্যায়ের এই সেফ হোম। চিকিৎসার চলাকালীন তাঁদের নির্দিষ্ট সময় অন্তর লালা রসের নমুনা পরীক্ষা করা হবে। চিকিৎসার পর করোনা থেকে মুক্তি মিললে সেই সব পুরুষ মহিলাদের সেখান থেকে বাড়ি পাঠানো হবে।

 Saradindu Ghosh

Published by:Debalina Datta
First published:

Tags: Corona Virus, Coronavirus, Purba bardhaman

পরবর্তী খবর