corona virus btn
corona virus btn
Loading

বোর্ডের ক্রিকেট অপারেশনস ম্যানেজার পদ থেকে পদত্যাগ সাবা করিমের !

বোর্ডের ক্রিকেট অপারেশনস ম্যানেজার পদ থেকে পদত্যাগ সাবা করিমের !

কী কারণে পদত্যাগ করলেন সাবা করিম? এই প্রশ্নের উত্তরে বোর্ডের তরফ থেকে কোনও বিবৃতি দিয়ে কিছু জানানো হয়নি ৷ এমনকী, সাবা করিম নিজেও মুখ খোলেননি।

  • Share this:

#কলকাতা: বিসিসিআই থেকে পদত্যাগ করলেন সাবা করিম। বোর্ডের ক্রিকেট অপারেশনস বিভাগের জেনারেল ম্যানেজার পোস্ট থেকে সরে দাঁড়ালেন সাবা করিম। নিজের পদত্যাগপত্র বোর্ড প্রেসিডেন্ট সচিবকে পাঠিয়ে দিয়েছেন প্রাক্তন এই ক্রিকেটার। ২০১৭-র ডিসেম্বর থেকে সাবা করিম এই পদের দায়িত্ব সামলাচ্ছিলেন। কিন্তু কী কারণে পদত্যাগ করলেন সাবা করিম? এই প্রশ্নের উত্তরে বোর্ডের তরফ থেকে কোনও বিবৃতি দিয়ে কিছু জানানো হয়নি ৷ এমনকী, সাবা করিম নিজেও মুখ খোলেননি। তবে বোর্ড সূত্রে খবর, অনেকদিন ধরেই সাবা করিমের কাজে খুশি ছিলেন না কর্তারা।

ঘরোয়া ক্রিকেট নিয়ে সুনির্দিষ্ট কোনও পরিকল্পনা তৈরি করতে পারেননি সাবা। বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন রাজ্য সংস্থার সঙ্গে মতবিরোধে জড়িয়ে ছিলেন তিনি। এমনকী, বর্তমানে করোনা আবহে ঘরোয়া ক্রিকেট নিয়েও কোনও পরিকল্পনা করতে পারেননি প্রাক্তন উইকেটকিপার। রঞ্জি-সহ বাকি ক্রিকেট কবে থেকে কিভাবে শুরু হতে পারে তা নিয়েও কোনও পরিকল্পনা ছিল না সাবা করিমের। গত শুক্রবার অ্যাপেক্স কাউন্সিলের বৈঠকে তাই ঘরোয়া ক্রিকেট নিয়ে কোনও সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি বোর্ড। তারপরই বোর্ডের তরফ থেকে নাকি সাবাকে পদত্যাগ করতে বলা হয়। আপাতত নোটিস পিরিয়ডে থাকবেন সাবা করিম।

বোর্ড নতুন জেনারেল ম্যানেজার খুঁজবে। বোর্ড কর্তারা কাউকে এই পদে নিয়োগ করতে পারবেন, সেই ক্ষমতা অ্যাপেক্স কাউন্সিলরে তরফ থেকে দেওয়া রয়েছে।  দিন কয়েক আগে পদত্যাগ করেছিলেন বিসিসিআইয়ের সিইও রাহুল জোহরি। এবার পদত্যাগ করলেন সাবা করিম।

অন্যদিকে করোনার ধাক্কায় আগামী মরশুমে বোর্ডের একাধিক টুর্নামেন্ট বাতিল হওয়ার মুখে। মূলত বাতিল হচ্ছে চারটি বড় ঘরোয়া টুর্নামেন্ট। বিজয় হাজারে ট্রফি, দলীপ ট্রফি, দেওধর ট্রফি এবং অনূর্ধ্ব-২৩ সি কে নাইডু টুর্নামেন্টও বাতিল হতে চলেছে বলে সূত্রের খবর। রঞ্জি ট্রফি আয়োজিত হবে। তবে টুর্নামেন্টের ফর্ম্যাট  বদল হতে পারে। সৈয়দ মুস্তাক আলি টি-২০ ট্রফি আয়োজনের চেষ্টা করছেন বোর্ড কর্তারা। সাধারণত সেপ্টেম্বর মাসের শেষ দিকে কিংবা অক্টোবরের শুরুতে ঘরোয়া মরশুম শুরু হয়। কিন্তু এবার সেটা হয়তো তা সম্ভব না। ঘরোয়া ক্রিকেট শুরু হতে নভেম্বরের শেষ হয়ে যেতে পারে বলে মনে করছেন বোর্ড কর্তারা। যার ফলে সময় অনেক কমে যাচ্ছে। সেজন্য টুর্নামেন্টগুলি বাতিল করা ছাড়া উপায় নেই। এমনকী, করোনা পরিস্থিতিতে কতটা ট্রাভেল করে ম্যাচ খেলা সম্ভব সেটা নিয়েও নিশ্চিত নয় বিসিসিআই। তাই চারটি টুর্নামেন্টগুলো বাতিল করার ভাবনা।

Eeron Roy Barman

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: July 20, 2020, 9:28 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर