করোনা ভাইরাস

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

ভাল নেই সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, ফের জ্বর আসায় উদ্বিগ্ন মেডিক্যাল বোর্ড, ভেন্টিলেশনে দেওয়ার ভাবনা

ভাল নেই সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, ফের জ্বর আসায় উদ্বিগ্ন মেডিক্যাল বোর্ড, ভেন্টিলেশনে দেওয়ার ভাবনা
ফাইল ছবি

রবিবার রাত থেকে অভিনেতার শারীরিক অবস্থার অত্যন্ত অবনতি হতে শুরু করে। ফলে চিকিৎসকরা তাঁকে ভেন্টিলেশনে দেওয়ারও ভাবনাচিন্তা শুরু করেছেন।

  • Share this:

#কলকাতা: ছ'দিন হাসপাতালে ভর্তি, তবুও সংকটজনক ফেলুদা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। ভাল নেই অপুর সংসারের সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মঙ্গলবার মিন্টো পার্কের বেলভিউ ক্লিনিকে ভর্তি হন বর্ষীয়ান এই অভিনেতা। তারপর থেকেই তার শারীরিক অবস্থার উত্থান পতন শুরু হয়। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, শুক্রবার বিকেল পর্যন্ত ভাল থাকলেও, বিকেলের পর থেকে তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি শুরু হয়। আইটিইউতে স্থানান্তরিত করতে হয়।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, রবিবার রাতে অভিনেতার শারীরিক অবস্থার অত্যন্ত অবনতি হয়। চিকিৎসকরা তাঁকে ভেন্টিলেশনে দেওয়ারও ভাবনাচিন্তা শুরু করেছেন। ফলে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের পরিবার-পরিজন  থেকে তাঁর কর্ম জগত এবং অসংখ্য অনুরাগী অত্যন্ত উৎকণ্ঠায় রয়েছেন।

বেলভিউয়ের ১০জন চিকিৎসক এবং কলকাতার অন্য সরকারি বেসরকারি হাসপাতালে আরও ৬ জন চিকিৎসক মিলিয়ে মোট ১৬ জনের মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করা হয়। তবে সোমবার সকাল থেকে তার শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়। রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা স্বাভাবিক হয়েছে। আগে যেখানে তাকে প্রতি মিনিটে ১৬ লিটার অক্সিজেন দিতে হচ্ছিল, সেটা কমে মিনিটে ১০ লিটার অক্সিজেন দিতে হচ্ছে। তবে সৌমিত্র বাবুর আচ্ছন্ন ভাব না কাটায় চিকিৎসকরা অত্যন্ত উদ্বিগ্ন। একসঙ্গে তিনি বিড়বিড় করছে অর্থাৎ ভুল বকছেন, অনিয়ন্ত্রিত হাত-পা ছুড়ছেন। যা এখন সবথেকে বেশি ভাবাচ্ছে চিকিৎসকদের। এছাড়াও নতুন করে আবারও জ্বর আসায় চিন্তিত চিকিৎসকরা।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, স্নায়বিক সমস্যা গুলি না কাটলে তাঁকে  ভেন্টিলেশনে দিতে হতে পারে। সোমবার দুপুরে তার এমআরআই করা হয়, যদিও সেই রিপোর্টে কোন উল্লেখযোগ্য সমস্যা পাওয়া যায়নি। এদিকে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন সৌমিত্র বাবু শরীরের অন্যান্য অঙ্গপ্রত্যঙ্গ ভালভাবে কাজ করছে, ফলে তারা আশাবাদী দ্রুত সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় আবার সুস্থ হয়ে উঠবেন।

ABHIJIT CHANDA

Published by: Shubhagata Dey
First published: October 12, 2020, 10:30 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर