corona virus btn
corona virus btn
Loading

জমতে জমতে পাহাড় করোনার পরিত্যক্ত মাস্ক-গ্লাভস! মুক্তির অভিনব পথ দেখাচ্ছেন ভারতীয় যুবক!

জমতে জমতে পাহাড় করোনার পরিত্যক্ত মাস্ক-গ্লাভস! মুক্তির অভিনব পথ দেখাচ্ছেন ভারতীয় যুবক!
নিজের তৈরি করা পিপিই ব্রিক (ইট) হাতে বিনিশ দেশাই।

এই নতুন পিপিই বর্জ্যে তৈরি ইটে পরিত্যক্ত পিপিই-র ভাগ ৫২ শতাংশ এর সঙ্গে মিশছে কাগজের বর্জ্য।

  • Share this:

#গান্ধিনগর: দেশে প্রতিদিন প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ মাস্ক, গ্লাভস, পিপিই কিট জমছে। এই বর্জ্য যে কতটা দূষিত তা নতুন করে বলার অপেক্ষা রাখে না। স্থলভাগ তো বটেই, সমুদ্রগহ্বরেও ছড়িয়ে পড়ছে এই বিষ। এবার এই করোনা বর্জ্য থেকে মুক্তির পথ বাতলালেন এক ২৭ বছর বয়সি যুবক।

গুজরাট নিবাসী পরিবেশবিদ বিনিশ দেশাই গোটা দেশেই পরিচিত নাম। বর্জ্য পদার্থকে ফের ব্যবহার করে তোলার জন্য তিনি রিসাইকেল ম্যান নামে খ্যাত। বিনিশ এবার করোনা বর্জ্য ব্যবহার করে ইট তৈরি করে দেখালেন। এই ইট নির্মাণকার্যে অবাধে ব্যবহার করা যেতে পারে। এবং তাঁর স্বপ্ন সকার হলে বিপুল বায়োকেমিক্যাল বর্জ্যের ভারমুক্ত হবে দেশ।

সেন্ট্রাল পলিউশন কন্ট্রোল বোর্ডের ন্যাশানান গ্রিন ট্রাইবুনাল থেকে জানা যাচ্ছে দেশে প্রতিদিন কোভিড বর্জ্য জমা হচ্ছে ১০১ মেট্রিক টন। এর সঙ্গেই রয়েছ ৬০৯ মেট্রিক টন অন্য বর্জ্য। এইই পরিস্থিতিতেই মাঠে নেমেছেন বিনিশ।

অতীতেও বিনিশ ফেলে দেওয়া চুইংগাম, গাছের নির্যাস, কাগজের মণ্ড ব্যবহার করে ইট তৈরি করেন।

এই নতুন পিপিই বর্জ্যে তৈরি ইটে পরিত্যক্ত পিপিই-র ভাগ ৫২ শতাংশ এর সঙ্গে মিশছে কাগজের বর্জ্য।এই ইটগুলি জলে নষ্ট হবে না, দাহ্য নয় এবং পোকামাকড়ও এর ক্ষতি করতে পারবে না।

বিনিশ দ্যা বেটার ইন্ডিয়ান-কে বলেন, এই ইটটি পি ব্লক ইটের মতোই। আমি শুধু এর মধ্যে সেলাই বিহীন এক কাপরে মাস্ক হেডকভার, গ্লাভস এগুলি মিশিয়েছি। আমি প্রথমে ঘরোয়া ভাবে পরীক্ষা করেছি, এবার ফ্যাক্টরিতে এই ভাবে ইট নির্মাণ শুরু করব।

স্থানীয় ল্যাবোরেটরিতে সুরক্ষার জন্যে পরীক্ষা হলেও করোনার কারণে অনুমোদনের জন্য এখনও ন্যাশানাল ল্যবোরেটরিতে পাঠানো সম্ভব হয়নি।

বিনিশের তৈরি এই ইটটি তৈরি করতে সাত কেজি বায়োকেমিক্যাল বর্জ্য লাগছে। একেকটি ইটের মাপ ১২*৮*৪ ইঞ্চি। প্রতিটি ইটের দাম পড়ছে ২ টাকা ৮০ পয়সা।

দেশজুড়ে এই বর্জ্য সংগ্রহের জন্য ইকো বিনস তৈরি করার কথা ভাবছেন বিনিশ। একেকটি বিন ভরে গেলে ৭২ ঘন্টা তাকে রেখে দেওয়া হবে। এর পরে শুরু হবে তাকে জীবাণুমুক্ত করা। জীবাণুমুক্ত হলেই এর সঙ্গে কাগজের মণ্ড মেশানো হবে। বিনিশ চান, অদূর ভবিষ্যতে এই ইটে সস্তার আইসোলেশান ওয়ার্ড তৈরি করুক সরকার।

Published by: Arka Deb
First published: August 18, 2020, 8:25 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर