• Home
  • »
  • News
  • »
  • coronavirus-latest-news
  • »
  • 'মিনি লকডাউনের' পথে রাজস্থান, ৮ শহরে আজ থেকে জারি নাইট কারফিউ

'মিনি লকডাউনের' পথে রাজস্থান, ৮ শহরে আজ থেকে জারি নাইট কারফিউ

আজমের, ভিলওয়ারা, জয়পুর, যোধপুর, কোটা, উদয়পুর, সাগওয়ারা ও কুশলগড়ের মতো শহরগুলিতে রাত ১১টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত কারফিউ জারি থাকবে বলে রাজ্য সরকারের তরফে জানানো হয়েছে।

আজমের, ভিলওয়ারা, জয়পুর, যোধপুর, কোটা, উদয়পুর, সাগওয়ারা ও কুশলগড়ের মতো শহরগুলিতে রাত ১১টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত কারফিউ জারি থাকবে বলে রাজ্য সরকারের তরফে জানানো হয়েছে।

আজমের, ভিলওয়ারা, জয়পুর, যোধপুর, কোটা, উদয়পুর, সাগওয়ারা ও কুশলগড়ের মতো শহরগুলিতে রাত ১১টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত কারফিউ জারি থাকবে বলে রাজ্য সরকারের তরফে জানানো হয়েছে।

  • Share this:

    #জয়পুর : করোনার লাগামছাড়া বাড়বাড়ন্তে ইতিমধ্যেই লকডাউন জারি হয়েছে মহারাষ্ট্রে। উত্তরপ্রদেশের নয়ডায় জারি করা হয়েছে ১৪৪ ধারা। এবার করোনা ঠেকাতে বড়সড় পদক্ষেপ নিল রাজস্থান সরকারও। করোনার লাগাম ছাড়া বাড়বাড়ন্তের জেরে সোমবার থেকেই নাইট কারফিউ জারি করা হচ্ছে রাজস্থানের ৮টি শহরে। তার মধ্যে রয়েছে আজমের, ভিলওয়ারা, জয়পুর, যোধপুর, কোটা, উদয়পুর, সাগওয়ারা ও কুশলগড়ের মতো শহরগুলি। রাত ১১টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত কারফিউ জারি থাকবে বলে রাজ্য সরকারের তরফে জানানো হয়েছে।

    শুধু তাই নয়, ভ্রমণ, বাণিজ্য বা অন্য যে কোনও কাজে সংশ্লিষ্ট রাজ্যগুলিতে প্রবেশের ক্ষেত্রে করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট বাধ্যতামূলক করতে চলেছে রাজস্থান সরকার। ২৫ মার্চ থেকে এই নিয়ম কার্যকর হবে বলে জানানো হয়েছে। পাশাপাশি কোভিড বিধি না মানলে থাকছে কড়া ব্যবস্থা। এদিকে লকডাউনের পর খুললেও করোনার বাড়বাড়ন্তের জন্য ফের রাজ্যের সমস্ত প্রাথমিক স্কুলগুলি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। পরবর্তী নোটিশ না দেওয়া পর্যন্ত স্কুলগুলি বন্ধই থাকবে বলে জানিয়েছে সেখানকার রাজ্য প্রশাসন। সোমবার রাত দশটা পর্যন্ত সমস্ত পৌর এলাকার বাজার গুলিও বন্ধ থাকবে বলে সরকারি ভাবে জানানো হয়েছে।

    শনিবার রাজস্থানে ৪৪৫ জন করোনা আক্রান্তের খোঁজ মেলে। এখনও পর্যন্ত গোটা রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ লক্ষ ২৪ হাজার ৯৪৮। যদিও আশার খবর এই যে গত ২র্ ঘণ্টায় গোটা রাজ্যে প্রাণ হারানি একজনও ব্যক্তি।

    দেশের ঊর্ধ্বমুখী কোভিড গ্রাফে সব রাজ্যগুলিতেই বাড়ছে করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কা। সিঁদুরে মেঘ দেখছে প্রশাসন। সচেতনতা বাড়াতে কোনওরকম ফাঁক রাখতে চাইছে না কোনও রাজ্যই। গোটা দেশে একদিনে মৃত্যু পেরিয়েছে ২০০ -র গন্ডি। পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হলেন ৪৬ হাজার ৯৫১ জন। মৃত্যু হয়েছে ২১২ জনের। তুলনায় সুস্থতার হার অনেকটাই কম। একদিনে করোনার কবল থেকে সুস্থ হয়ে ফিরেছেন ২১ হাজার ১৮০ জন। এই মুহূর্তে দেশে অ্যাকটিভ করোনা রোগীর সংখ্যা ৩ লক্ষ ৩৪ হাজার ৬৪৬।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: