corona virus btn
corona virus btn
Loading

চাকার হাওয়া বের করে দেওয়া হচ্ছে, নেওয়া হচ্ছে গাড়ি চাবিও ! লকডাউনে অত্যন্ত কড়া পুলিশ

চাকার হাওয়া বের করে দেওয়া হচ্ছে, নেওয়া হচ্ছে গাড়ি চাবিও ! লকডাউনে অত্যন্ত কড়া পুলিশ

এই লকডাউন পিরিয়ডে সাধারন মানুষ যাতে রাস্তায় না বের হয়, সেজন্য ব্যাপক প্রচার চালানো হচ্ছে ৷

  • Share this:

#রায়গঞ্জ: লকডাউন পিরিয়ড চলাকালীন সাধারণ মানুষকে ঘরমুখী করতে বিশেষ তৎপর হল রায়গঞ্জ থানার ট্রাফিক পুলিশ এবং রায়গঞ্জ পরিবহন দফতর। লকডাউন অমান্য করে রায়গঞ্জের রাস্তায় যেসব টোটো  রিকশ, মোটরবাইক এবং চার চাকার গাড়ি রাস্তায় নামছে সেই সমস্ত গাড়ি আটকে আইনানুযায়ী পদক্ষেপ গ্রহণ করছে পুলিশ। কোনও সময় গাড়ির চাকার হাওয়াও বের করে দেওয়া হচ্ছে ৷ পুলিশের এই উদ্যোগে রায়গঞ্জ শহরে লক ডাউন অনেকটাই সফল করা সম্ভব বলে ধারনা সচেতন নাগরিকদের।

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে দেশজুড়ে চলছে লকডাউন।  এই লকডাউন পিরিয়ডে সাধারন মানুষ যাতে রাস্তায় না বের হয়, সেজন্য ব্যাপক প্রচার ও সচেতন করার উদ্যোগ নিয়েছে জেলা পুলিশ প্রশাসন।  কিন্তু উত্তর দিনাজপুর জেলা সদর রায়গঞ্জ শহরে লকডাউন অমান্য করে বেশকিছু টোটো এবং রিকশ চলাচল করছে। ফলে ব্যাহত হচ্ছে লক ডাউন।

প্রথমে রায়গঞ্জ থানার পুলিশের পক্ষ থেকে এইসব টোটোচালক ও রিকশচালকদের সচেতন ও সতর্ক করা হয়। কিন্তু তা সত্বেও বেশকিছু টোটো ও রিক্সা,মোটরবাইক,চারচাকার গাড়ি নিয়ে  রাস্তায় চলাচল করছে। তাদের বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা গ্রহন করতেই বুধবার রায়গঞ্জ থানার ট্রাফিক পুলিশ , আর টি ও দফতর। রাস্তায় নেমে চলাচলকারী টোটো ও রিকশগুলি ধরে সেগুলোর চাকার হাওয়া ছেড়ে দেওয়া হয় এছাড়াও শহরের মূল রাস্তা ঘড়িমোড়ে দাড়িয়ে অহেতুক ঘোরাঘুরিকারিদের গাড়ি আটকে আইননুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়। তোতন সিং নামে এক টোটো চালক জানিয়েছেন,তার গাড়ির চাবি পুলিশ নিয়ে নিয়েছে। তিনি প্রসূতি রোগীকে আনতে নার্সিং হোমে যাচ্ছিলেন। এদিনই তিনি প্রথম রাস্তায় বের হলেন।লকডাউন চলাকালীন তিনি টোটো চালাননি। পুলিশ গাড়ির চাবি দিয়ে দিলেই বাড়ি ফিরে যেতেন।কিন্তু পুলিশ তার অনুরোধ রাখেন নি।

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: April 8, 2020, 11:28 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर