corona virus btn
corona virus btn
Loading

লকডাউনের মুখে বিজেপির কোনও জমায়েত নয়, সচেতন করতে এসে বিতর্কে রাহুল!

লকডাউনের মুখে বিজেপির কোনও জমায়েত নয়, সচেতন করতে এসে বিতর্কে রাহুল!

বিজেপির একাংশের মতে, " রাহুল সিনহা নিজেই মানুষকে সাবধান করতে গিয়ে বলেছেন, এই রোগ ছোঁয়াছুঁয়ি থেকে সংক্রামিত হয়। অথচ, সচেতনতা শিবিরে সেই ছোঁয়াছুঁয়ি কি এড়ানো সম্ভব?

  • Share this:

#কলকাতা: করোনা সংক্রমন রুখতে, রাস্তায় না বেরিয়ে ঘরে থাকার জন্য মানুষকে সচেতন করতে  রাস্তায় নেমে প্রচার? সোমবার কলকাতার গিরীশ পার্কের কাছে করোনা সচেতনতা শিবির পরিদর্শনে যান বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা রাহুল সিনহা। রাজনৈতিক মহলের মতে, লকডাউনের স্বপক্ষে মানুষকে সচেতন করতে গিয়ে রাস্তায় নেমে প্রচার করে নতুন করে বিতর্ক তৈরি করলেন রাহুল সিনহা।

গিরীশ পার্কের বিজেপির শিবিরের একধারে ঠায়  দাঁড়িয়ে তিনি। তিনি উত্তর কলকাতার বিজেপির এক প্রবীন রাজ্য নেতা। অনুষ্ঠানের শেষে,  সমালোচনার সুরে বলেন, " করোনা পরিস্থিতির জেরে আগামী ৩১ শে মার্চ পর্যন্ত দলীয় সব কর্মসূচি স্থগিত রাখার নির্দেশ দিয়েছেন সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা। ফলে, সরাসরি  রাজনৈতিক কর্মসূচি করার জো নেই। দলীয় কর্মীদের একাংশ তাই, সচেতনতা শিবিরের নামে সস্তা প্রচারের লোভে রাস্তায় নেমে পড়েছে। "গিরীশ পার্কের কাছে দলীয় শিবির পরিদর্শনে গিয়ে রাহুল বলেন, ''এই রোগ ছোঁয়া থেকে ছড়াচ্ছে, এই রোগ মানুষের কথা বলা থেকে সংক্রামিত হচ্ছে, তাই তাকে আটকাতে হলে গৃহবন্দী থাকতে হবে। এটাই একমাত্র পথ। "

মোদীর ''জনতা কার্ফু"র সাফল্যের পর, রাজ্য সরকারের লক ডাউনকেও ''সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত " বলে মন্তব্য করে,  রাজ্য সরকারের সঙ্গে সহযোগিতার বার্তাও দেন রাহুল। ইতালির ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে মারণরোগের হাত থেকে বাঁচতে নিজেকে আক্ষরিক অর্থে " গৃহবন্দী" থাকার পক্ষেও জোর সওয়াল করেন তিনি। রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে, লকডাউনকে স্বাগত জানিয়ে আম জনতাকে তাতে সামিল হবার কথা বলে বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা রাজনৈতিক  বিচক্ষণতার পরিচয় দিয়েছেন।  যদিও, করোনা সচেতনতা শিবিরের নামে, জমায়েত ও রাস্তায় নেমে প্রচার নিয়ে তার দলের মধ্যেই প্রশ্ন উঠে গিয়েছে।

বিজেপির একাংশের মতে, " রাহুল সিনহা নিজেই মানুষকে সাবধান করতে গিয়ে বলেছেন, এই রোগ ছোঁয়াছুঁয়ি থেকে সংক্রামিত হয়। অথচ, সচেতনতা শিবিরে সেই ছোঁয়াছুঁয়ি কি এড়ানো সম্ভব?  তাহলে, রাহুলের মত বিচক্ষণ নেতার উপস্থিতিতে এমন নজির তৈরি করে কোন বার্তা দিল বিজেপি?   যদিও, এ বিষয়ে রাহুল ঘনিষ্ঠ এক নেতার সাফাই, ''দলীয় কর্মসূচি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত হলেও, মানুষকে করোনার বিপদ নিয়ে সচেতন করা ও তার পাশে দাঁড়ানোর নির্দেশও দিয়েছে দল। গিরীশ পার্কের শিবিরে কোন জমায়েত করা হয় নি। স্বাস্থ্যকর্মী যেমন তার দায়িত্ব পালন থেকে অব্যহতি নিতে পারেন না। তেমনি, রাজনৈতিক নেতা, কর্মীরাও মানুষকে দূরে সরিয়ে রাখতে পারেন না। "

First published: March 23, 2020, 11:52 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर