corona virus btn
corona virus btn
Loading

নাটক,রবীন্দ্রসঙ্গীত,নৃত্য, পেন্টিংয়ের মতো বিভাগগুলিতে স্নাতক স্তরে ভর্তি অনিশ্চিত! সমস্যায় রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়

নাটক,রবীন্দ্রসঙ্গীত,নৃত্য, পেন্টিংয়ের মতো বিভাগগুলিতে স্নাতক স্তরে ভর্তি অনিশ্চিত! সমস্যায় রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়

করোনা আবহে বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে বা অনলাইনে লিখিত পরীক্ষা করা সম্ভব হলেও প্র্যাক্টিকাল পরীক্ষা এখন প্রায় অসম্ভব। তাই আপাতত ফাইন আর্টস ও ভিসুয়াল আর্টস-এর বিভাগগুলির ভর্তি প্রক্রিয়া কার্যত অসম্পূর্ণ থেকে যেতে চলেছে।

  • Share this:

#কলকাতা: করোনা আবহে এবার ভর্তি নিয়ে জট রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়কে অনেকটাই চিন্তার মধ্যে ফেলল। কলা বিভাগের ভর্তি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা গেলেও ভিজুয়াল আর্টস এবং ফাইন আর্টসের ভর্তি প্রক্রিয়া কিভাবে সম্পন্ন হবে তা নিয়ে চিন্তায় রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। কেননা ভিজুয়াল আর্টস এবং ফাইন আর্টসের অধীনে যে সমস্ত বিভাগগুলি রয়েছে সেই বিভাগগুলির ছাত্র-ছাত্রীদের ভর্তি নেওয়া হয়  লিখিত এবং প্র্যাকটিক্যাল পরীক্ষার মাধ্যমে। কেননা এই বিভাগগুলিতে ভর্তির ক্ষেত্রে উচ্চমাধ্যমিকের নম্বরকে গুরুত্ব দেওয়া হয় না। সরাসরি যেহেতু এই বিভাগগুলির সঙ্গে উচ্চমাধ্যমিকে যোগসূত্র থাকে না তাই বিশ্ববিদ্যালয় এই বিভাগগুলিতে ভর্তির জন্য এই দুই ধরনের পরীক্ষা নেয়। কিন্তু বর্তমানে করোনা আবহে বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে বা অনলাইনে লিখিত পরীক্ষা করা সম্ভব হলেও প্র্যাক্টিকাল পরীক্ষা এখন প্রায় অসম্ভব। তাই আপাতত ফাইন আর্টস ও ভিসুয়াল আর্টস-এর বিভাগগুলির ভর্তি প্রক্রিয়া কার্যত অসম্পূর্ণ থেকে যেতে চলেছে।

উপাচার্য সব্যসাচী বসু রায়চৌধুরী জানিয়েছেন " ফাইন আর্টস ও ভিজুয়াল আর্টসের ভর্তির ক্ষেত্রে একটা সমস্যা রয়েছে। কারণ এই বিভাগগুলিতে ভর্তির ক্ষেত্রে কোন ছাত্র-ছাত্রী সে গান গাইতে পারে কিনা,নাচতে পারে কিনা, আঁকতে পারে কিনা বা বাদ্যযন্ত্র বাজাতে পারে কিনা সেটা দেখা হয়। অনেক ছাত্র-ছাত্রী উচ্চমাধ্যমিকে বেশি নম্বর পেয়ে আবেদন করেন আবার কম নম্বর পেয়েও আবেদন করেন কিন্তু এই বিষয়গুলোর ক্ষেত্রে উচ্চমাধ্যমিকের নম্বরের নিরিখে ভর্তি নেওয়া হয় না আমাদের। তাই এই দুটি বিভাগের ক্ষেত্রে ভর্তিতে একটু সমস্যা আছে আমাদের। তাই আমাদের ফর্ম তোলা ও জমা নেওয়ার প্রক্রিয়াটি আপাতত স্থগিত হয়ে থাকবে। কিন্তু এই লিখিত এবং প্র্যাকটিক্যাল পরীক্ষা না হলে ভর্তি প্রক্রিয়াটি আমাদের কাছে অত্যন্ত কঠিন হয়ে পড়ছে।"

রাজ্যের উচ্চ শিক্ষা দফতরের তরফে প্রত্যেকটি বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজ গুলিকে আগামী ১০ অগাস্ট অর্থাৎ সোমবার থেকেই ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু করার নির্দেশিকা দেওয়া হয়েছিল। ইতিমধ্যেই রাজ্যের বেশ কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজগুলি অনলাইন মারফত  ভর্তি প্রক্রিয়া জন্য ফর্ম তোলা ও জমা নেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করেছে । যদিও প্রেসিডেন্সি এবং যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো বিশ্ববিদ্যালয়গুলো এখনো পর্যন্ত সিদ্ধান্তে আসতে পারিনি ভর্তি প্রক্রিয়া নিয়ে। এবার তারই মধ্যে রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি প্রক্রিয়া নিয়ে জট তৈরি হল। বিশেষত ফাইন আর্টস ও ভিসুয়াল আর্টস বিভাগের অধীনে যে সমস্ত বিভাগ বা বিষয়গুলি রয়েছে সেই বিষয়গুলিতে স্নাতক স্তরের প্রথম বর্ষের ছাত্র ছাত্রীদের ভর্তির ক্ষেত্রে এই সমস্যা তৈরি হয়েছে। ফাইন্যান্স বিভাগের অধীনে নৃত্য,নাটক,মিউজিকলজি, ভোকাল মিউজিক, রবীন্দ্র সঙ্গীত, ইন্সট্রুমেন্টাল মিউজিক  মত বিভাগগুলি যেমন রয়েছে তেমনি ভিজুয়াল আর্ট এর অধীনে পেন্টিং,স্কাল্পচার, গ্রাফিক্স এন্ড প্রিন্ট মেকিং,হিস্ট্রি অফ আর্ট, মিউজিওলজি। মূলত এই বিভাগ গুলিকে ভর্তির ক্ষেত্রে প্রত্যেক বছরই রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ প্রথমে লিখিত পরীক্ষা এবং তারপরে লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলে প্রাকটিক্যাল পরীক্ষা নেয়। কিন্তু এবছর করণা আবহে এই বিভাগগুলির লিখিত পরীক্ষা অনলাইনে করা সম্ভব হলেও প্রাকটিক্যাল পরীক্ষা কীভাবে সম্ভব তা নিয়ে চিন্তায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর এই দুটি বিভাগ মিলিয়ে ছাত্র-ছাত্রী ভর্তির সংখ্যা প্রায় ৭০০। যেখানে ফাইন আর্টস এর অধীনে বিভাগগুলি তে ভর্তি হওয়ার জন্য ছাত্র-ছাত্রীদের চাহিদা বিপুল থাকে। আর তাই নাটক,নৃত্য, রবীন্দ্রসঙ্গীতের মতো বিভাগগুলি তে ভর্তির আসন সংখ্যা ১০০ টির বেশি রয়েছে। অন্যদিকে শুধুমাত্র এদেশের ছাত্র ছাত্রী নয় বিদেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে বহু ছাত্র-ছাত্রী এই ফাইন আর্টস এবং ভিসুয়াল আর্টস এর অধীনে বিভাগগুলোতে পড়তে আসে। বর্তমানে করোনা আবহে বিদেশ থেকে কিভাবে ছাত্রছাত্রীরা আসবেন সেটাও কার্যত অনিশ্চিত বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের তবে আপাতত আটর্স বা কলা বিভাগের অধীনে থাকা যে সমস্ত বিভাগগুলি রয়েছে সেই বিভাগগুলি ভর্তি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে রাখা হবে। আর অন্যদিকে এই দুই বিভাগের ভর্তি প্রক্রিয়া কার্যত অনিশ্চিত হয়ে পড়ল এই পরিস্থিতিতে।

সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by: Elina Datta
First published: August 10, 2020, 4:35 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर