• Home
  • »
  • News
  • »
  • coronavirus-latest-news
  • »
  • শনিবার থেকে উত্তর দিনাজপুর জেলায় বেসরকারি বাস পরিষেবা চালু হচ্ছে, যাত্রীদের মাস্ক-হ্যান্ড স্যানিটাইজার বাধ্যতামূলক

শনিবার থেকে উত্তর দিনাজপুর জেলায় বেসরকারি বাস পরিষেবা চালু হচ্ছে, যাত্রীদের মাস্ক-হ্যান্ড স্যানিটাইজার বাধ্যতামূলক

  • Share this:
# রায়গঞ্জ: অবশেষে সব জটিলতা কাটিয়ে শনিবার থেকে উত্তর দিনাজপুর জেলায়  চালু হচ্ছে বেসরকারি বাস পরিষেবা।  শুক্রবার সকাল থেকেই মাইকিংয়ের মাধ্যমে একথা প্রচার করা শুরু করেছে উত্তর দিনাজপুর জেলা মোটর ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন। বাসে চাপতে গেলে কি কি বিধিনিষেধ মেনে চলতে হবে বা কি কি  সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে তাও প্রচার চালাচ্ছেন বাস মালিকদের সংগঠন।  প্রায় তিনমাস বেসরকারি বাস পরিষেবা বন্ধ থাকার পর তা চালু হওয়ার ঘোষণায় খুশী পরিবহন কর্মীরা। বেসরকারি বাস পরিষেবা চালু করতে বদ্ধপরিকর ছিলেন জেলার তৃণমূল পরিবহন শ্রমিক সংগঠনও। স্বাভাবিকভাবে খুশী তারাও। জেলা প্রশাসনের সাথে বৈঠকের পর অন্যান্য দাবিগুলো বজায় রেখে ভাড়া বৃদ্ধির দাবিকে আপাতত স্থগিত রেখে জেলার মানুষের পরিষেবা দিতে আগামী শনিবার থেকে উত্তর দিনাজপুর জেলায় বেসরকারি বাস পরিষেবা চালু করতে চলেছে উত্তর দিনাজপুর বাস মোটর ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন। উত্তর দিনাজপুর জেলা বাস মিনিবাস ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক প্লাবন কুমার প্রামানিক জানিয়েছেন,  সাধারন মানুষকে বেসরকারি বাস পরিষেবা দিতে সরকারের সিদ্ধান্তকে মেনে নিয়ে আমরা আগামী ৬ জুন শনিবার থেকে বাস রাস্তায় নামাচ্ছি। তবে এই বাস চলার ক্ষেত্রে যাত্রী সাধারনের জন্য বেশকিছু বিধিনিষেধ আরোপ করা হচ্ছে। যারমধ্যে থাকছে আসন অনুযায়ী থাকবে বাসের যাত্রী সংখ্যা। প্রতিটি যাত্রীকে মাস্ক ও স্যানিটাইজার ব্যবহার করা বাধ্যতামূলক।  এই মুহুর্তে কোনও ডেইলি প্যাসেঞ্জার ভাড়া বা ছাত্রছাত্রীর ভাড়ায় ছাড় দেওয়া হবে না। তবে প্রশাসনের নির্দেশ মেনে পুরনো ভাড়াতেই বাস চালাবেন বাস মালিকেরা। লক ডাউনের পরে জেলায় প্রথম বেসরকারি বাস পরিষেবা চালু করার উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন জেলাবাসী।বাস  কর্মী অবনী সরকার জানিয়েছেন,পেটের জন্য তারা বাসে কাজ করবেন। তবে আতঙ্ক তাদের থাকছেই। সিটের বাইরে যাত্রীরা বাসে উঠতে চাইলে সেক্ষেত্রে যাত্রীদের কাছে না ওঠার অনুরোধ করা হবে। তাতে কোন সমস্যা দেখা দিলে তারা প্রশাসনের দ্বারস্থ হবেন। দীর্ঘ তিন মাস কাজ না থাকায় তারা চরম সমস্যার মধ্যে দিন কাটিয়েছেন।বাস চালু হলে কিছুটা হলেও তারা সুখের মুখ দেখবেন দাবি করেছেন বাস চালক সুব্রত সরকার। Uttam Paul
Published by:Elina Datta
First published: