corona virus btn
corona virus btn
Loading

এখনও যেন মানুষ সচেতন নন, লকডাউনে পুলিশি লাঠিপেটা-আটক একাধিক

এখনও যেন মানুষ সচেতন নন, লকডাউনে পুলিশি লাঠিপেটা-আটক একাধিক

আড্ডা শুরু হয় বিভিন্ন চায়ের দোকানের ঠেকে। অনেক কৌতুহলী মানুষ কাজ ছাড়ায় মোটরবাইক নিয়ে বেড়িয়ে পড়েন শহরে। সকাল নয়টার দিকে শহরে কৌতুহলী লোকজনের আনাগোনা বাড়াতেই কড়া হাতে লকডাউন অভিযান শুরু করে মালদা পুলিশ।

  • Share this:

#মালদহ: লকডাউনের সকাল থেকেই পুলিশি সক্রিয়তায় ঘরবন্দী হল মালদহ। মঙ্গলবার সকাল থেকে মালদহে বিভিন্ন দৈনিক বাজারে ভিড় করেন মানুষ। আড্ডা শুরু হয় বিভিন্ন চায়ের দোকানের ঠেকে। অনেক কৌতুহলী মানুষ কাজ ছাড়ায় মোটরবাইক নিয়ে বেড়িয়ে পড়েন শহরে। সকাল নয়টার দিকে শহরে কৌতুহলী লোকজনের আনাগোনা বাড়াতেই কড়া হাতে লকডাউন অভিযান শুরু করে মালদা পুলিশ।

মালদহের ডি,এস,পি প্রশান্ত দেবনাথের নেতৃত্বে  ইংরেজবাজার থানার পুলিশ বিভিন্ন রাস্তার মোড়ে হানা দেয়। নিয়ম না মানায় বেশ কয়েকজনকে লাঠিপেটা করা হয়। শহরের রবীন্দ্র এভিনিউ, পোষ্ট অফিস মোড়, মালঞ্চপল্লী, কৃষ্ণপল্লী, নেতাজী মোড়, গৌড় রোড মোড়, নেতাজী মার্কেট, ফুলবাড়ি মোড়, সদরঘাট বাজার প্রভৃতি এলাকায় চলে পুলিশি হানাদারি। পথচলতি লোকজনকে থামিয়ে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করে ঠিক কী প্রয়োজনে পথে বের হতে হয়েছে।

মালদা শহরের বেলা পর্যন্ত লকডাউন না মানার অভিযোগে চারজনকে  আটক করে পুলিশ। সকাল দশটা বাজার পরেই পুলিশ জানিয়ে দেয় দিনভর সবজি বাজার খোলা রাখা যাবে না। মুদিখানা দোকানগুলিতে যেসব জায়গায় ভিড় জমে, সেখানেও পুলিশ জানিয়ে দেয় একসঙ্গে পাঁচ থেকে সাতজনের বেশী ভিড় করা যাবে না। দোকানের সামনে ভিড় জমলে প্রয়োজনে দোকান মালিকের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এভাবেই বেলা বাড়তেই পুলিশি অভিযানের খবর ছড়ানোয় ক্রমশ ফাঁকা হয়ে যায় শহর। দুপুরের পর হাতে গোনা লোকজন ছাড়া মালদা শহর ছিল কার্যত শুনশান।

First published: March 24, 2020, 6:34 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर