corona virus btn
corona virus btn
Loading

মালদহে মুদিখানা, রেশন, ওষুধ দোকানের সামনে গণ্ডি কেটে সোশ্যাল দূরত্বের পাঠ শেখাল পুলিশ !

মালদহে মুদিখানা, রেশন, ওষুধ দোকানের সামনে গণ্ডি কেটে সোশ্যাল দূরত্বের পাঠ শেখাল পুলিশ !

লকডাউনে মানুষের মধ্যে সামাজিক দূরুত্ব বজায় রাখতে আপাতত এই পদ্ধতিকেই হাতিয়ার করছে পুলিশ।

  • Share this:

#মালদহ : মালদহে অত্যাবশ্যকীয় পন্য সামগ্রীর দোকানে একসঙ্গে ভিড় করে কেনাকাটা ঠেকাতে গণ্ডি কাটল পুলিশ। কার্যত লক্ষ্মণ রেখা বেঁধে দেওয়া হল ক্রেতাদের। মালদা শহরে ওষুধের দোকান থেকে রতুয়ার মুদিখানা দোকান আবার বামনগোলার অত্যাবশ্যকীয় পন্যের দোকান সর্বত্রই এই পদ্ধতি কার্যকর করল পুলিশ। লকডাউনে মানুষের মধ্যে সামাজিক দূরুত্ব বজায় রাখতে আপাতত এই পদ্ধতিকেই হাতিয়ার করছে পুলিশ।

সকালে মালদহ শহরে অভিযানে নেমে জরুরি জিনিসপত্র কেনাকাটা করার সময় কিছু দোকানে ক্রেতাদের গা-ঘেঁষাঘেষি করে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখেন ডিএসপি। এরপরেই মালদহে প্রথম এই পদক্ষেপ শুরু করেন মালদহের ডেপুটি পুলিশ সুপার প্রশান্ত দেবনাথ। শহরের মহেশমাটি এলাকায় মুদিখানার দোকান থেকে চক নিয়ে তা দিয়েই দোকানে বিক্রেতার থেকে এক মিটার দূরে কেঁটে দেন চৌকো দাগ। ক্রেতা ও বিক্রেতা উভয়কেই জানিয়ে দেওয়া হয়, আপাতত এই পদ্ধতিতেই চলবে জরুরি সামগ্রী কেনাবেচা। কোনো অবস্থাতেই একসঙ্গে জমায়েত করে লেনদেন নিষিদ্ধ।  এরপর কে,জি, সান্যাল রোডে ওষুধের দোকানের সামনে ভিড় এড়াতে একই পদক্ষেপ নেওয়া হয়। বেলার দিকে একই পদ্ধতি অনুসরন করে মালদহের রতুয়া ও বামনগোলা থানার পুলিশ। বামনগোলা থানা এলাকায় পুলিশ রেশন ও মুদিখানা দোকানের সামনে গণ্ডি কেঁটে ক্রেতাদের দাঁড়ানোর জায়গা নির্দিষ্ট করে দেন। একই ছবি ধরা পড়ে মালদহের রতুয়ার মুদিখানার দোকানে। এখানেও পুলিশ গিয়ে নির্দিষ্ট ব্যবধানে ক্রেতাদের দাঁড়ানোর জন্য গণ্ডি কেটে দেয়। পুলিশের এই ব্যবস্থায় খুশী ক্রেতা বিক্রেতা উভয়েই। পুলিশি উদ্যোগের পর দিনভর এই ভাবেই সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে চলতে থাকে কেনাবেচা।

 সেবক দেবশর্মা

First published: March 25, 2020, 11:50 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर