বহুবার বলেও কাজ না হতে চুন দিয়ে সাদা গন্ডি কেটে দিল পুলিশ 

বহুবার বলেও কাজ না হতে চুন দিয়ে সাদা গন্ডি কেটে দিল পুলিশ 

দোকানে গিয়ে শুরু সাধারণ মানুষকে বোঝানো নয়, তাঁদের জন্য দোকানের সামনে চুন দিয়ে গোল করে দেওয়া হল। আবেদন, সবাই বাজার বা প্রয়োজনীয় জিনিস কিনুন, তবে থাকুন সেই গন্ডির মধ্যেই।

  • Share this:

Susovan Bhattacharjee

#কলকাতা: একই শহরের বিভিন্ন ছবি, কোন দোকানে হুড়োহুড়ি আবার কোন দোকানে গা ঘেঁষাঘেঁষি।  হাজারো আবেদন, অনুরোধ করেও মিলছে না সুফল। সরকারি তরফে বারবার অনুরোধ, পুলিশের তরফে আবেদন, তা সত্ত্বেও নিজেদের সচেতনতার অভাবটাই বারবার মনে করছেন সমাজের বৃহৎ অংশ। এবার সেই পুলিশকেই হুঁশ ফেরাতে যেতে হল দোকানে। দোকানে গিয়ে শুরু সাধারণ মানুষকে বোঝানো নয়, তাঁদের জন্য দোকানের সামনে চুন দিয়ে গোল করে দেওয়া হল। আবেদন, সবাই বাজার বা প্রয়োজনীয় জিনিস কিনুন, তবে থাকুন সেই গন্ডির মধ্যেই।

করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে দুরত্ব বজায় রাখার কথা যখন বলা হচ্ছে, তখন তা অমান্য করতে দেখা গিয়েছে কলকাতা শহরেই। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মঙ্গলবার রাতে ঘোষণা পরেই দোকানের সামনে বিভিন্ন লোকের জমায়েত দেখে কার্যত উদ্বেগ বাড়িয়ে দিয়েছে। ছবিটার কোনও পরিবর্তন হয়নি বুধবার সকালেও। তবে সেই বুধবারই একই শহরে দেখা মিলল অন্য ধরণের ছবি। যেখানে সবাই বাজার করছেন, তবে গা ঘেঁষাঘেঁষি করে না, সবাই আছেন নিদিষ্ট দুরত্বে। যা দেখে উদ্বেগের মধ্যেও একটু স্বস্তি বলে মনে করছেন এই শহরবাসী। চিকিৎসকদের মতে, আমরা অনেক কিছুই জানি, তবে মানি না। এই ধরণের লক্ষ্মণ রেখা ছোট বেলায় থাকত। বুধবার সকালে ট্যাংড়া ও উল্টোডাঙ্গা অঞ্চলে বাজার করতে এসে দেখেন লক্ষ্মণ রেখা। সেটা দেখে কিছুটা অবাক হলেও পরে বুঝতে পারেন, শুধুমাত্র নিজেদের কথা ভেবেই এই দুরত্ব। শহরের অনেকেই রসিকতার সঙ্গে বলছেন, কোরোনার জেরে এবার লক্ষ্মণ রেখাও দেখতে হল।

First published: March 25, 2020, 12:35 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर