কালোবাজারি রুখতে পুলিশ মাইকিং করল বর্ধমানে

কালোবাজারি রুখতে পুলিশ মাইকিং করল বর্ধমানে

মাইকে বলা হয়, সবজি বাজার খোলা থাকবে। মুদিখানা দোকান, পেট্রল পাম্প খোলা থাকবে।

  • Share this:

#বর্ধমান: বর্ধমানে কালোবাজারি রুখতে মাইকিং শুরু করল প্রশাসন। রাজ্য জুড়ে লক ডাউনের আগে বর্ধমান শহর জুড়ে মাইকে জনগনকে সচেতন করতে প্রচার চালালো পুলিশ। ২৭ মার্চ রাত ১২টা পর্যন্ত রাজ্য জুড়ে লক ডাউন চললেও সবজি, মুদিখানা দোকান-সহ জরুরি পরিষেবা চালু থাকবে বলে এলাকায় এলাকায় মাইকিং করে প্রচার চালায় পুলিশ। লক ডাউনের ঘোষনা হতেই জেলা জুড়ে খাদ্য সামগ্রী মজুত করার হিড়িক পড়ে গিয়েছে। চারদিকে কালোবাজারির অভিযোগ উঠছে। তা সামাল দিতেই এই প্রচার বলে জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে।

মাইকে বলা হয়, সবজি বাজার খোলা থাকবে। মুদিখানা দোকান, পেট্রল পাম্প খোলা থাকবে। তাই অযথা গুজব রটাবেন না। কালো বাজারি করা হলে কঠোর শাস্তি দেবে প্রশাসন। লক ডাউনের কর্মসূচি ঘোষণা হতেই রবিবার রাত থেকেই কাঁচা আনাজ খাদ্য সামগ্রী মজুতের হিড়িক পড়ে যায়। খুব তাড়াতাড়ি জোগান ফুরিয়ে যাবে এই আশঙ্কায় অনেকেই বাড়তি পরিমান চাল ডাল তেল চিনি আটা কেনা শুরু করে দেন। সাধারণ মানুষের আকাশ ছোঁয়া চাহিদার সঙ্গে তাল মিলিয়ে জিনিস পত্রের দাম বাড়তে শুরু করে। আলু, পেঁয়াজ, চাল, ডাল সব জিনিসেরই দাম বেড়েছে। সবজির দামও আকাশ ছোঁয়া। গতকাল রাত থেকেই বিভিন্ন বাজারে হানা দেয় পুলিশ। বাজারে বাজারে টহল দেয় টাস্ক ফোর্স। এরপরই মাইকিং করে জনগনকে সচেতন করার উদ্যোগ নেয় প্রশাসন।

জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, লক ডাউনের সময় সবাইকে বাড়িতে থাকার আবেদন জানানো হচ্ছে। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাইরে না বেরনোই উচিত। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে এই লক ডাউনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। নিজের ও পরিবারের সকলের স্বার্থে এখন ঘরে থাকা প্রয়োজন। সেইসঙ্গে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকারও পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। হোম কোয়ারান্টিনে থাকা পুরুষ মহিলারা কোনও ভাবেই যাতে বাইরে না আসেন তা নিশ্চিত করতে বাড়ির বাইরে সিভিক ভলান্টিয়ার মোতায়েন করা হয়েছে।

Saradindu Ghosh

First published: March 23, 2020, 5:43 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर