corona virus btn
corona virus btn
Loading

‘প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে এরা কাজ করছেন বলেই, আমরা সুস্থভাবে ঘরে থাকতে পারছি’, ট্যুইটে এবার ছোট দোকানদার-ব্যবসায়ীদের প্রশংসা মোদির

‘প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে এরা কাজ করছেন বলেই, আমরা সুস্থভাবে ঘরে থাকতে পারছি’, ট্যুইটে এবার ছোট দোকানদার-ব্যবসায়ীদের প্রশংসা মোদির

দেশের ছোট ছোট দোকানদার ও ব্যবসায়ীদের কর্তব্যপরায়ণতার ভুয়সী প্রংশসা করলেন প্রধানমন্ত্রী ৷

  • Share this:

নয়াদিল্লি: পিছু হটেননি, জীবনের ঝুঁকি নিয়েও লকডাউনেও মানুষের প্রয়োজনীয় জিনিস সরবরাহ করে গিয়েছে তারা ৷ রবিবার এভাবেই দেশের ছোট ছোট দোকানদার ও মুদি দোকানের ব্যবসায়ীদের প্রশংসা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ৷

দেশের ছোট ছোট দোকানদার ও ব্যবসায়ীদের কর্তব্যপরায়ণতার ভুয়সী প্রংশসা করলেন প্রধানমন্ত্রী ৷ এদিন তাদের কাজকে সম্মান জানিয়ে নরেন্দ্র মোদি ট্যুইটে লেখেন, ‘দেশের এই সঙ্কটজনক পরিস্থিতিতে দেশবাসী যে সুষ্ঠুভাবে বাড়িতে থাকতে পারছেন, তার জন্য সমাজের একটা বড় অংশের বড় হাত আছে ৷ তারা হলেন ছোট ছোট দোকানদার ও ব্যবসায়ীরা ৷ একবার ভেবে দেখুন জীবনের ঝুঁকি নিয়ে তারা যদি আমাদের দরকারের জিনিসগুলো সরবরাহ না করতেন তাহলে কি করতাম আমরা?’ দেশের হাজার হাজার এমন ছোট ব্যবসায়ী ও দোকানদারের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর ট্যুইটে প্রশংসার সঙ্গে ঝরে পড়েছে কৃতজ্ঞতাও ৷ উল্লেখ্য, এই ট্যুইটটি ইংরেজি নয় হিন্দিতে করেছেন প্রধানমন্ত্রী ৷

এছাড়া এদিন ব্লগের মাধ্যমে পেপটক সারেন মোদি ৷ করোনা পরবর্তী দুনিয়ার কি বদল আসছে? ভারতীয়দের জীবনেই বা কতটা প্রভাব পড়বে, মূলত তা নিয়েই ব্লগে মতামত জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। গোটা দুনিয়া তথা দেশ করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করছে। সেই প্রসঙ্গ টেনে নরেন্দ্র মোদির বক্তব্য, ‘করোনা কোনও জাতি, ধর্ম, সম্প্রদায় মানেনা। তাই কেউই যেন নিজেদের সুরক্ষিত মনে না করেন। ঐক্যবদ্ধ হয়েই এই লড়াই লড়তে হবে ৷’

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, এ আসলে এক-ঢিলে দুটি পাখি মারতে বার্তা। একদিকে সবাইকে করোনা নিয়ে সতর্ক করা। অন্যদিকে, করোনা বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ধর্মীয় প্রসঙ্গ এড়াতে কৌশলী অবস্থান প্রধানমন্ত্রীর

দেশে করোনা সংক্রমণের ঘটনায় তগলিগ-ই-জামাতের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। একটি সংগঠনের সঙ্গে একটি সম্প্রদায়কে এক করে দেখা কতটা যুক্তিসঙ্গত? সে প্রশ্নও উঠছে। তাই প্রধানমন্ত্রীর এই বার্তা অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মত ওয়াকিবহাল মহলের।

নরেন্দ্র মোদির বক্তব্য, পেশাদারী জীবনকে সম্পূর্ণ বদলে দিয়েছে এই কয়েক দিনে। প্রধানমন্ত্রী লিখেছেন, এখন বাড়িই নতুন অফিস। নয়া বৈঠকের ঘর হল ইন্টারনেট। আমরা এই এই পরিবর্তনের সঙ্গে মানিয়ে নিচ্ছি ৷

প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শ, ফিজিক্যাল ও ভার্চুয়াল - এই দুই পরিস্থিতির সঙ্গেই মানিয়ে নিতে হবে। ভারতবাসী বিশেষত তরুণদের সামনে এক এক অভূর্তপূর্ব সুযোগ - মত প্রধানমন্ত্রীর। বলেন, ‘স্বাস্থ্যকর ও উদ্ভাবনী জীবনযাত্রা নিশ্চিত করতে পর দেখাতে পারেন তরুণ ভারতীয়রা। আমাদের সেই সুযোগ নিতে হবে।’ এর পাশাপাশি ট্যুইটেও ঐক্যবদ্ধভাবে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই চালানোর আবেদন প্রধানমন্ত্রী। পাশাপাশি লকডাউনের সময় ব্যবসায়ীদের ভূমিকার প্রশংসা করেও বার্তা দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি।

First published: April 19, 2020, 10:39 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर