corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনার মৃত্যু মিছিলে ক্লান্ত ইতালি, কলকাতাকেও সতর্কবার্তা তুরিনবাসীর

COVID-19 দুই প্রান্তে ছড়িয়ে থাকা দুটো শহরকে মিলিয়ে দিয়েছে। বেঁধে দিয়েছে একসূত্রে।

  • Share this:

#কলকাতা: তুরিন ও কলকাতা। বিশ্বের দুই প্রান্তে ছড়িয়ে থাকা দুটো শহর। প্রাণশক্তিতে ভরপুর হয়ে থাকা দুটো শহর। গুগল বলছে দুটি শহরের মধ্যে আকাশপথে দূরত্বটা সাড়ে সাত হাজার কিলোমিটারেরও বেশি। COVID-19 দুই প্রান্তে ছড়িয়ে থাকা দুটো শহরকে মিলিয়ে দিয়েছে। বেঁধে দিয়েছে একসূত্রে।

সোশ্যাল নেটওয়ার্কে আলাপ হওয়া ইতালির রবার্তো বাকো এখন যেন পাশের বাড়ির বড় ভাই। প্রতিনিয়ত খোঁজখবর। প্রতিমুহূর্তে তথ্যের আদান প্রদান। একে অন্যের শহরটার ছবি জেনে নেওয়া। করোনা ভাইরাসের ভয় কাঁপিয়ে কাটা হয়ে আছে দুটো শহর। ইতালি হয়তো একটু বেশিই। আক্রান্তের সংখ্যা পশ্চিমের দেশটায় লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। সংক্রামক মারণ ভাইরাসের বলির সংখ্যাতত্ত্বে চিনকেও ছাপিয়ে গিয়েছে ইতালি। করোনা কাঁটায় কাঁপছে গোটা দেশটা। করোনা আতঙ্কে হাঁসফাঁস করছে উচ্ছ্বল জীবন-যাপনে অভ্যস্ত ইতালিয়ানরা।

শহরের রাজপথ কার্যত জনমানব শূন্য। নিজেদের ঘরের বাইরে বের হচ্ছে না রবার্তোরা। লক-ডাউন চলছে তুরিন, মিলান, রোম, লোম্বার্ডি, পালেরমোর মত প্রাণচঞ্চল শহরগুলোতে। দেশজুড়ে চলছে সেনা আর পুলিশের কড়া নজরদারি। দূর থেকে ভেসে আসা লাউডস্পিকারের সতর্কবার্তায় দিন কাটছে সে-দেশের মানুষগুলোর। অকারণ ঘরের বাইরে পা রাখলেই মিলছে কড়া ধমক আর বড়োসড়ো জরিমানার চোখরাঙানি। করোনার গ্রাস থেকে মুক্তি পেতে সব নিদান মাথা পেতে নিতে তৈরি বন্ধু রবার্তো বাকোরা।

রবার্তো বলছিলেন, মিলান শহর জুড়ে কফিন বোঝাই সেনা গাড়ির দাপাদাপি। কথা বলতে বলতেই গলা বুজে আসে দূর দেশে আমুদে মানুষটার। সাহিত্য, স্থাপত্য, অপেরা, ফ্যাশনে এগিয়ে থাকা দেশটা আজ ভালো নেই। একদম ভালো নেই। কলোসিয়াম, লেককোমো, পম্পেলি আজ বড্ড ধূসর। উপরওয়ালার অতি সাধের 'বেল পেইস' আজ চেনা মানুষগুলোর মৃত্যু মিছিল দেখতে দেখতে ক্লান্ত, বিধ্বস্ত। হোয়াটসঅ্যাপ কলে রবার্তো বলছিলেন, "আমরা অনেক দেরি করে ফেলেছিলাম। তোমরা ভারতীয়রা এই ভুলটা করো না।" দূর তুরিন থেকে ভারতবাসীর জন্য ভিডিও বার্তায় সতর্কীকরণ এক আম ইতালিয়ানের। কলকাতা থেকে তুরিনের দূরত্ব কত? 'সবার উপরে মানুষ সত্য তাহার উপরে নাই'!

PARADIP GHOSH 

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: March 22, 2020, 1:07 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर